সোমবার ২১ সেপ্টেম্বর, ২০২০

রেড জোনে রূপগঞ্জ ইউপি, করোনা রোগী শূণ্য আলীরটেক

বুধবার, ১০ জুন ২০২০, ১৯:৩৮

প্রেস নারায়ণগঞ্জ.কম

প্রেস নারায়ণগঞ্জ: নারায়ণগঞ্জে ‘রেড জোন’ চিহ্নিত করা তিন এলাকার লকডাউন তুলে নিয়েছে জেলা প্রশাসন। এদিকে ঝুঁকিপূর্ণ উল্লেখ করে রূপগঞ্জ ইউনিয়নকে ‘রেড জোন’ ও সংক্রমনহীন সদর উপজেলার আলীরটেক ইউনিয়নকে ‘গ্রীন জোন’ হিসেবে চিহ্নিত করেছে জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ। পরিস্থিতি মোকাবেলায় শীঘ্রই রূপগঞ্জ ইউনিয়নটিকে লকডাউনের আওতায় আনা হবে।

বুধবার (১০ জুন) বিকেলে প্রেস নারায়ণগঞ্জকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন জেলা করোনা ফোকাল পারসন সদর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. জাহিদুল ইসলাম।

জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ জানায়, কয়েকটি নির্ণায়কের উপরে ভিত্তি করে এলাকাগুলোকে জোনিং করা হবে। ঘনবসতি অনুযায়ী লাখে ১০ জন কিংবা হাজারে তিনজন আক্রান্ত রোগী হিসেবে ঝুঁকিপূর্ণ চিহ্নিত করা হবে। অধিক ঝুঁকিপূর্ণ এলাকাকে রেড জোন এবং পর্যায়ক্রমে ইয়োলো এবং গ্রীন জোনে ভাগ করা হবে। প্রাথমিকভাবে একটি এলাকা রেড ও একটি গ্রীন চিহ্নিত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এ বিষয়ে জেলা করোনা ফোকাল পারসন ডা. জাহিদুল ইসলাম বলেন, গত মঙ্গলবার সেন্ট্রাল জোনিং কমিটির সঙ্গে মিটিং হয়েছে। মিটিংয়ে জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার, সদর ইউএনও সংযুক্ত ছিলেন। মিটিংয়ের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী জেলায় জোন নির্ধারণ ও পরামর্শ দেবে জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ। আমরা রূপগঞ্জ ইউনিয়নকে ‘রেড জোন’ এবং আলীরটেককে ‘গ্রীন জোন’ হিসেবে চিহ্নিত করেছি। সংক্রমন রোধে রূপগঞ্জ ইউনিয়ন শীঘ্রই লকডাউন করা হবে। এছাড়া আলীরটেক ইউনিয়নটিকে করোনামুক্ত রাখার ব্যাপারে কাজ করবে জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ ও স্থানীয় প্রশাসন।

তিনি জানান, রূপগঞ্জ ইউনিয়নে এখন পর্যন্ত ৭৪ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়েছে। তাদের মধ্যে ৩৫ জন সুস্থ এবং একজনের মৃত্যু হয়েছে। তবে আলীরটেক ইউনিয়নে এখন পর্যন্ত কোন রোগী শনাক্ত হয়নি।

সব খবর
নগর বিভাগের সর্বশেষ