শুক্রবার ২৯ মে, ২০২০

সোনারগাঁয়ে করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বেড়েই চলেছে

মঙ্গলবার, ১২ মে ২০২০, ২১:৩৫

প্রেস নারায়ণগঞ্জ.কম

প্রেস নারায়ণগঞ্জ: নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ে করোনাভাইরাস আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বেড়েই চলেছে। নারায়ণগঞ্জের সিটি এলাকা ও সদর উপজেলায় করোনা আক্রান্ত রোগী সবচেয়ে বেশি থাকলেও সোনারগাঁ উপজেলাতেও বাড়ছে এই ভাইরাসের সংক্রম। গত চব্বিশ ঘন্টায় এই উপজেলার ছয়জন করোনা শনাক্ত হয়েছে।

সর্বশেষ মঙ্গলবার (১২ মে) জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ সূত্রে জানা যায়, গত ২৮ দিনের ব্যবধানে সোনারগাঁয়ে করোনাভাইরাস শনাক্ত রোগীর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৬০ জনে। আক্রান্ত ৬০ জন করোনাভাইরাস আক্রান্ত ব্যক্তি বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষ। এর মধ্যে দুইজন চিকিৎসা শেষে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গেছেন। মারা গেছেন ২ জন।

জানা যায়, জেলায় উপজেলাগত ভাবে সর্বশেষে সোনারগাঁ করোনা রোগী শনাক্ত হয়। গত ১৩ এপ্রিল প্রথম করোনাভাইরাসের আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয় উপজেলার বৈদ্যের বাজারের ১৪ বছরের কিশোর আবু বকর। গত এপ্রিল মাসে রোগী ছিল ২৬ জন। চলতি মাসের ১০ দিনে রোগীর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৬০ জনে। এদিকে দিন দিন আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে যাওয়ায় মানুষজনের মধ্যে আতঙ্ক বেড়ে চলেছে।

সোনারগাঁ উপজেলায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ১৮ এপ্রিল সকালে শম্ভূপুরা চেলারচর এলাকায় মারা যান মৃত মো. আওয়ালের ছেলে আসাদ মিয়া (৫০) এবং দিবাগত রাতে মারা যান মোগরাপাড়া ইউনিয়নের গোহাট্টা এলাকার রূপচান মিয়ার বাড়ির ভাড়াটিয়া আব্দুর রহিম (৩৮)।

সোনারগাঁও ইউএনও সাইদুল ইসলাম বলেন, আমরা সার্বক্ষনিক মানুষকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার পরামর্শ দিচ্ছি, মাঠ পর্যায়ে কাজ করছি। আসলে গার্মেন্টস ইন্ডাস্ট্রিগুলো খুলে দেওয়াতে সংক্রমন বেড়েছে। কারন সোনারগাঁ উপজেলা একটি অর্থনৈতিক অঞ্চল। এখানে প্রচুর মানুষ কারখানাতে কাজ করে। এছাড়া মার্কেটগুলোও খুলে দেওয়া হয়েছে। মানুষকে আরও সতর্ক হতে হবে। দোকানপাট খুললেও সামাজিক দূরত্ব বজায় থেকে কেনাকাটা করতে হবে। বাজারে চলাচল করতে গেলেও নিয়ম মানতে হবে। আর তা না হলে রোগী আরও বেড়ে যাওয়ার আশঙ্কা রয়েছে।

সব খবর
নগরের বাইরে বিভাগের সর্বশেষ