বৃহস্পতিবার ১২ ডিসেম্বর, ২০১৯

শহরের দুই পয়েন্টে ফুটওভার ব্রিজ নির্মাণ প্রসঙ্গে নীরব আইভী

রবিবার, ১৪ জুলাই ২০১৯, ২০:০২

প্রেস নারায়ণগঞ্জ.কম

প্রেস নারায়ণগঞ্জ: শহরের চাষাড়া ও দুই নম্বর রেল গেইটে ফুটওভার ব্রিজ নারায়ণগঞ্জবাসীর প্রাণের দাবি। এই দাবিটিকে কেন্দ্র করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নগরবাসীর মধ্যে ব্যাপক সচেতনতা দেখা যায়। বিভিন্ন সময় একাধিক সংগঠন থেকেও স্থান দুটিতে ফুটওভার ব্রিজ তৈরির দাবি জানানো হয়েছে। তারই ধারাবাহিকতায় বিষয়টি উঠে আসে নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন আয়োজিত ‘জনতার মুখোমুখি সিটি কর্পোরেশন’ অনুষ্ঠানে। অনুষ্ঠানে রাজীব হাসান রওনক নামে এক যুবক মেয়রের কাছে উক্ত দুই স্থানে ফুটওভার ব্রিজের প্রয়োজনীয়তা তুলে ধরে নির্মাণের দাবি করেন। তবে এ সময় প্রসঙ্গটি এড়িয়ে যান মেয়র ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী।

প্রায় ৩০ লাখ মানুষের বসবাস করে এই নারায়ণগঞ্জ শহরে। জনবহুল এই শহরটি দিয়ে প্রতিদিন যাতায়াত করে লাখো মানুষ। জনসংখ্যার সঙ্গে তাল মিলিয়ে শহরে বেড়েছে যানবাহনের সংখ্যাও। তাই ব্যস্ততম এই শহরের সড়কগুলো পারাপার হয়ে উঠেছে বেশ ঝূকিপূর্ণ। বড় কোন দূর্ঘটনা না ঘটলেও ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন পথচারীরা। ছোট-খাটো দূর্ঘটনা হরহামেশাই ঘটছে। এমন পরিস্থিতিতে দীর্ঘদিন যাবৎ বিভিন্ন জনপ্রতিনিধির কাছে নগরীর চাষাড়া চত্ত্বরে ও দুই নম্বর রেল গেইটে ফুটওভার ব্রিজ নির্মাণের দাবি জানিয়ে আসছে নারায়ণগঞ্জবাসী। সর্বশেষ নিরাপদ সড়কের আন্দোলনের সময়ও শিক্ষার্থীরা এই দুই স্থানে ফুটওভার ব্রিজ নির্মাণের জোড়ালো দাবি জানান।

অনুরূপভাবে রোববার (১৪ জুলাই) সকালে সিটি কর্পোরেশনের নগর ভবনে বাজেট ঘোষণা শেষে ‘জনতার মুখোমুখি সিটি কর্পোরেশন’ অনুষ্ঠানে নাসিক মেয়র ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভীর কাছে ফুটওভার ব্রিজের দাবি জানান নগরবাসী। তবে এ বিষয়ে কোনো আগ্রহ প্রকাশ না করে এ প্রসঙ্গ এড়িয়ে যান মেয়র।

অনুষ্ঠানে প্রশ্ন গ্রহণ শেষে সকল প্রশ্নের উত্তর দেন নাসিক মেয়র। কিন্তু ফুটওভার ব্রিজ সম্পর্কে কোনো বাক্য ব্যয় করেননি তিনি। এ সময় গণমাধ্যমকর্মীদের পক্ষ থেকে কয়েকবার এই প্রসঙ্গটি তুলে ধরা হলেও বিষয়টি এড়িয়ে যান নাসিক মেয়র আইভী।

প্রসঙ্গত, রোববার নাসিকের ২০১৯-২০ অর্থবছরের বাজেট ঘোষণা অনুষ্ঠানটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে সরাসরি সম্প্রচার করে প্রেস নারায়ণগঞ্জ। এ সময় শহরের চাষাড়া ও দুই নম্বর রেল গেইটে ফুটওভার ব্রিজ নির্মাণের দাবি করে কমেন্ট করেন অনেকেই।

সব খবর
নগর বিভাগের সর্বশেষ