শনিবার ২৩ নভেম্বর, ২০১৯

সন্ত্রাসী গিট্টু হৃদয় ও আমির বাহিনীর কাছে জিম্মি সোনারগাঁবাসী

শুক্রবার, ২৮ জুন ২০১৯, ২২:৫৬

প্রেস নারায়ণগঞ্জ.কম

প্রেস নারায়ণগঞ্জ: পুলিশের তালিকাভুক্ত শীর্ষ সন্ত্রাসী, চাঁদাবাজ ও মাদক ব্যবসায়ী গিট্টু হৃদয়, আমির ও এসকে সজিব বাহিনীর কাছে জিম্মি হয়ে পড়েছে সোনারগাঁয়ের জনসাধারণ। এই বাহিনীর সদস্যরা রাতের বেলা কালো রঙের মাইক্রোবাসে চড়ে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে ছিনতাই ও ডাকাতির পাশাপাশি উপজেলার প্রত্যন্ত অঞ্চলে মাদক বিক্রি করে বলে অভিযোগ রয়েছে। এছাড়া ভাড়াটিয়া কিলার, সন্ত্রাসী, চাঁদাবাজ ও অপহরণকারী হিসেবেও সোনারগাঁয়ের প্রত্যন্ত অঞ্চলে তাদের যাতায়াত রয়েছে বলে জানা যায়। তাদের নির্যাতনের ভয়ে ভুক্তভোগীরা কোন ধরনের প্রতিবাদ ও থানায় অভিযোগ করার সাহস পায় না।

শুক্রবার (২৮ জুন) জেলা গোয়েন্দা পুলিশ গিট্টু হৃদয় ও তার ৩ সহযোগিকে গ্রেপ্তার করেছে বলে খবর ছড়িয়ে পড়লে উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় মিষ্টি বিতরণ করা হয়েছে। যদিও ডিবি পুলিশের পক্ষ থেকে তাকে গ্রেপ্তারের ব্যাপারে কোন বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

জানা যায়, উপজেলার শীর্ষ সন্ত্রাসী গিট্টু হৃদয়, আমির ও এসকে সজিব বাহিনীর সর্বশেষ শিকার হয়েছেন পিরোজপুর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান সিরাজুল হক ভূঁইয়ার ছেলে রাসেল ভূঁইয়া (৩০)। গত বৃহস্পতিবার দুপুরে তিনি উপজেলার মোগরাপাড়া চৌরাস্তায় একটি রেস্টুরেন্টে নিজের শিশু কন্যা ও ভাতিজাকে নিয়ে খাবার খেতে আসলে গিট্টু হৃদয়, আমির ও এসকে সজিব বাহিনীর সদস্যরা তাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে মারাত্মকভাবে জখম করে। এ সময় গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে প্রথমে সোনারগাঁ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও পরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। শুক্রবার রাত ৯ টায় এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত তার জ্ঞান ফেরেনি। ঢাকা মেডিকেল কলেজের আইসিইউ’তে চিকিৎসাধীন রাসেল ভূঁইয়ার অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে চিকিৎসকরা জানিয়েছেন।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক উপজেলাবাসী জানায়, গিট্টু হৃদয়, আমির ও এসকে সজিব বাহিনী দীর্ঘদিন যাবৎ সোনারগাঁয়ে মাদক ব্যবসার নিয়ন্ত্রণ করে আসছে। এছাড়া মুরাদপুরের হাবিবুল্লাহ বাহিনীর ন্যায় এরা ভাড়াটিয়া কিলার, সন্ত্রাসী, চাঁদাবাজ ও অপহরণকারী হিসেবে পুরো সোনারগাঁয়ে পরিচিত। তাদের নির্যাতনের ভয়ে সাধারণ মানুষ থানায় অভিযোগ করারও সাহস পায় না। তাই উপজেলাবাসী জেলা পুলিশ সুপার হারুন অর রশীদের কাছে এ ব্যাপারে কঠোর পদক্ষেপ নেওয়ার দাবি জানিয়েছেন।

সোনারগাঁ থানার এসআই আবুল কালাম আজাদ জানান, শীর্ষ সন্ত্রাসী ও মাদক ব্যবসায়ী গিট্টু হৃদয় ওরফে পিচ্চি হৃদয়ের বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় খুন, ডাকাতি, ছিনতাই ও মাদক ব্যবসা সহ ১১টি মামলা রয়েছে। এছাড়া সন্ত্রাসী আমিরের বিরুদ্ধেও বিভিন্ন থানায় খুন, ডাকাতি, ছিনতাই ও মাদক ব্যবসা সহ ১২টির মত মামলা রয়েছে।

সব খবর
নগরের বাইরে বিভাগের সর্বশেষ