বুধবার ১৪ নভেম্বর, ২০১৮

সাইনবোর্ডে তল্লাশীর কারণে দীর্ঘ যানজট, ভোগান্তি

মঙ্গলবার, ৬ নভেম্বর ২০১৮, ১৬:৫০

প্রেস নারায়ণগঞ্জ.কম

প্রেস নারায়ণগঞ্জ: ঢাকা সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে ঐক্যফ্রন্টের সমাবেশে নারায়ণগঞ্জ থেকে দলে দলে যোগ দিয়েছে ঐক্যফ্রন্টের নেতারা। এদিকে ঢাকায় প্রবেশে পথে নারায়ণগঞ্জের সাইনবোর্ড এলাকায় সব ধরনের যানবাহনে তল্লাশি অভিযান চালাচ্ছে পুলিশ। তল্লাশী পরিচালনাকালে ঢাকা-চট্টগ্রাম সড়কে দীর্ঘ যানজট দেখা যায়। ফলে চরম ভোগান্তিতে পড়ে সাধারণ জনগণ।

মঙ্গলবার (৬ নভেম্বর) সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের জনসভাকে কেন্দ্র করে সভাস্থলসহ পুরো রাজধানী জুড়ে নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। এ কারণে সকাল থেকে সাইনবোর্ড এলাকায় একটি একটি করে সব ধরনের যানবাহন থামিয়ে এ তল্লাশি অভিযান পরিচালনা চালাচ্ছে পুলিশ।

ডিএমপির কদমতলী থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) মো. সাজু মিয়ার নেতৃত্বে এ অভিযানে বিপুল সংখ্যক আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে। রাজধানীতে প্রবেশের পথে বসানো হয়েছে তল্লাশি চৌকি। যানবাহনগুলোতে তল্লাশি চালাচ্ছে পুলিশ। যানবাহন থামিয়ে তল্লাশী চালানোতে সড়কে দীঘং যানজটের সম্মুখীন হয় সাধারণ যাত্রীরা।

সরেজমিনে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের সাইনবোর্ড এলাকায় গিয়ে দেখা গেছে, রাজধানীর প্রবেশ পথে ডিএমপির কদমতলী থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) মো. সাজু মিয়ার নেতৃত্বে বিপুল সংখ্যক পুলিশ সদস্য একটি একটি করে থামিয়ে এ তল্লাশি অভিযান পরিচালনা করছেন। বাস, মিনিবাসসহ তল্লাশি চালানো হচ্ছে রিকশা, সিএনজি, লেগুনা, প্রাইভেটকারগুলোতেও। ডিএমপির পুলিশের ধীরগতির তল্লাশি অভিযানের ফলে মহাসড়কে যানজটের কবলে পড়ে আছে শত শত যানবাহন। এতে চরম ভোগান্তিতে পড়তে হচ্ছে পরিবহন যাত্রীদের।

মো. সাইদুল ইসলাম নামে এক যাত্রী বলেন, তিনি যাবেন তার কর্মস্থল রায়েরবাগে। দু`ঘণ্টা হবে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়েকর সানারপাড় এলাকায় বাসে বসে আছেন। গাড়ি আর সামনে যাচ্ছে না। পরে তিনি পায়ে হেঁটেই রওয়ানা দেন কর্মস্থলের দিকে। ডিএমপির কদমতলী থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) মো. সাজু মিয়া বলেন, সমাবেশকে কেন্দ্র করে কেউ যাতে কোনো ধরনের নাশকতা করতে না পারে, এজন্য রাজধানীমুখী পরিবহনগুলো তল্লাশি অভিযান চালানো হচ্ছে।

মহাসড়কে যানজটের বিষয়ে কথা হলে নারায়ণগঞ্জ ট্রাফিক পুলিশের সাইনবোর্ড এলাকার দায়িত্বরত ইন্সপেক্টর (টিআই) মো. জিয়াউল করিম বলেন, ডিএমপি পুলিশের তল্লাশি অভিযানের ফলে এ যানজট সৃষ্টি হয়েছে।

এছাড়া সকাল থেকে বেলা ১২টা পর্যন্ত বাস চলাচল ছিল বন্ধ। বারোটার পর থেকে বাস চলাচল শুরু হলেও তার সংখ্যা সীমিত। এদিকে সকাল থেকেই ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ রুটে ট্রেন চলাচলও বন্ধ করে রাখা হয়েছে। একটি মাত্র ইঞ্জিন চালু থাকলেও সব বগি আলাদা করে রাখা হয়েছে। একদিকে বাস চলাচল বন্ধ অন্যদিকে তল্লাশীর কারণে দীর্ঘ যানজটে ভোগান্তিতে পড়ছে হয়েছে মানুষকে।

সব খবর
জনদুর্ভোগ বিভাগের সর্বশেষ