শুক্রবার ২২ নভেম্বর, ২০১৯

সরকারি অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে গিয়াসউদ্দিনকে জিজ্ঞাসাবাদ

বৃহস্পতিবার, ৯ মে ২০১৯, ২২:১৪

প্রেস নারায়ণগঞ্জ.কম

প্রেস নারায়ণগঞ্জ: সরকারি অর্থ আত্মসাৎ, দুর্নীতি, অনিয়ম আর ক্ষমতার অপব্যবহারের অভিযোগে নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের বিএনপির সাবেক সংসদ সদস্য মুহাম্মদ গিয়াস উদ্দিনকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদুক)।

গত ২৯ এপ্রিল তাকে সকাল ১০টা থেকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। এর আগে গত ২১ এপ্রিল কমিশন থেকে চিঠি পাঠিয়ে তাকে তলব করা হয়।

এর আগেও সাবেক এমপি গিয়াসউদ্দিনের বিরুদ্ধে দুদক অনুসন্ধান করেছিল। ২০১৬ সালের ডিসেম্বর মাসে শুরু হওয়া ওই অনুসন্ধান সূত্রে জানা গেছে, ২০০১ থেকে ২০০৬ সাল পর্যন্ত জামায়াত-বিএনপি জোট সরকারের আমলে ক্ষমতায় থাকাকালীন সময়ে শীতলক্ষ্যা নদীর তীরে পাথর ব্যবসা থেকে বিপুল সম্পদের মালিক হন। অর্জিত এ সম্পত্তির মধ্যে শীতলক্ষ্যা নদীর তীরে নিজের নামে দখল করে ৬ একর সরকারি জমিতে বালু ও পাথর ব্যবসা, সিদ্ধিরগঞ্জ হীরাঝিল এলাকায় জিআর টেক্সটাইল মিলস এবং সিমরাইল এলাকা কাসসাফ শপিং সেন্টার রয়েছে। এর বাইরেও নামে বেনামে বিপুল সম্পদের মালিক হন তিনি। তবে দুদকের তলব করা ওই চিঠিতে কোন কোন খাতে অবৈধ সম্পদ অর্জন করেছেন তা উল্লেখ নেই।

সাবেক ও বর্তমান সংসদ সদস্যদের দুর্নীতি অনুসন্ধান করছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। দুদকের এই অনুসন্ধান জালে রয়েছেন অর্ধশত বর্তমান ও সাবেক সংসদ সদস্য। এদের অনেকেই একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের হলফনামায় সম্পদের তথ্য গোপন করেছেন বলে প্রাথমিকভাবে নিশ্চিত হয়েছে দুদক। অনুসন্ধান জালে থাকা বর্তমান ও সাবেক সংসদ সদস্যদের স্ত্রী, ভাই ও পরিবারের অন্য সদস্যদের বিরুদ্ধে ওঠা দুর্নীতির অভিযোগও খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

দুদকের উপপরিচালক (জনসংযোগ) প্রণব কুমার ভট্টাচার্য বলেন, ‘অনুসন্ধান পর্যায়ে অভিযোগের সত্যতা মিললে আইনগত প্রক্রিয়ায় তা নিষ্পত্তি করা হবে।’

প্রসঙ্গত, ২০০১ সালের জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নারায়ণগঞ্জ-৪ আসন থেকে আওয়ামী লীগের বর্তমান এমপি শামীম ওসমানকে পরাজিত করে বিজয়ী হন বিএনপি নেতা গিয়াসউদ্দিন। সর্বশেষ একাদশ সংসদ নির্বাচনেও স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে অংশগ্রহণ করলেও পরে মনোনয়ন প্রত্যাহার করে নেন তিনি।

সব খবর
রাজনীতি বিভাগের সর্বশেষ