বৃহস্পতিবার ১৭ অক্টোবর, ২০১৯

স্ত্রীকে দালালের কাছে বিক্রি করে দ্বিতীয় বিয়ে করেন স্বামী

বৃহস্পতিবার, ১০ অক্টোবর ২০১৯, ২১:০৬

প্রেস নারায়ণগঞ্জ.কম

প্রেস নারায়ণগঞ্জ: বন্দরে প্রলোভন দেখিয়ে স্ত্রীকে বিদেশে নিয়ে দালালদের কাছ বিক্রি করার অভিযোগ উঠেছে স্বামী মঞ্জু মিয়ার বিরুদ্ধে। দুই বছর পর ভুক্তভোগী গৃহবধূ রাবেয়া বেগম দালালদের কাছ থেকে পালিয়ে দেশে ফিরে দেখেন দ্বিতীয় বিয়ে করেছেন স্বামী। এ ঘটনার প্রতিবাদ জানালে স্বামী তাকে মারধর করেছেন বলেও অভিযোগ।

বুধবার (৯ অক্টোবর) রাতে এ ঘটনায় জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে ভুক্তভোগী বাদী হয়ে বন্দর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেছেন। যার জিডি নং-৩৯৬ তাং-৯-১০-১৯ইং।

জিডি সূত্রে জানা যায়, গত ২ বছর পূর্বে বন্দর থানার নূরপুর এলাকার মৃত আব্দুল মালেক মিয়ার ছেলে মঞ্জু মিয়ার সাথে একই থানার পুরান বন্দর চৌধুরীবাড়ী কলাবাগ এলাকার মোহাম্মদ আলী মিয়ার মেয়ে রাবেয়া বেগমের সাথে ৫ লাখ টাকা কাবিন মূলে ইমলামী শরিয়ত মোতাবেক বিয়ে হয়। বিয়ের পর কয়েক মাস পর মঞ্জু মিয়া জীবিকার তাগিদে লেবাননে পাড়ি জমায়। বিয়ের ৬ মাস পর স্বামী মঞ্জু মিয়া তার স্ত্রী রাবেয়াকে লেবাননে নিয়ে যান। সেখানে তাকে এক দালালের কাছে বিক্রি করে কৌশলে দেশে ফিরে আসে।

এ ব্যাপারে গৃহবধূর পিতা মোহাম্মদ আলী জানান, প্রতারক স্বামী মঞ্জু মিয়া আমার মেয়ে রাবেয়াকে দিয়ে সে দেশে অসামাজিক কাজে লিপ্ত থাকতে বাধ্য করে। এক পর্যায়ে গত ২০১৮ সালের ২১শে মে ওই দেশের দালালদের কাছে আমার মেয়ে বিক্রি করে দেশে ফিরে পুনরায় আরো একটি বিয়ে করে। পরে গৃহবধূ রাবেয়া বেগম দালালদের কবল থেকে মুক্তি পেয়ে গত ৬ অক্টোবর দেশে ফিরে স্বামীর বাড়িতে উঠে। এদিকে মেয়ের জামাই দ্বিতীয় বিয়ে করেছে।

তিনি বলেন, এদিকে আমার মেয়ে ঘটনার প্রতিবাদ করলে ওই সময় প্রতারক মঞ্জু ও তার বোন আমেনা এবং ২য় স্ত্রী রুনা তাকে বেদম মারপিট করে এবং প্রাণনাশের হুমকি দেয়।

এ বিষয়ে বন্দর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রফিকুল ইসলাম বলেন, ‘এই অভিযোগ সম্পর্কে আমি এখনো কিছু জানি না। যদি অভিযোগ দায়ের করা হয়ে থাকে তাহলে অবশ্যই ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’

সব খবর
নগরের বাইরে বিভাগের সর্বশেষ