শনিবার ২৪ আগস্ট, ২০১৯

সরকার ও বিজিএমইএ চরম অবহেলার পরিচয় দিচ্ছে: মন্টু ঘোষ

বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০১৯, ২০:২০

প্রেস নারায়ণগঞ্জ.কম

প্রেস নারায়ণগঞ্জ: রানা প্লাজা শ্রমিক হত্যাকান্ডে নিহত শ্রমিকদের স্মরণে বুধবার (২৪ এপ্রিল) সকালে জুরাইন কবরস্থানে গার্মেন্ট শ্রমিক ট্রেড ইউনিয়ন কেন্দ্রর পক্ষ থেকে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়।

এ সময় সংগঠনের কেন্দ্রিয় সভাপতি এড. মন্টু ঘোষ, কেন্দ্রীয় নেতা সাদেকুর রহমান শামীম, মঞ্জুর মঈন ও নারায়ণগঞ্জ জেলা কমিটির সভাপতি এম এ শাহীন, সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন জেলা কমিটির নেতা মোস্তাকিমসহ অনেক নেতা কর্মী উপস্থিত ছিলেন।

শ্রদ্ধা নিবেদন অনুষ্ঠানে মন্টু ঘোষ বলেন, রানা প্লাজা শ্রমিক হত্যাকান্ডের ৬ বছর হলো এখনো পর্যন্ত খুনি মালিক ও দায়ীদের বিচার হয়নি। বরং সোহেল রানা ছাড়া গ্রেফতারকৃত অন্যান্য সকল অপরাধীকে জামিনে মুক্তি দেয়া হয়েছে। আদৌ এই হত্যাকান্ডের বিচার হবে কিনা তা নিয়ে আশংকা দেখা দিয়েছে। রানা প্লাজা বা তাজরিন হত্যাকান্ডই না বিগত এক যুগে এমন অসংখ্য ঘটনায় হাজার হাজার শ্রমিক অকালে প্রাণ হারিয়েছে। এসব দুর্ঘটনা বা হত্যাকান্ডের ঘটনায় শুধু তদন্ত কমিটি গঠিত হয়েছে, কিছু দিন আলোচনা সমালোচনা হয়েছে তারপর চাপা পড়ে গেছে। কোন ঘটনায় অপরাধীদের বিচার হয়নি। আহত-নিহত শ্রমিকের উপযুক্ত ক্ষতিপূরণ, সুচিকিৎসা ও পুর্নবাসন ব্যবস্থা করা হয়নি।

তিনি আরও বলেন, রানা প্লাজার আহত-নিহত শ্রমিকদের সহায়তার জন্য প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ তহবিলে ১২৭ কোটি টাকা জমা হয়েছিল সেখান থেকে শ্রমিকদের কিছু টাকা সহায়তা দেয়া হলেও বাঁকী টাকার কোন হিসাব পাওয়া যায়নি। সরকার ও বিজিএমইএ এসব বিষয়ে চরম অবহেলার পরিচয় দিচ্ছে। তারা শুধু দায়ী মালিকদের বাঁচাতে ততপর রয়েছে। শ্রমিকদেরকে ওরা মানুষই মনে করেনা। মালিকদের এই আচরণ শিল্পকে চরম বিপদের দিকে ঠেলে দিচ্ছে। কর্মক্ষেত্রে শ্রমিকের জীবনের নিরাপত্তাহীনতা হুমকি হয়ে দাঁড়িয়েছে। সোহেল রানা ক্ষমতাসীন দল আওয়ামীলীগের লোক হওয়ার কারণে সরকার বিচার কার্যক্রম বিলম্বিত করে খুনিদের রক্ষা করার চেষ্টা করছে। অন্যদিকে আহত পঙ্গু ও নিহত শ্রমিক পরিবার নিদারুণ কষ্টে জীবন যাপন করছে। স্বজন হারানো পরিবারের বুক ফাটা কান্না আর্তনাদ সরকারের কানে পৌঁছচ্ছে না। সরকারকে ন্যায় বিচার ও জাতীয় অর্থনীতির স্বার্থ বিবেচনায় নিয়ে শ্রমিক হত্যার দায়ে অভিযুক্ত খুনি মালিক সোহেল রানাসহ সকল অপরাধীকে বিচারের কাঠগড়ায় দাঁড় করিয়ে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি নিশ্চিত করতে হবে। আহত শ্রমিকের সুচিকিৎসা ও পঙ্গুত্ব বরণকারীদের পুর্নবাসন ব্যবস্থা করাসহ আন্তর্জাতিক শ্রম আইন (আইএলও) অনুসারে একজন শ্রমিকের সারাজীবনের আয়ের সমপরিমাণ অর্থ ক্ষতিপূরণ প্রদানের আহবান জানান তিনি।

সব খবর
রাজনীতি বিভাগের সর্বশেষ