সোমবার ১৭ জুন, ২০১৯

২০ রমজানের আগেই বেতন-বোনাসের দাবি

শুক্রবার, ১৭ মে ২০১৯, ২১:৪৯

প্রেস নারায়ণগঞ্জ.কম

প্রেস নারায়ণগঞ্জ: ২০ রমজানের মধ্যে শ্রমিকদের মে মাসের বেতন ও পূর্ণ বোনাস দেয়ার দাবিতে সমাজতান্ত্রিক শ্রমিক ফ্রন্ট সিদ্ধিরগঞ্জ থানা শাখার উদ্যোগে মানববন্ধন ও মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় গার্মেন্টস শ্রমিক ফ্রন্ট জেলার সহ সভাপতি সাইফুল ইসলাম শরীফের উপর হামলাকারীদের গ্রেফতারের দাবি করা হয়।

শুক্রবার (১৭ মে) বিকাল ৫টায় গোদনাইল চৌধুরীবাড়ী বাস স্ট্যান্ডে এই মানববন্ধন ও মিছিল অনুষ্ঠিত হয়।

সমাজতান্ত্রিক শ্রমিক ফ্রন্টের সিদ্ধিরগঞ্জ থানার সংগঠক তৌহিদুল ইসলাম সুজনের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন, সমাজতান্ত্রিক শ্রমিক ফ্রন্ট নারায়ণগঞ্জ জেলার সাধারণ সম্পাদক ও গার্মেন্টস শ্রমিক ফ্রন্ট জেলার সভাপতি সেলিম মাহমুদ, গার্মেন্টস শ্রমিক ফ্রন্ট জেলার সহ-সভাপতি হাসনাত কবির, গার্মেন্টস শ্রমিক ফ্রন্ট সিদ্ধিরগঞ্জ থানার সাধারণ সম্পাদক রুহুল আমিন সোহাগ, সমাজতান্ত্রিক শ্রমিক ফ্রন্ট সিদ্ধিরগঞ্জ থানার সংগঠক হাসান মাহমুদ প্রমুখ।

নেতৃবৃন্দরা বলেন, মাহে রমজানের পর প্রতিবছর ঈদ নিয়ম অনুযায়ী আসে। সেজন্য মালিকদের বেতন বোনাস না দেয়ার জন্য গড়িমসি চলে। প্রতিবছরই ঈদের চাঁদ রাতে বেতন বোনাস দিলে শ্রমিকদের প্রয়োজনীয় কেনাকাটার কোন সুযোগ থাকে না। একদিকে বাড়ী যাওয়ার গাড়ীর টিকেট পাওয়া যায় না এবং মালিক বেতন বোনাস না দেওয়ার শ্রমিকদের এক অবর্ণনীয় কষ্টের মধ্যে পড়তে হয় এবং বছরে একটি দিন পরিবার পরিজন নিয়ে ঈদ উদযাপন করতে পারে না। সরকার শ্রমিক বান্ধব নাম দিয়ে মালিকদের পক্ষ নিয়ে শ্রমিকদের সঙ্গে তামাসা করছে। মালিক পক্ষের এহেন আচরনে শ্রমিকরা সময়মত গাড়ীর টিকেট কিনতে না পারায় ট্রাক ও পিকআপে করে তাড়াহুরো করে বাড়ী যাওয়ার সময় সড়ক দুর্ঘটনায় লাশ হয়ে বাড়ী ফিরে। তাই সমাজতান্ত্রিক শ্রমিক ফ্রন্ট ও গার্মেন্টস শ্রমিক ফ্রন্ট দাবি করে মালিকদের বেতন বোনাস ২০ রমজানের মধ্যে না দেওয়ার কারনে যে সমস্ত শ্রমিকরা সড়ক দুর্ঘটনা কবলিত হবে সেই সমস্ত শ্রমিকদেরকে আর্থিক ও জীবন নাশের ক্ষতিপূরণ দিতে হবে।

নেতৃবৃন্দরা আরও বলেন, গার্মেন্টস শ্রমিক ফ্রন্ট নারায়ণগঞ্জ জেলার সহ-সভাপতি সাইফুল ইসলাম শরীফের উপর হামলাকারী গ্রেফতারকৃত সন্ত্রাসীদের রিমান্ডে এনে সমস্ত তথ্য জেনে সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিত করতে হবে। ভবিষ্যতে শ্রমিক ও শ্রমিক নেতৃবৃন্দের উপর হামলা করা না হয় সে বিষয়ে প্রশাসন ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সজাগ দৃষ্টি রেখে মালিকদের হুশিয়ারী বার্তা দিতে হবে।

সব খবর
নগর বিভাগের সর্বশেষ