শনিবার ২৪ আগস্ট, ২০১৯

শামীম ওসমানকে ছাত্রজীবনে হিরো হিসেবে জানতাম: এসপি হারুন

শনিবার, ২৭ এপ্রিল ২০১৯, ১৮:২২

প্রেস নারায়ণগঞ্জ.কম

প্রেস নারায়ণগঞ্জ: নারায়ণগঞ্জ-৪ (ফতুল্লা-সিদ্ধিরগঞ্জ) আসনের সাংসদ একেএম শামীম ওসমানকে ছাত্রজীবনে হিরো হিসেবে জানতেন বলে জানিয়েছেন জেলা পুলিশ সুপার হারুন অর রশীদ।

শনিবার (২৭ এপ্রিল) বিকেলে চাষাড়ায় অবস্থিত রাইফেলস ক্লাবে এক অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সাংসদ শামীম ওসমান ও এসপি হারুন অর রশীদ। এ সময় বিশেষ অতিথির বক্তব্যে শামীম ওসমানকে নিয়ে এই মন্তব্য করেন এসপি হারুন।

বক্তব্যের শুরুতেই তিনি বলেন, আজকের অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত আছেন এই এলাকার কৃতি সন্তান, সম্মানিত সাংসদ, আমার অত্যন্ত প্রিয় নেতা একেএম শামীম ওসমান। আমরা ছাত্রজীবনে যখন পড়তাম তখন যাকে হিরো হিসেবে জানতাম সেই ছাত্রনেতা আজকের অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি। 

তিনি আরও বলেন, বঙ্গবন্ধু একটি ভালোবাসার নাম, ইতিহাসের নাম৷ বঙ্গবন্ধু সম্পর্কে আপনাদের তরুণ প্রজন্মদের জানতে হবে৷ শিশু বয়স থেকে তিনি সাধারণ মানুষের কথা ভাবতেন৷ বঙ্গবন্ধুর নাম সকলের হৃদয়ের মধ্যে থাকবে৷

এসপি হারুন অর রশীদ বলেন, নারায়ণগঞ্জ শিল্প সমৃব্ধ একটি শহর। কোন চাঁদাবাজকে এই শহরের শিল্প নষ্ট করতে দেয়া যাবে না। মাদক ব্যবসায়ী, সন্ত্রাসীদের তথ্য দিয়ে আপনারা পুলিশকে সহযোগিতা করবেন। বিভিন্ন পাড়া মহল্লায় খোঁজ নিতে হবে, মসজিদগুলোতে খবর নিতে হবে। কারা সাম্প্রদায়িকতার বিষবাষ্প তুলে আমাদের দেশের উন্নয়নের অগ্রযাত্রাকে ব্যাহত করতে চায়, কারা বিদেশীদের বিনিয়োগ বন্ধ করতে চায় সেগুলো খেয়াল রাখতে হবে।

তিনি আরও বলেন, আপনাদের এমপি মহোদয় একটু পরে একটি কথা বলবেন। উনি আমাকে মাঝে মাঝে ম্যাসেজ করে পাঠান, সেই কথাটি বলবেন।  সেটি হচ্ছে একাত্তরের পরাজিত শক্তিরা একাত্তরকে ভুলে যেতে পারে নাই। ভুলে যেতে পারে নাই বলেই বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করে শাহ আজিজকে প্রধানমন্ত্রী, গোলাম আজমকে নাগরিকত্ব দিয়ে তারা আবার স্বাধীনতা বিরোধী চক্রান্তকারীদের গাড়িতে পতাকা দিয়ে এদেশের স্বাধীনতাকে ভুলন্ঠিত করতে চেয়েছিলো। তারা ভেবেছিলো, স্বাধীনতার পক্ষের শক্তি আর কথা বলার সুযোগ পাবেনা। আজকে জাতির জনকের কন্যার নেতৃত্বে স্বাধীনতা বিরোধীদের বিচার শেষ হয়েছে, ওই গোলাম আজমদের বিচার হয়েছে, জামাত শিবিরের বিচার শুরু হয়েছে আবার নতুন কায়দায় চক্রান্ত শুরু হয়েছে।

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৯৯তম জন্মদিবস উপলক্ষে রাইফেলস্ ক্লাবের আয়োজনে সংগীত, আবৃত্তি ও চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতার ‘বঙ্গবন্ধু স্বর্ণপদক’ পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়৷ এ সময় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সাংসদ একেএম শামীম ওসমান৷ জেলা প্রশাসক রাব্বি মিয়ার সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, নারায়ণগঞ্জ-৩ আসনের সাংসদ লিয়াকত হোসেন খোকা, জেলা পুলিশ সুপার হারুন অর রশীদ, বানিজ্য মন্ত্রণালয়ের উপ সচিব ফারহানা আক্তার, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মনিরুল ইসলাম, সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার নাহিদা বারিক, রাইফেলস্ ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক খালেদ হায়দার খান কাজল, ক্রীড়া সংগঠক কুতুবউদ্দিন আকসির প্রমুখ৷

সব খবর
রাজনীতি বিভাগের সর্বশেষ