বুধবার ২৪ জুলাই, ২০১৯

সন্তানরা তাড়িয়ে দিলে ওসির হস্তক্ষেপে থাকার জায়গা পেলো বৃদ্ধা মা

মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০১৯, ২১:৪৪

প্রেস নারায়ণগঞ্জ.কম

প্রেস নারায়ণগঞ্জ: সন্তানরা বাড়ি থেকে বের করে দিলে থানার ওসির হস্তক্ষেপে মাথা গোজার ঠাই হয়েছে আড়াইহাজারের ৭৫ বছর বয়সী বৃদ্ধা খোদেজা বেগমের। ওসি দুই ছেলেকে আটক করে স্থায়ীভাবে বসবাসের জন্য মায়ের নামে দুই শতাংশ জমি লিখে দেওয়ার ব্যবস্থা করেন। ভবিষ্যতে মায়ের সাথে কোন প্রকারের খারাপ ব্যবহার না করার ব্যাপারে হুশিয়ার করে দেন।

আড়াইহাজারের স্থানীয় বিশ্বনন্দী ইউপির চৈতনকান্দা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। খোদেজা বেগম, ওই এলাকার মৃত মিল্লাত আলীর স্ত্রী।

খোদেজা বেগম জানান, ১৯৭১ সালে তার স্বামী বিল্লাত আলী দুই ছেলে ও এক মেয়ে রেখে মারা যান। পরে পৈত্রিক সূত্রে সন্তানেরা জমির মালিক হন। এক পর্যায়ে বৃদ্ধাও তার বাবার বাড়ির জমিসহ নিজের স্বামীর কাছ থেকে প্রাপ্য ২০ শতাংশ জমি চার বছর আগে সন্তানদের নামে লিখে দিয়ে ছিলেন। এখন ভাত কাপড় তো দূরের কথা। সন্তানদের কাছে মাথা গোজার ঠাঁইটুকুও পাননি তিনি। এমনকি ছেলেদের স্ত্রীরাও তাকে বিভিন্ন সময় মারধর করতো বলে অভিযোগ তার। ১৫ দিন আগে ছেলেরা তাকে রাতের আঁধারে রাস্তায় ফেলে যায়। তার থাকার ঘরেও তারা তালা ঝুলিয়ে দেয়। চৈতনকান্দা এলাকায় একটি রাস্তায় সে পড়ে ছিল।

আড়াইহাজার থানার ওসি নজরুল ইসলাম খবর পেয়ে বৃদ্ধাকে উদ্ধার করে তার দুই ছেলেকে আটক করেন। পরে তাদের কাছ থেকে বৃদ্ধার নামে ২ শতাংশ জমি লিখিয়ে নেন। এতে তার মাথা গোজার ঠাঁই হয়েছে।

ওই বৃদ্ধা বলেন, ‘আমি ওসি সাহেবের জন্য আল্লাহর কাছে দোয়া করবো। তিনি যেন এভাবেই মানুষের সেবা করে যেতে পারেন। তার কারণে আমি থাকার একটু জায়গা পাইলাম।’

ওসি নজরুল ইসলাম বলেন, ‘আমি একজন অসহায় মায়ের পাশে দাঁড়াতে পেরে নিজেকে ধন্য মনে করছি। আমি বৃদ্ধার থাকার একটু ব্যবস্থা করে দিতে পেরেছি।’

সব খবর
নগরের বাইরে বিভাগের সর্বশেষ