মঙ্গলবার ১৬ জুলাই, ২০১৯

সেলিম ওসমান সেপ্টেম্বরে, শামীম ওসমান অক্টোবরে

বুধবার, ৮ আগস্ট ২০১৮, ২১:৪৮

প্রেস নারায়ণগঞ্জ.কম

প্রেস নারায়ণগঞ্জ: একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন ঘিরে নারায়ণগঞ্জের ৫টি আসনে ক্ষমতাসীন দলের বর্তমান এমপি এবং সম্ভাব্য প্রার্থীরা বেশ তৎপর হয়ে উঠেছেন দলীয় মনোনয়ন পেতে। কর্মী সভা, উঠান বৈঠক, দলীয় কর্মসূচিতে যোগদান, গণসংযোগও নানাভাবে নিজেকে উপস্থাপন করছেন তারা। তবে দুটি আসন ঘিরে নেতাকর্মীদের কৌতুহল একটু বেশী লক্ষ করা যাচ্ছে। সেই দুটি আসন হলো নারায়ণগঞ্জ- ৪ (সিদ্ধিরগঞ্জ-ফতুল্লা) ও নারায়ণগঞ্জ-৫ (শহর-বন্দর) আসন। বতর্মানে এদুটি আসনে নারায়ণগঞ্জের প্রভাবশালী রাজনৈতিক পরিবারের সন্তান সেলিম ওসমান ও শামীম ওসমান এমপি। তবে দুটি আসনেই একাধিক সম্ভাব্য প্রার্থীর তৎপরতা চোখে পড়ার মতো। শহর-বন্দর আসনে আওয়ামীলীগের সম্ভাব্য প্রার্থীরা লাঙ্গল ঠেকাতে একহাট্টা। তারা যে কোন উপায়ে এখানে আগামী নির্বাচনে নৌকার প্রার্থী চান। এমনকি জেলা ও মহানগর আওয়ামীলীগের শীর্ষ নেতানেত্রীরা এই আসনে নৌকার প্রার্থীর জন্য ঐক্যবদ্ধ। তবে শামীম ওসমান জোর দিয়ে এখনো বলেননি শহর-বন্দরে তিনি আগামী নির্বাচনে নৌকার প্রার্থী চান। ফলে শেষ পর্যন্ত নৌকা না লাঙ্গল কোন প্রতীকে কে হচ্ছেন এখানে প্রার্থী তার জন্য আরো অপেক্ষা করতে হবে।

দলীয় সূত্রমতে, নারায়ণগঞ্জ-৫ (শহর-বন্দর) আসনের সংসদ সদস্য এ কে এম সেলিম ওসমান অন্যদিকে নারায়ণগঞ্জ-৪ (ফতুল্লা-সিদ্ধিরগঞ্জ) আসনের সংসদ সদস্য তারই ছোট ভাই একেএম শামীম ওসমান। নারায়ণগঞ্জে এই দুটি আসন খুবই গুরুত্বপূর্ণ আসন। আগামী একাদশ সংসদ নির্বাচনে এই দুই আসন থেকে ক্ষমতাসীন একাধিক নেতা মনোনয়ন প্রত্যাশী। বিভিন্ন অনুষ্ঠানে তারা তাদের মনোনয়ন প্রত্যাশা করে বক্তব্যও দিয়েছেন। কিন্তু ক্ষমতাসীন এই দুই এমপি এখনো খোলাসা করে কিছু জানাননি নির্বাচন সম্বন্ধে। যদিও সেলিম ওসমান বলেছেন, আগামী সেপ্টেম্বরে জানাবেন কোন প্রতীকে নির্বাচন করবেন। অন্যদিকে তার ছোট ভাই শামীম ওসমান বলেছেন, অক্টোবরে জানাবেন তিনি নির্বাচন করবেন কিনা।

এদিকে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন দরজায় কড়া নাড়ছে। ক্ষমতাসীন দল আওয়ামীলীগ এরই মধ্যে তৃতীয় বারের মতো ক্ষমতায় আসতে তোড়জোড় করে প্রচারণা চালাচ্ছে। গণভবনে প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য অনুযায়ী বলা যায়, আগামী নির্বাচনেও জাতীয় পার্টি মহাজোটে থাকবে। তাই এখন প্রশ্ন আসছে, নারায়ণগঞ্জ-৫ আসন থেকে কে মনোনয়ন পাবে। নৌকা না লাঙ্গলের প্রার্থী।

এদিকে এই দুই আসনের বর্তমান এমপিরাও আগামী নির্বাচনে অংশগ্রহন করবেন কিনা কিংবা মনোনয়ন পাবেন কিনা সেটা নিয়েও নানা আলোচনা আছে মাঠে। অন্যদিকে নিজেরাও খোলাসা করে কিছু বলছেন না। দুইজনই দুই সময় বেধে দিয়েছেন। একজন সেপ্টেম্বরে জানাবেন, অন্যজন অক্টোবরে। এর আগে নির্বাচন বিষয়ে কোন মন্তব্য করবেন না বলে জানিয়েছেন এই দুই এমপি।

নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনের সাংসদ এ কে এম সেলিম ওসমান বলেছেন, ‘আমি আবারো সবার সঙ্গে কথা বলবো। আগামী সেপ্টেম্বর পর্যন্ত উন্নয়ন করবো। সেপ্টেম্বরে উন্নয়নের খতিয়ান তুলে ধরবো। তখন আপনাদের মতামত নিব। আপনারা চাইলে মার্কা ছাড়াও সেলিম ওসমান নির্বাচন করতে পারে। এটা আজ প্রমাণিত হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যেটা নির্ধারণ করবেন সেটাই হবে। তিনি যদি বলেন এ মার্কায় নির্বাচন করো। তাহলে ওই মার্কার পক্ষেই সবাই কাজ করবে। এর আগে প্রধানমন্ত্রী নারায়ণগঞ্জে এসে নৌকার উপরে লাঙল তুলে দিয়ে গেছেন। সুতরাং এটা নিয়ে এখনই কিছু বলার নাই।’ গত ২৬ জুন তাঁর এমপি হবার ৪ বছর পূর্তি উপলক্ষে নারায়ণগঞ্জ চেম্বার অব কমার্সের আয়োজনে এক গণসংবর্ধনা অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

এদিকে নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সাংসদ এ কে এম শামীম ওসমান বলেছেন, ‘আমি নির্বাচন করবো কিনা তা এখনো জানি না। সব এলাকা ঘোরার পরে অক্টোবর মাসে আমি ঘোষণা দেবো নির্বাচন করবো কিনা। আমি টাকা দিয়ে ইলেকশন করবো না। টাকা দিয়ে ইলেকশন করলে আমার চেয়ে বেশি টাকা কেউ খরচ করতে পারবো না। আমার চেয়ে যদি কেউ ভালো থাকে তাহলে আপনারা তারে নির্বাচিত করবেন।’ গত ২৩ জুলাই তাঁর নির্বাচনী এলাকা ফতুল্লা থানাধীন কাশিপুর ইউনিয়নে এক কর্মীসভায় তিনি এসব কথা বলেন। কেবল কাশিপুরেই নয় বিভিন্ন অনুষ্ঠানেই তিনি এই কথা বলেছেন। সর্বশেষ বন্দরে স্বেচ্ছাসেবকলীগের জনসভায় তিনি একই কথা বলেন।

এদিকে এই দুই আসনেই ক্ষমতাসীন আওয়ামীলীগ ও জাতীয় পার্টির একাধিক নেতা মনোনয়ন প্রত্যাশী। নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনে মনোনয়ন প্রত্যাশী আওয়ামীলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির শ্রমিক উন্নয়ন ও কল্যান বিষয়ক সম্পাদক কাউসার আহমেদ পলাশ, কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগের অর্থ ও পরিকল্পনা বিষয়ক উপ কমিটির সদস্য ও আওয়ামীলীগের এক সময়ের ডাকসাইটের নেতা কামাল মৃধা। অন্যদিকে নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনে মনোনয়ন প্রত্যাশী মহানগর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক এড. খোকন সাহা, জেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এ কে এম আবু সুফিয়ান, জাতীয় শ্রমিকলীগের সভাপতি শুক্কুর মাহমুদ।

সব খবর
রাজনীতি বিভাগের সর্বশেষ