বুধবার ২১ এপ্রিল, ২০২১

হাজীগঞ্জে কমিটি ভেঙে ঈদগাহ সমস্যা সমাধানের চেষ্টা

শুক্রবার, ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ২০:১২

প্রেস নারায়ণগঞ্জ.কম

প্রেস নারায়ণগঞ্জ: সদর উপজেলার হাজীগঞ্জ এলাকার নবুমিস্ত্রী ঈদগাহ ময়দানে ঘর নির্মাণকে কেন্দ্র করে উত্তেজনা সৃষ্টি হওয়ায় বর্তমান মসজিদ কমিটি ভেঙে দেওয়া হয়েছে। অনুমোদন দেওয়া হয়েছে নতুন আহ্বায়ক কমিটির। শুক্রবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) বাদ জুমা হাজীগঞ্জ নবুমিস্ত্রী জামে মসজিদে অনুষ্ঠিত জরুরি বৈঠকে তিনমাসের জন্য নতুন আহ্বায়ক কমিটির ঘোষণা দেওয়া হয়।

নতুন কমিটিতে আহ্বায়ক হিসেবে নিজের নাম ঘোষণা করেন মসজিদের প্রবীণ মোতাওয়াল্লি এহসান কাদির রুমী। আগামী ঈদের জামাত এই ঈদগাহে অনুষ্ঠিত হবে বলেও ঘোষণা দেন তিনি। একই সাথে এই আহ্বায়ক কমিটির পূর্ববর্তী কমিটির কর্মকান্ড ও আর্থিক আয়-ব্যয়ের হিসাব তদন্ত করবে। নতুন কমিটির আরও দুই সদস্য হলেন: নুরুজ্জামান (কোষাধ্যক্ষ) ও মিলন মাস্টার (দপ্তর সম্পাদক)। আগামী রোববার বাদ মাগরিব পরবর্তী বৈঠকে ১২ সদস্য বিশিষ্ট আহ্বায়ক কমিটির অপর সদস্যদের নাম জানানো হবে।

বৈঠকে পূর্ববর্তী কমিটির সভাপতি মোবারক হোসেন, সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সবুর মোল্লা, মসজিদের খতিব মুফতি ইমরান হোসেনসহ শতাধিক মুসুল্লি উপস্থিত ছিলেন। তবে, ঈদগাহ মাঠে ঘর নির্মাণের বিষয়ে কোনো আলোচনা হয়নি শুক্রবারের বৈঠকে। ফলে ঈদগাহে ঘর নির্মাণ হবে কিনা এ বিষয়টিও পরিষ্কার হয়নি। অবশ্য বৈঠক শেষে মসজিদের বাইরে এ নিয়ে স্থানীয়রা নানা কর্থাবার্তা বলেন। এ সময় মৃদু উত্তেজনা দেখা দিলেও অপ্রীতিকর কিছু ঘটেনি।

এদিকে ঈদগাহ মাঠের ঘর নির্মাণের বিষয়টি সমাধান না করে কমিটি ভেঙে দেওয়ায় প্রশ্ন তুলেছেন কেউ কেউ। তারা বলেন, এখানে সুক্ষ্মভাবে মূল বিষয়টি ধামাচাপা দেওয়া চেষ্টা করা হয়েছে। ঈদগাহকে সামনে রেখে কমিটি ভাঙার খেলা চলছে। ঈদগাহ রক্ষার দাবিতে গণস্বাক্ষর নেওয়া হলেও বৈঠকে এই প্রসঙ্গ এড়িয়ে যাওয়া হয়েছে উল্লেখ করে উষ্মা প্রকাশ করেন তারা।

তবে কমিটি ভেঙে দেওয়ার সিদ্ধান্তের সমর্থন করে আরেক পক্ষ বলছে, সকলের সাথে আলোচনা না করে ঈদগাহ মাঠে ঘর নির্মাণের সিদ্ধান্ত সঠিক ছিল না। এই কারণে পরিস্থিতি ঘোলাটে হয়েছে। এর দায় বর্তমান কমিটি এড়াতে পারে না।

প্রসঙ্গত, সদর উপজেলার ফতুল্লা ইউনিয়ন পরিষদের ৮ নম্বর ওয়ার্ডে অবস্থিত হাজীগঞ্জ নবুমিস্ত্রী জামে মসজিদ। এই নামেই প্রায় ৬৬ শতাশং জমির ওপর একটি ঈদগাহ মাঠ রয়েছে। প্রায় ৮ বছর আগে একবার এই মাঠে ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হয়েছিল। তারপর থেকে এই ঈদগাহে ঈদের জামাত বন্ধ রয়েছে। এই ঈদগাহের পশ্চিম পাশে বেশ কয়েকটি টিনসেড ঘর করে সেগুলো ভাড়া দেওয়া হয়েছে। গত রোববার মসজিদ কমিটি ঈদগাহ মাঠে আরও বেশ কয়েকটি ঘর নির্মাণ কাজ করতে গেলে স্থানীয় লোকজন তাতে বাধা দেয়। এ নিয়ে উত্তেজনার সৃষ্টি হয়।

সব খবর
নগরের বাইরে বিভাগের সর্বশেষ