শুক্রবার ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০২১

যতক্ষণ বেঁচে থাকবো অন্যায়ের বিরুদ্ধে থাকবো: আইভী

মঙ্গলবার, ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৪:২৩

প্রেস নারায়ণগঞ্জ.কম

প্রেস নারায়ণগঞ্জ: নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন মেয়র ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী বলেছেন, ‘শেখ হাসিনা আমার নেত্রী। অথচ আমাকে আপনারা জামাত-বিএনপি বানাইতে চান। আমার আপত্তি নাই, বানান। এই শহরের মানুষ জানে আমি কী। এই শহরের মানুষের কল্যাণের জন্য আমি কাজ করি। বিভিন্ন সময় বিভিন্ন রঙ পাল্টাই না। রঙ পাল্টানো আমার স্বভাব না। আমি কালো মানুষ, কালোই আছি। আমি আমার নীতি-আদর্শের বাইরে যাবো না। আমি নারায়ণগঞ্জবাসীর পাশে থাকবো, সন্ত্রাসের বিপক্ষে থাকবো সবসময়। যতক্ষণ বেঁচে থাকবো ততক্ষণ অন্যায়ের বিরুদ্ধে থাকবো।’

সোমবার (১৩ সেপ্টেম্বর) বাজেট অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন। বেলা ১১টায় নগরীর আলী আহাম্মদ চুনকা নগর পাঠাগার মিলনায়তনে ২০২১-২২ অর্থবছরের বাজেট ঘোষণা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

আইভী বলেন, ‘আমার দলের লোকজনই প্রতিহিংসাপরায়ন হয়ে অনেক বাজে কথা বলে ফেলে। সে সমস্ত কথার উত্তর দেবার জন্য আমার নারায়ণগঞ্জবাসী আছে। কিন্তু আমি চূড়ান্ত ধৈর্যের পরীক্ষা দিচ্ছি। যারা কথা বলে তাদেরকে বলবো, এত বড় কথা বলবেন না, যেসব কথা আপনাদের ধস নামিয়ে দেবে। কেবল জনগণকে পাশে চাই।’

প্রতিপক্ষকে উদ্দেশ্য করে মেয়র বলেন, ‘নির্বাচন করতে চান, করেন। সকলেই নির্বাচন করতে পারে। যেহেতু দল করি তাই সকলেই নমিনেশন চাইতে পারি। কিন্তু বেফাঁস কথাবার্তা বলে নারায়ণগঞ্জের মাটিকে উত্তপ্ত করার চেষ্টা করবেন না। নারায়ণগঞ্জকে জঙ্গি এলাকা বানানোর চেষ্টা করবেন না। হিন্দু-মুসলমানদের মধ্যে দ্বন্দ্ব লাগানোর চেষ্টা করবেন না। কিছুদিন পর পর যে নাটকগুলো সাজান সেগুলো বন্ধ করেন। মানুষের কাতারে যান। নমিনেশন নিয়া আসেন, দিলে করবেন নির্বাচন। তখন তো আমি নিজেও দলের পক্ষে কাজ করবো। আমাকে নমিনেশন দিলে আমার পক্ষে আপনারা কাজ করবেন আর আপনাদের দিলে আমি আপনাদের পক্ষে কাজ করবো। কিন্তু নাটক সাজিয়ে মিথ্যা কথাবার্তা বলবেন না।’

তিনি আরও বলেন, ‘মাঠের কাজ আমরা করার জন্য চেষ্টা করতেছি। খাসের জায়গা পড়ে আছে, দখল হয়ে যাচ্ছে। অথচ আমরা খাসের জায়গা যখন ব্যবহার করার জন্য যাই তখন অনেকে বলে, মেয়র ভূমিদস্যু। আর আসল ভূমিদস্যুরা এই শহরের জমি বিক্রি করে দিলো, তা নিয়ে লেখালেখি হয় নাই। প্রেস ক্লাবের পিছনে জায়গার কথা বলেন না কেন? সব কথা কি মাহবুবুর রহমান মাসুম আর আইভী বলবে নাকি? আপনারা চেষ্টা করেন বলার জন্য। কী কারণে প্রেসক্লাবের পেছনের জায়গা যেটা দীর্ঘদিন নারায়ণগঞ্জ পৌরসভার আন্ডারে ছিল। আমরাও মামলা করেছি আমাদের সাথে রাজউকের মামলা চলমান। সেই মামলার উপর দিয়ে মিস্টার কাজল (নারায়ণগঞ্জ চেম্বার অব কমার্সের সভাপতি) সাহেবের নামে রাজউকের থেকে লিজ নিয়া আইসা আবার তিন মাসের মধ্যে পপুলারের কাছে ট্রান্সফার করে দেয়। এখানে ১৪-১৫ কোটি টাকার হাতবদল হয়ে গেল অথচ কেউ এক কলম লিখলেন না। ওসমানী স্টেডিয়ামের জায়গা যেটি নারায়ণগঞ্জ পৌরসভা দিয়েছিল সেটিও এওয়াজ বদল হয়ে গেছে প্রভাবশালী লোকের কাছে। কেউ তো এ ব্যাপারে কিছু লিখলেন না।’

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘হকার সমস্যা নিরসন করা পসিবল হচ্ছে না বিভিন্ন কারণে। কিছু মধ্যস্বত্বভোগীদের জন্য হকার সমস্যার সমাধান করা যাচ্ছে না। যারা বিভিন্ন সময়ে এই হকারদের ব্যবহার করে। আমি গত ২০১৬ সালের নির্বাচনের আগে দেখেছি, হঠাৎ করে সারা শহরে যানজট, বিশৃঙ্খলা। ঠিক আবারও নির্বাচনের আগে একই অবস্থা। মেয়রকে ব্যর্থ প্রমাণের চেষ্টায় এগুলো পরিকল্পিতভাবে করা হয় কিনা একটু চিন্তা করে দেখেন।’

সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) আবুল আমিনের সভাপতিত্বে বাজেট অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন নাসিকের প্যানেল মেয়র-১ আফসানা আফরোজ বিভা হাসান, নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার নাজমুল হাসান, নারায়ণগঞ্জ প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি অ্যাড. মাহবুবুর রহমান মাসুম, বর্তমান সাধারণ সম্পাদক শরীফ উদ্দিন সবুজ, নারায়ণগঞ্জ সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি আব্দুস সালাম, ফটো জার্নালিস্ট এসোসিয়েশন সভাপতি হাজী হাবিবুর রহমান শ্যামল, কাউন্সিলর কবির হোসাইন, হান্নান সরকার, আব্দুল করিম বাবু, সুলতান আহমেদ ভূঁইয়া, শারমিন হাবিব বিন্নি, আয়েশা আক্তার দিনা প্রমুখ।

সব খবর
রাজনীতি বিভাগের সর্বশেষ