বুধবার ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২০

রূপগঞ্জে ছাত্রী গণর্ধষণের ঘটনায় ছাত্রলীগ নেতা গ্রেফতার

রবিবার, ১২ জানুয়ারি ২০২০, ২০:০১

প্রেস নারায়ণগঞ্জ.কম

প্রেস নারায়ণগঞ্জ: নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে নবম শ্রেনীর এক শিক্ষার্থীকে দুইদিন আটকে রেখে গণধর্ষণের ঘটনায় তারাবো পৌর ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি আবু সুফিয়ান সোহানকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। সে রূপসী প্রধান বাড়ি এলাকার আবুল কালামের ছেলে।

রোববার (১২ জানুয়ারি) তাকে গ্রেফতার করা হয়। ধর্ষণের ঘটনায় পুলিশ শনিবার রাতে উপজেলার গর্ন্ধবপুর এলাকার বাদল মিয়ার ছেলে তৌসিফ, কর্ণগোপ এলাকার মৃত আব্দুল হামিদের ছেলে আফজালকে গ্রেফতার করে। এই নিয়ে গ্রেফতারের সংখ্যা তিন।

এর আগে নির্যাতনের শিকার শিক্ষার্থীর বাবা বাদি হয়ে ৪ জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত আরো ২/৩ জনকে আসামী করে রূপগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করে রূপগঞ্জ থানার ইন্সপেক্টর (অপারেশন) রফিকুল হক জানান, এই ধর্ষণের ঘটনায় মামলা হয়েছে। মামলা দায়ের হওয়ার পর শনিবার রাতে আসামী তৌসিফ ও আফজালকে গ্রেফতার করা হয়। পরে তাদের স্বীকারোক্তিমতে রবিবার বেলা এগারোটার দিকে মামলার প্রধান আসামী তারাবো পৌরসভা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি আবু সুফিয়ান সোহানকে পুলিশ গ্রেফতার করে। তিনি জানান, অন্যান্য আসামীদেরও গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

মামলার বাদি এজাহারে উল্লেখ করেন, তার মেয়ে গন্ধর্বপুর বহুমূখী উচ্চ বিদ্যালয়ের ৯ম শ্রেনীর একজন শিক্ষার্থী। গত কয়েকদিন আগে একই এলাকার বাদল মিয়ার ছেলে তৌসিফ তার মেয়ের কাছ থেকে ৫শ’ টাকা ধার নেয়। বৃহস্পতিবার দুপুরে গন্ধর্বপুর বাসস্ট্যান্ডে তার মেয়ে ধারের টাকা ফেরত আনতে যায়। পরে টাকা ফেরত নিয়ে বাড়ি ফেরার পথে তৌসিফ, আফজাল, তারাবো পৌর ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি আবু সুফিয়ান সোহান ও তানভীরসহ অজ্ঞাত ২/৩ জন তাকে জোরপূর্বক মাইক্রোবাসে তুলে নিয়ে যায়। পরে রূপসী এলাকার একটি বাড়িতে ও কর্নগোপ এলাকার একটি বাড়িতে তারা দুইদিন আটকে রেখে পালাক্রমে ধর্ষণ করে। টানা দুইদিন ধর্ষণের পর শুক্রবার রাত সাড়ে তিনটার দিকে সিদ্ধিরগঞ্জ থানার মৌচাক এলাকায় ধর্ষিতাকে ফেলে রেখে ধর্ষণকারীরা পালিয়ে যায়। পরে তার পরিবারের লোকজন তাকে মৌচাক এলাকা থেকে উদ্ধার করে।

সব খবর
নগরের বাইরে বিভাগের সর্বশেষ