সোমবার ২২ জুলাই, ২০১৯

শামীম ওসমানকে খুঁজছেন হকাররা

শুক্রবার, ৫ জুলাই ২০১৯, ২০:৫৮

প্রেস নারায়ণগঞ্জ.কম

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

প্রেস নারায়ণগঞ্জ: জেলা পুলিশ সুপার হারুন অর রশীদের এ্যাকশনে শহরের বঙ্গবন্ধু সড়কের ফুটপাত হকারমুক্ত। এর আগে একাধিকবার হকারদের উচ্ছেদ করা হলেও বিভিন্ন কৌশলে আবারো ফুটপাত দখলে নিয়েছে হকাররা। কিন্তু এবার পুলিশের তৎপরতায় সুবিধা করতে পারেনি তারা। গত ২০ দিন যাবৎ শহরের ফুটপাত রয়েছে হকারমুক্ত। তবে হাল ছেড়ে দিতে নারাজ হকাররা। তাই তারা খুঁজছেন নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সাংসদ একেএম শামীম ওসমানকে।

গত বৃহস্পতিবার (৪ জুলাই) বিকেলে নারায়ণগঞ্জ জেলা হকার্স লীগের সভাপতি আব্দুর রহিম মুন্সির নেতৃত্বে সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ পলাশ, হকার সংগ্রাম পরিষদের সভাপতি মো. আসাদুজ্জামান, সাবেক সাধারণ সম্পাদক মো. দুলাল হোসেন, সাবেক সভাপতি মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেন, সালাউদ্দিন, রনি, মোহাম্মদ জাহিদ, মোহাম্মদ আলী হোসেনসহ শতাধিক হকার শহীদ মিনারে জমায়েত হন। পরে রহিম মুন্সির নেতৃতে ফুটপাতে বসার ব্যাপারে সাংসদ শামীম ওসমানের সাথে আলাপ করত্বে চাষাঢ়ার রাইফেলস ক্লাবে যান। ওই সময় শামীম ওসমান ক্লাবে না থাকাতে তার সাথে দেখা করতে পারেননি বলে জানান হকাররা।

হকাররা বলেন, গত কয়েকদিন আমরা বসতে পারছি না। এ বিষয়ে এমপি সাহেবের সাথে কথা বলতে আমরা গিয়েছিলাম। কিন্তু তিনি না থাকাতে দেখা হয়নি। তবে আমরা তার কাছে আবারো যাবো। এর আগেও তিনি গরীবদের পক্ষে কথা বলেছেন। আবারো আমরা তাকে পাশে পাবো বলেই আশা করি।

বছরের শুরুতেই শহরের চাষাঢ়ায় কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে জেলা পুলিশ সুপার হারুন অর রশীদ নগরবাসীর চলাচলের সুবিধার্থে বঙ্গবন্ধু সড়কের ফুটপাত হকারমুক্ত করার ঘোষণা দেন। ঘোষণার পরপরই শহরের প্রাণকেন্দ্র চাষাড়া থেকে হকারদের উচ্ছেদ করেন। কিন্তু তারপরও হকাররা বঙ্গবন্ধু সড়কের বিভিন্ন স্থানে বসতে থাকে। সর্বশেষ গত ১৫ জুন এসপি হারুন অর রশীদের নেতৃত্বে চাষাঢ়া থেকে নিতাইগঞ্জ পর্যন্ত বঙ্গবন্ধু সড়কের দুই পাশের ফুটপাত থেকে হকারদের উচ্ছেদ করেন। হকার যাতে বসতে না পারে সেজন্য সড়কের বিভিন্ন পয়েন্টে সার্বক্ষনিক পুলিশী পাহারা বসান তিনি। এদিকে হকার উচ্ছেদ করায় নারায়ণগঞ্জবাসী সাধুবাদ জানান এসপিকে।

এর আগে ২০১৭ সালে নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী যখন তৎকালীন পুলিশ সুপার মঈনুল হকের সহযোগিতায় হকারদের উচ্ছেদ করেন তখন হকারদের পাশে এগিয়ে আসেন শামীম ওসমান। তিনি হকার উচ্ছেদের বিরোধীতা করেন। এক সমাবেশে তিনি সরাসরি হকারদের ফুটপাতে বসার নির্দেশ দেন। পরবর্তীতে সংঘর্ষ-সংঘাতের মতো নানা ঘটনা ঘটলেও শেষ পর্যন্ত জয়ী হন হকাররাই। ফুটপাত ফের দখলে চলে যায় হকারদের। তাই এবারও এসপির উদ্যোগে হকার উচ্ছেদ করা হলে সেই শামীম ওসমানকেই পাশে চাইছেন হকাররা।

সব খবর
রাজনীতি বিভাগের সর্বশেষ