বৃহস্পতিবার ০৪ জুন, ২০২০

শিক্ষা ক্ষেত্রে অবাধ বাণিজ্য, খর্বিত শিক্ষার অধিকার: ছাত্র ফ্রন্ট

শনিবার, ১৮ জানুয়ারি ২০২০, ২১:২৭

প্রেস নারায়ণগঞ্জ.কম

প্রেস নারায়ণগঞ্জ: সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের ৩৬তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে নারায়ণগঞ্জ জেলা শাখার উদ্যোগে নারায়ণগঞ্জে শহরে ছাত্র সমাবেশ ও র‌্যালী অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শনিবার (১৮ জানুয়ারি) সকাল সাড়ে ১১টায় চাষাঢ়া শহীদ মিনারে এ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। এসময় তারা নারায়ণগঞ্জে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা, সন্ত্রাস দখলদারিত্বমুক্ত শিক্ষাঙ্গন, শিক্ষার বাণিজ্যিকীকরণ সাম্প্রদায়িকীকরণ বন্ধের দাবি জানান।

সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট নারায়ণগঞ্জ জেলার সভাপতি সুলতানা আক্তারের সভাপতিত্বে ছাত্র সমাবেশে বক্তব্য রাখেন সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি ও প্রগতিশীল ছাত্র জোটের কেন্দ্রীয় সমন্বয়ক আল কাদেরী জয়, নারায়ণগঞ্জ জেলার সাধারণ সম্পাদক বেলাল হোসাইন, সহ-সভাপতি জেসমিন আক্তার, অর্থ সম্পাদক মুন্নি সরদার, সরকারি মহিলা কলেজ শাখার সংগঠক নাছিমা আক্তার, নারায়ণগঞ্জ কলেজের আহ্বায়ক রায়হান শরীফ, ফতুল্লার সংগঠক ফয়সাল আহম্মেদ রাতুল।

আল কাদেরী জয় বলেন, ‘১৯৮৪ সালের ২১ জানুয়ারি সামরিক স্বৈরাচার বিরোধী আন্দোলনের অগ্নিগর্ভ থেকে প্রতিষ্ঠিত হয় সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট। জন্মলগ্ন থেকে বিজ্ঞানভিত্তিক, সেক্যুলার, বৈষম্যহীন ও একই পদ্ধতির গণতান্ত্রিক শিক্ষাব্যবস্থা প্রতিষ্ঠার জন্য সংগ্রাম করে আসছে এ সংগঠন। মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম মূল আকাঙ্খার এই শিক্ষাব্যবস্থা স্বাধীনতার ৫০ বছর হতে চলল আজো তা পায়নি দেশবাসী।’

তিনি আরো বলেন, ‘শাসকরা শিক্ষাকে ক্রমাগত মুষ্ঠিমেয়র মুনাফার পণ্যে পরিণত করে চলেছে। স্কুল থেকে বিশ^বিদ্যালয় পর্যন্ত সব ধরণের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান আজ পরিচালিত হচ্ছে প্রধানত বাণিজ্যিক ধারায়। প্রতি বছর প্রথম শ্রেনীতে ভর্তি হওয়া ৪৫ লাখ শিশুর মধ্যে অর্ধেকই পঞ্চম শ্রেণিতে উঠতে না উঠতেই ঝরে পড়ে। অন্যদিকে গাইড বই, কোচিং বানিজ্য, ভর্তিতে ডোনেশন প্রথায় জিম্মি অভিভাবকরা। ২০ হাজার ৪৬৫ টি স্কুলের মধ্যে সরকারি মাত্র ৬৬৫ টি। মোট শিক্ষার্থীর মাত্র ৬.৩% সরকারি স্কুলে পড়ার সুযোগ পায়। সারাদেশে সরকারি কলেজ মাত্র ৫৯৮ টি। এসএসসি পাশ করে বেশিরভাগ শিক্ষার্থী মানসম্পন্ন কলেজে ভর্তিও সুযোগ পায় না।’

তিনি বলেন, ‘সরকার দলীয় ছাত্র সংগঠন সারাদেশে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সন্ত্রাস দখলদারিত্ব চালাচ্ছে। কোথাও শিক্ষাঙ্গনে গণতান্ত্রিক পরিবেশ নেই, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাড়া কোথাও ছাত্র সংসদ নির্বাচন নেই। সারাদেশের মত নারায়ণগঞ্জের প্রধান শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো এর ব্যাতিক্রম নয়। গণতন্ত্রের স্বার্থে সকল কলেজ, বিশ^বিদ্যালয় সন্ত্রাস দখলদারিত্ব মুক্ত করা এবং নির্বাচনের মাধ্যমে ছাত্র সংসদ প্রতিষ্ঠা ও কার্যকর করতে হবে।’

অন্যান্যরা বলেন, ‘নারায়ণগঞ্জ একটি গুরুত্বপূর্ণ জেলা। এখানে প্রচুর ছাত্র-ছাত্রী উচ্চ শিক্ষায় সংকটগ্রস্থ জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্ন্তভূক্ত কলেজসমূহে পড়াশোনা করে। এগুলোতে হল, হোস্টেল নেই, পরিবহনে ব্যবস্থা নেই, পর্যাপ্ত শিক্ষক, ক্লাসরুম নেই। অবিলম্বে নারায়ণগঞ্জে একটি স্বায়ত্বশাসিত পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা করতে হবে।’

সব খবর
নগর বিভাগের সর্বশেষ