শুক্রবার ২৩ আগস্ট, ২০১৯

মেয়েকে দেখ‌তে গি‌য়ে ছেলে ধরা সন্দেহে মরলো সিরাজ (ভিডিওসহ)

রবিবার, ২১ জুলাই ২০১৯, ১১:৫২

প্রেস নারায়ণগঞ্জ.কম

প্রেস নারায়ণগঞ্জ: সিদ্ধিরগঞ্জে গণপিটুনিতে নিহত যুবকের পরিচয় পাওয়া গেছে। তার নাম সিরাজ (৩৪)। সিরাজ জন্ম থেকেই বাক ও শ্রবণ প্রতিবন্ধী। সে ছেলে ধরা নয়। গিয়েছিলেন নিজের মেয়েকে দেখতে। আর এসময়ই জনতা তাকে ছেলেধরা মনে করে গণপিটুনি দেয়। বাক ও শ্রবণ প্রতিবন্ধি হওয়ায় সে কিছু জানাতে পারেনি।

এ বিষয়ে নিহত প্রতিবন্ধি যুবক সিরাজের ভাই আলম শনিবার রাতে সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় জানায়, ১০ বছর আগে সিরাজের সাথে বিয়ে হয় শামসুন্নাহারের। বিয়ের পরে তাদের মিঞ্জু নামে এক কণ্যা সন্তান জন্ম নেয়। পরে ২০১৫ সালে সিরাজ শামসুন্নাহারকে নিয়ে সিদ্ধিরগঞ্জের সাইলো এলাকার মোহন চান্দের বাড়িতে ভাড়ায় বসবাস শুরু করে। বেশ কিছুদিন তাদের সম্পর্ক ভালোই ছিলো এখানেই শামসুন্নাহারের সাথে পরিচয় হয় মান্নানের। শামসুন্নাহার একসময় মান্নানের সাথে পরকীয়া প্রেমে জড়িয়ে যায়। পরকীয়া প্রেমের টানে আট মাস আগে শামসুন্নাহার সিরাজকে তালাক দিয়ে মান্নানকে বিয়ে করে। শামসুন্নাহার এসময় সাথে ৭ বছরের কণ্যা মিঞ্জুকে নিয়ে আসেন। এরপর থেকে প্রতিবন্ধি সিরাজ নিজের মেয়ে মিঞ্জুকে দেখতে প্রায়ই সিদ্ধিরগঞ্জের পাগলা বাড়ি এলাকায় আসতো। শনিবারও নিজের মেয়েকে দেখতে আসেন সিরাজ। কিন্তু কে জানতো সৃষ্টিকর্তা তার ললাটে এইরকম নির্মম মৃত্যু লিখে রেখেছিলো।

ছেলে ধরা সন্দেহে শনিবার (২০ জুলাই) সকাল ৮টায় সিদ্ধিরগঞ্জের পাগলাবাড়ি এলাকায় গণপিটুনির শিকার হয় প্রতিবন্ধি সিরাজ। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মুমূর্ষ অবস্থায় সিরাজকে উদ্ধার করে নারায়ণগঞ্জ ৩০০ শয্যা হাসপাতালে নিয়ে যায়। এসময় হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক সিরাজকে মৃত ঘোষণা করেন। সিরাজের এই মৃত্যুতে তার ভাই আলম শামসুন্নাহার ও মান্নানকে দায়ি করছে। সে জানায় সিরাজের সাবেক স্ত্রী ও তার বর্তমান স্বামী মান্নানই তাদের ভাইকে ছেলে ধরার নাটক সাজিয়ে হত্যা করিয়েছে। আমরা তাদের কঠোর শাস্তি দাবি করছি। সিরাজ ভোলা জেলার লালমোহন থানার চরলেংগুটিয়া এলাকার আঃ রশিদের ছেলে।

এ বিষয়ে সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মীর শাহিন শাহ পারভেজের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানায়, ছেলেটি স্বাভাবিক ছিল না। সে বোবা ও বধির ছিল। যার ফলে তাকে মারধর করা হলেও বিরোধীতা করে কোন কিছু বলতে পারেনি।

সিদ্ধিরগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক সাখাওয়াত হোসেন জানান, ছেলে ধরা সন্দেহে প্রতিবন্ধি যুবক সিরাজকে গণপিটুনি দিয়ে হত্যার অভিযোগে পুলিশ বাদি হয়ে একটি অভিযোগ দিয়েছে। এবং নিহত যুবকের পরিবার থেকেও কয়েকজনের নাম উল্লেখ করেও একটি অভিযোগ দেওয়া হয়েছে। তদন্তের স্বার্থে এখনি নাম প্রকাশ করা যাবে না। আমরা বিষয়টি তদন্ত করে দেখছি।

সব খবর
নগরের বাইরে বিভাগের সর্বশেষ