বৃহস্পতিবার ০২ এপ্রিল, ২০২০

সোনারগাঁয়ে খামারিকে তুলে নিয়ে মারধরের অভিযোগ

বুধবার, ১১ মার্চ ২০২০, ২১:৩৯

প্রেস নারায়ণগঞ্জ.কম

প্রেস নারায়ণগঞ্জ: নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ে এক দুগ্ধ খামারীকে বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে মারধর করার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় আহত দুগ্ধ খামারী কবির হোসেন বাদী হয়ে বুধবার (১১ মার্চ) বিকেলে সোনারগাঁ উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও সোনারগাঁ থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন।

গত ৯ মার্চ দুপুরে অপহরণ ও মারধরের শিকার হন কবির হোসেন। মুমূর্ষু অবস্থায় এলাকাবাসী উদ্ধার করে ওই খামারিকে সোনারগাঁ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন।

ওই ব্যবসায়ীর দায়ের করা অভিযোগ থেকে জানা যায়, সোনারগাঁ পৌর এলাকার ষোলপাড়া গ্রামের মৃত জাফর আলী মেম্বারের ছেলে দুগ্ধ খামারি কবির হোসেনের জমির ওপর দিয়ে হাবিবপুর গ্রামের কামাল হোসেনে ছেলে বিপুল ও মিন্টু জোরপূর্বক ড্রেজারের পাইপ নিয়ে বালুর ব্যবসা করে আসছে। এতে তার ফসলের ব্যাপক ক্ষতিসাধন হয়। তাছাড়া তাদের চলাচলে বিঘ্ন ঘটে। এ বিষয়টি বিপুলকে একাধিকবার বলার পর সে ওই জমি থেকে ড্রেজারের পাইপ অপসারণ করেনি। এ নিয়ে তাদের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে হাবিবপুর গ্রামের কামাল হোসেনে ছেলে বিপুলের নেতৃত্বে মিন্টু, গোচাইট গ্রামের ওমর আলীর ছেলে সাইদ, বালুয়াদিঘির পাড় গ্রামের বাদশা মিয়ার ছেলে বদুসহ ৪-৫ জনের একটি দল কবির হোসেনকে সোমবার দুপুরে তার বাড়ি থেকে অপহরণ করে সোনারগাঁ পৌরসভা কার্যালয়ের সামনে বৈদ্যুতিক খুটির সাথে বেঁধে পিটিয়ে হত্যার চেষ্টা চালায়। এক পর্যায়ে কবির হোসেন ডাক চিৎকার শুরু করলে তাকে রেখে হুমকি দিয়ে পালিয়ে যায়। পরে আহত অবস্থায় ওই খামারিকে উদ্ধার করে সোনারগাঁ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।

আহত খামারি কবির হোসেন জানান, দীর্ঘদিন ধরে বিপুল আমার দুই বিঘা জমির উপর দিয়ে ড্রেজারের পাইপ নেওয়ার কারণে আমি ওই জমিতে কোন ফসল ফলাতে পারি না। তাছাড়া আমাদের চলাচলের জন্য সমস্যার সৃষ্টি করে। এ বিষয়টি আমি তাকে বলার কারণে আমাকে সে মারধর করে। পরবর্তীতে আমাকে বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে পৌরসভা কার্যালয়ের সামনে নিয়ে বিদ্যুতের খুটির সাথে বেধে মারধর করে।

অভিযুক্ত বিপুলের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, কবির আমার পাইপের খুটির রশি কেটে দেওয়ার কারনে আমার পাইপ ভেঙ্গে পড়েছে। তাকে ডেকে এনে চড় থাপ্পর দেওয়া হয়েছে।

সোনারগাঁ থানার ওসি মনিরুজ্জামান বলেন, দুগ্ধ খামারীকে মারধরের ঘটনায় অভিযোগ গ্রহণ করা হয়েছে। তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

সোনারগাঁ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. সাইদুল ইসলাম বলেন, এক খামারিকে তুলে নিয়ে মারধরের ঘটনায় অভিযোগটি থানা পুলিশকে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

সব খবর
নগরের বাইরে বিভাগের সর্বশেষ