সোমবার ১৬ ডিসেম্বর, ২০১৯

সোনারগাঁয়ে দুই ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে ব্যবসায়ীকে পেটানোর অভিযোগ

মঙ্গলবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৯, ২২:২০

প্রেস নারায়ণগঞ্জ.কম

প্রেস নারায়ণগঞ্জ: সোনারগাঁয়ে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে এক ব্যবসায়ীকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে দুই ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে। সোমবার (১৮ নভেম্বর) রাতে সোনারগাঁ থানায় এই ব্যাপারে দু’টি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

এ ঘটনায় আহত ব্যবসায়ী মোখলেছ উদ্ধার করে সোনারগাঁ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।

অভিযুক্তরা হলেন- সোনারগাঁয়ের বারদী ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য হাবিবুর রহমান হাবু ও ওমর ফারুক।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, উপজেলার বারদী ইউনিয়নের চেঙ্গকান্দি গ্রামের আব্দুল মতিনের সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরে বারদী ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য হাবিবুর রহমান হাবুর বিরোধ চলে আসছে। এই বিরোধে জের ধরে বিভিন্ন সময়ে তাদের মধ্যে ঝগড়া বিবাদ লেগে রয়েছে। ভূমি সংক্রান্ত জটিলতা নিরসনে সোনারগাঁ ভূমি কার্যালয়ে একটি মামলা চলছে।

সোমবার সকালে হাবিবুর রহমানের সঙ্গে আব্দুল মতিনদের তর্কবিতর্ক হয়। এক পর্যায়ে ১০-১৫ জনের একটি দল আব্দুল মতিনের বাড়িতে হামলা চালায়। মতিনের আত্মীয় ব্যবসায়ী মোখলেস মিয়া তাদের বাধা দেয়। এক পর্যায়ে মোখলেছ মিয়াকে পিটিয়ে আহত করা হয়। পরে আহত ওই ব্যবসায়ীকে উদ্ধার করে সোনারগাঁ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। ঘটনার পর আহত ব্যবসায়ীর ভাই আবু হারেছ ও জমির মালিক আব্দুল মতিন বাদী হয়ে সোনারগাঁ থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন।

আহত মোখলেস মিয়া জানান, বারদী ইউনিয়ন পরিষদের দুই সদস্য হাবিবুর রহমান হাবু ও ওমর ফারুকের নেতৃত্বে তাদের সহযোগীরা জমি দখলের চেষ্টা করে। বাধা দেওয়ায় পিটিয়ে আমাকে হত্যার চেষ্টা করে।

বারদী ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য হাবিবুর রহমান হাবু জানান, জমি দখলের ঘটনাটি সত্য নয়। আমাদের ওপর হামলার করলে প্রতিহত করেছি।

সোনারগাঁ থানার ওসি মনিরুজ্জামান বলেন, ‘ব্যবসায়ীর ওপর হামলার ঘটনায় অভিযোগ নেওয়া হয়েছে। তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

সব খবর
নগরের বাইরে বিভাগের সর্বশেষ