মঙ্গলবার ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৯

শামীম ওসমানকে আসামির কাঠগড়ায় দাঁড়াতে হবে: মাসুম

রবিবার, ৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ২১:৫৮

প্রেস নারায়ণগঞ্জ.কম

প্রেস নারায়ণগঞ্জ: নারায়ণগঞ্জ প্রেস ক্লাবের সভাপতি এড. মাহবুবুর রহমান মাসুম বলেছেন, ‘ত্বকী হত্যাসহ নারায়ণগঞ্জে যেসব হত্যাকান্ড হয়েছে তার বিচার আমরা চাই। আমরা জানি, এই সব হত্যাকান্ডের আসামি হিসেবে আসামির কাঠগড়ায় দাঁড়াতে হবে নারায়ণগঞ্জের কুখ্যাত শামীম ওসমানকে। তার নির্দেশে ত্বকী হত্যা হয়েছে। আজ আজমেরী ওসমানকে গ্রেপ্তার করা হলে, ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি নেয়া হলে এটা স্পষ্ট প্রমাণ হতো শামীম ওসমানই ত্বকী হত্যার মূলে।’

রবিবার (৮ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় নগরীর আলী আহাম্মদ চুনকা পাঠাগার ও মিলনায়তনে নারায়ণগঞ্জ সাংস্কৃতিক জোটের আয়োজনে ত্বকী হত্যার বিচারের দাবিতে মোমবাতি প্রজ্জলন কর্মসূচিতে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, ‘রাজাকারদের পৃষ্ঠপোষকতা করেন। আর অন্যকে রাজাকারের তকমা দেন। ওই শাহ্ নিজাম আপনি বলেছেন, রাজাকারদের বিরুদ্ধে কথা বলি বলেই এত কথা শুনতে হয়। আমি একটা কথাই বলতে চাই ত্বকী হত্যার বিচার হবে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ত্বকী হত্যার বিচারের আদেশ দেন।’

শামীম ওসমানের জনসভার সমালোচনা করে এড. মাসুম বলেন, ‘গতকাল একটি সভা হয়েছে। সেই সভার ওরা বলেছে সেখানে লাখো লোক হয়েছে। তারা নিজেদের গুণগান গেয়েছেন, ওসমান পরিবারের গুণগান গেয়েছেন। কিন্তু একটা কথা ভুলে গেছেন। পায়ের তলায় মাটি নেই শামীম ওসমানের। তাই তিনি লোক ডেকে, বিরিয়ানি খাইয়ে, টাকা দিয়ে লোকজন একত্রিত করে হুমকি ধমকি দিচ্ছেন। চতুর্দিকে হুমকি দিচ্ছেন, কার সাথে বিএনপির সম্পর্ক। এসব করে পাড় পাবেন না। ত্বকীকে হত্যা করেছেন আপনাকে ওই আদালতের কাঠগড়ায় দাঁড়াতেই হবে।’

নারায়ণগঞ্জ সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি ভবানী শংকর রায়ের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক শাহীন মাহমুদের সঞ্চালনায় মোমবাতি প্রজ্জলন কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন সন্ত্রাস নির্মূল ত্বকী মঞ্চের আহ্বায়ক ও নিহত ত্বকীর পিতা রফিউর রাব্বি, নাগরিক কমিটির সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহমান, খেলাঘর আসরের সভাপতি রথীন চক্রবর্তী, জেলা সিপিবির সভাপতি হাফিজুল ইসলাম, ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক হিমাংশু সাহা, ন্যাপের সাধারণ সম্পাদক এড. আওলাদ হোসেন, গণসংহতি আন্দোলনের জেলা সমন্বয়কারী তরিকুল সুজন, সমমনার সভাপতি দুলাল সাহা, গার্মেন্ট শ্রমিক ফ্রন্টের সভাপতি বিপ্লব, সাংস্কৃতিক জোটের সাবেক সভাপতি জাহিদুল হক দিপু প্রমুখ।

সব খবর
নগর বিভাগের সর্বশেষ