রবিবার ২৯ মার্চ, ২০২০

সমালোচনার মুখে রূপগঞ্জে আজহারীর ওয়াজ স্থগিত

বৃহস্পতিবার, ৩০ জানুয়ারি ২০২০, ২২:১০

প্রেস নারায়ণগঞ্জ.কম

প্রেস নারায়ণগঞ্জ: আলোচিত-সমা‌লো‌চিত বক্তা মিজানুর রহমান আজহারী নারায়ণগ‌ঞ্জের রূপগঞ্জে আসবেন না। শুক্রবার (৩১ জানুয়ারি) উপ‌জেলার তারাব পৌরসভার বরপা এলাকায় তার আসার কথা ছিলো। সেখানে বায়তুল্লাহ জামে মসজিদ উদ্বোধন উপলক্ষে আয়োজিত ওয়াজ মাহফিলে তার বয়ান করার কথা ছিলো। প্রশাস‌নের পক্ষ থে‌কে অনুম‌তি না দেয়ায় মাহফিল হচ্ছে না বলে জানিয়েছে আয়োজক কমিটি। আর মাহফিল না হওয়ায় মিজানুর রহমান আজহারীর রূপগঞ্জে আসা হচ্ছে না।

এই আয়োজনে প্রধান অতিথি করা হয়েছিল- বস্ত্র ও পাট মন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী (বীর প্রতীক)। বিশেষ অতিথি হিসেবে থাকার কথা ছিল- সাবেক মন্ত্রী মো. আবুল কালাম আজাদ, পাবনা-২ আসনের এমপি মো. আজিজুল হক আরজু, নারায়ণগঞ্জ-২ আসনের এমপি মো. নজরুল ইসলাম বাবু, রূপগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. শাহজাহান ভূঁইয়াসহ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গের।

রূপগঞ্জের এই ওয়াজ ও দোয়ার মাহফিলে প্রধান বক্তা হিসেবে ড. মিজানুর রজমান আজহারীর উপস্থিত থাকার কথা ছড়িয়ে পড়লে এ নিয়ে শুরু হয় সমালোচনা। মিজানুর রহমান আজহারী যুদ্ধাপরাধী দেলোয়ার হোসেন সাঈদীর পক্ষ নিয়ে বেশ কয়েকটি ওয়াজ মাহফিলে কথা বলেছেন। আজহারীর সাথে জামায়াত সম্পৃক্ততা রয়েছে বলে আলোচনার সৃষ্টি হয়েছে। বিষয়টি নিয়ে কথা বলেছেন সরকারদলীয় মন্ত্রী ও সাংসদরা। সংসদেও বিষয়টি উত্থাপিত হয়েছে। এমন একজন ব্যক্তিকে ওয়াজে প্রধান বক্তা রেখে সেই অনুষ্ঠানে সরকার দলীয় মন্ত্রী, এমপিদের অতিথি রাখার বিষয়টি নিয়ে বেশ সমালোচনা হয়। সরকার দলীয় নেতাকর্মীরাও এ নিয়ে সমালোচনা করেন। সমালোচনার এক পর্যায়ে আয়োজক কমিটি ওয়াজ মাহফিল স্থগিত করেন।

সম্প্রতি মিজানুর রহমান আজহারীর বক্তব্যে যুদ্ধাপরাধী দেলোয়ার হোসেন সাঈদীর পক্ষের বিষয়টি সংসদেও উত্থাপিত হয়েছে এবং এ বিষয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীরও দৃষ্টি আকর্ষন করা হয়েছে। গত ২৩ জানুয়ারি ‘মিজানুর রহমান আজহারী যুদ্ধাপরাধী দেলোয়ার হোসেন সাঈদীর পক্ষ নিয়ে ওয়াজে আলোচনা করেন’ বিষয়টি সংসদে উত্থাপন করেন সাংসদ মো. শফিকুর রহমান। এ সময় সভাপতির চেয়ারে বসা ডেপুটি স্পিকার মো. ফজলে রাব্বি মিয়া স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষন করেন।

সংসদে শফিকুর রহমান বলেন, ‘দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদী রাজাকার ছিলেন। প্রকাশ্য আদালতে তার বিচার হয়েছে, বিচারে তার শাস্তি হয়েছে। এখন কিছু লোক একজনের নাম মিজান আরেক জনের নাম মনোয়ার। তারা বলছেন ঘরে ঘরে দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদী বেরিয়ে আসবে। শুধু তাই না, একজন বলছে, এখন আর তীর ধনুকের যুগ না, এখন একে ফোরটি সেভেনের যুগ। এটি প্রচ্ছন্ন নয়, প্রকাশ্যে হুমকি। এতে মনে হয়, জামায়াত-শিবির-রাজাকার তৎপর হয়ে গেছে।’

সাংসদ ও জনপ্রিয় কন্ঠশিল্পী মমতাজ বেগমও সংসদে আজহারী ওয়াজে যুদ্ধাপরাধের দায়ে সাজাপ্রাপ্ত দেলোয়ার হোসেন সাঈদীর পক্ষ নিয়ে কথা বলার বিষয়টি উল্লেখ করেছেন। ধর্ম প্রতিমন্ত্রী শেখ মো. আব্দুল্লাহও মিজানুর রহমান আজহারীকে ‘জামাতের প্রোডাক্ট’ বলে মন্তব্য করেছেন।

এসব কারণেই রূপগঞ্জে মাওলানা আজহারীর আগমন নিয়ে সমালোচনার সৃষ্টি হয়। এর আগেও নারায়ণগঞ্জের বন্দরে আজাহারীর আগমন নিয়ে বিতর্ক তৈরি হয়। তার আগমন বন্ধ করতে ঝাড়ু মিছিলও করা হয়। পরে নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনের সাংসদ একেএম সেলিম ওসমানের হস্তক্ষেপে বন্দরে আসেন ড. মিজানুর রহমান আজহারী। তবে এবার সমালোচনার মুখে রূপগঞ্জে তিনি আর আসছেন না। ওয়াজের আয়োজনও স্থগিত করে দিয়েছেন আয়োজকরা।

সব খবর
নগরের বাইরে বিভাগের সর্বশেষ