মঙ্গলবার ১১ ডিসেম্বর, ২০১৮

মর্গ্যান স্কুল নির্বাচন মোশাররফ, সুনয়ন ও সুমন বিজয়ী

শুক্রবার, ৫ অক্টোবর ২০১৮, ২০:৫১

প্রেস নারায়ণগঞ্জ.কম

প্রেস নারায়ণগঞ্জ: শান্তিপূর্ণ ও উৎসবমুখর পরিবেশে শেষ হয়েছে নগরীর ঐতিহ্যবাহী মর্গ্যান স্কুল এন্ড কলেজের প্রাথমিক ও মাধ্যমিক শাখার গভর্নিং বডি নির্বাচন। প্রাথমিক শাখায় মোশারফ হোসেন জনি ১৭৪ ভোট ও মাধ্যমিক শাখায় সুনয়ন মাহমুদ সুপন ৮৮৯ ভোট এবং মো. বরাত হোসেন সুমন ৭৫৫ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন৷

শুক্রবার (৫ অক্টোবর) ভোটগ্রহন শেষে সন্ধ্যা ৭টায় এ ফলাফল ঘোষণা করা হয়৷ এর আগে স্কুলের ভেতর ভোট গ্রহণ চলে সকাল ১০টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত।

স্কুলের গভর্নিং বডির মাধ্যমিক ও প্রাথমিক শাখার অভিভাবক পদের তিনটি আসনের বিপরীতে পাঁচ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দিতা করেন। প্রাথমিক শাখার একটি অভিভাবক সদস্য পদের বিপরীতে ২জন এবং মাধ্যমিক শাখার দুইটি অভিভাবক সদস্য পদের বিপরীতে ৩জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দিতা করেন।

প্রাথমিক শাখার অভিভাবক সদস্য পদে লড়েছেন মোশারফ হোসেন জনি এবং মাসুদুর রহমান মাসুদ। প্রাথমিক শাখার ৩৩১ টি ভোটের মধ্যে ভোট সংগ্রহ হয় ২৬২টি। যার মধ্যে মোশারফ হোসেন জনি ১৭৪ টি ভোট পেয়ে বিজয়ী হন। এই পদে লড়াই করা আরেক প্রতিদ্বন্দী মাসুদুর রহমান মাসুদ ভোট পান ৮৮টি।

মাধ্যমিক শাখার অভিভাবক সদস্য পদে লড়েছেন জাকির হোসেন রতন, মোঃ বরাত হোসেন সুমন এবং সুনয়ন মাহমুদ সুপন। মাধ্যমিক শাখার ২৫১৩ টি ভোটের মধ্যে ভোট সংগ্রহ হয় ১৩৩৪ টি। যার মধ্যে ৬টি ভোট বাতিল এবং ১১৭৯ জন ভোটার অনুপস্থিত ছিলেন। ১৩৩৪ টি ভোটের মধ্যে সুনয়ন মাহমুদ সুপন ৮৮৯টি এবং মো. বরাত হোসেন সুমন ৭৫৫টি ভোট পেয়ে বিজয়ী হন। এই পদে লড়াই করা আরেক প্রতিদ্বন্দী জাকির হোসেন রতন ভোট পান ৫৭১টি।

এদিন সন্ধা ৭টায় আনুষ্ঠানিকভাবে নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণা করেন মর্গ্যান স্কুল এন্ড কলেজের প্রাথমিক ও মাধ্যমিক শাখার গভর্নিং বডি নির্বাচন’র নির্বাচন কমিশনার মো. মমিন মিয়া।

ফলাফল শেষে বিজয়ীদের অভিনন্দন জানিয়ে জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও মর্গ্যান স্কুল এন্ড কলেজের প্রাথমিক ও মাধ্যমিক শাখার গভর্নিং বডির সভাপতি আনোয়ার হোসেন বলেন, ধন্যবাদ জানাই সেইসব ভোটারদের যারা কষ্ট করে এসে ভোটকেন্দ্রে এসে ভোট দিয়েছেন। ধন্যবাদ জানাই নির্বাচন কমিশন ও প্রশাসনের ভাই-বোনদের। যাদের অক্লান্ত পরিশ্রমে আমরা একটি সুষ্ঠু ও সুন্দর নির্বাচন পেয়েছি। আগামী দিনে যাতে তারা তাদের দায়িত্ব ভালোভাবে পালন করতে পারে সেই আশাবাদ আমি ব্যক্ত করছি।

সব খবর
শিক্ষাঙ্গন বিভাগের সর্বশেষ