শুক্রবার ১৫ নভেম্বর, ২০১৯

ভোলার ইস্যুতে দেড় বছর পুরোনো শামীম ওসমানের যে ভিডিও ভাইরাল

সোমবার, ২১ অক্টোবর ২০১৯, ২১:৩৩

প্রেস নারায়ণগঞ্জ.কম

প্রেস নারায়ণগঞ্জ: সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের আলোচিত সাংসদ একেএম শামীম ওসমানের ভিডিও মানেই হিট। ফেসবুক ও ইউটিউবে জনপ্রিয় অনেক ভিডিও রয়েছে তার। এদিকে মহানবীকে (সা.) নিয়ে শামীম ওসমানের দেওয়া বক্তব্যের দেড় বছর পুরোনো একটি ভিডিও হঠাৎ করেই ভাইরাল হয়েছে। ফেসবুক ও ইউটিউবে ভাইরাল হওয়া সেই ভিডিওতে শামীম ওসমান বলেন, ‘তুমি আমার আল্লাহর রাসূলকে নিয়া যদি কোন কটুক্তি করো তাহলে আমি শামীম ওসমান এমপিগিরি ছাইড়া দিমু, গলার থেকে গর্দান নামায়ে দেবো। কোন ছাড় হবে না।’

ফেসবুক ও ইউটিউবে শামীম ওসমানের অনেক ভিডিও থাকলেও ভোলার বোরহানউদ্দিন উপজেলায় এক যুবকের ‘হ্যাকড হওয়া’ ফেসবুক আইডি থেকে মহানবীকে (সা.) নিয়ে আপত্তিকর মন্তব্যের জের ধরে পুলিশের সাথে ‘তৌহিদী জনতার’ সংঘর্ষে হতাহতের ঘটনার পর থেকে মহানবীকে (সা.) নিয়ে দেওয়া এই বক্তব্যের ভিডিওটি ব্যাপক মাত্রায় শেয়ার ও ভিউজ হচ্ছে। অনেকেই ভিডিওটি শেয়ার করে ভোলার ঘটনায় সাংসদ শামীম ওসমানের অবস্থান জানতে চান। ভোলার ঘটনায় শামীম ওসমানের প্রতিক্রিয়া ও ভূমিকা জানতে চেয়ে অনেকেই মন্তব্য করেন।

জানা যায়, গত বছরের ২৩ মার্চ (শুক্রবার) রাতে শহরের জামতলা কেন্দ্রীয় ঈদগাহ মাঠে দারুল ইসলাহ মাদরাসার হাফেজ ছাত্রদের দস্তারবন্দী উপলক্ষে বার্ষিক ওয়াজ মাহফিল অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির দেয়া বক্তব্যের ভিডিওতে শামীম ওসমান বলেন, ‘প্রথম আলো আর ডেইলী স্টার কি লেখে তাতে আমার কিছু আসে যায় না। আমি পড়িও না। আপনারা সব ঈমানদার লোক। প্রতিবাদ করেন কি, করেন না আমি জানি না। কিন্তু আমি প্রতিবাদ করছি। সংসদে দাড়িয়ে প্রতিবাদ করছি। বাংলাদেশে এতো বড় বড় আলেম আছে তারপরেও ওই পত্রিক বাংলাদেশে চলে। যারা আল্লাহ-রাসূলকে নিয়া ব্যঙ্গচিত্র আঁকে, কার্টুন আঁকে তাদের বিরুদ্ধে বাংলাদেশের এতো বড় বড় আলেম কিছু বলেন নাই। কেন বলেন না, জানি না। আমি শামীম ওসমান সবচেয়ে পাপিষ্ঠ মুসলমান হয়ে সংসদে দাড়িয়ে তাদের বিরুদ্ধে কথা বলছি। আমি শামীম ওসমান তাদের পত্রিকা পয়সা দিয়ে কিনি না। আমি তাদের সাথে আপোষ করবো না। রাজনীতি রাজনীতির জায়গায় আর আমার ধর্ম আমার জায়গায়। কোন ধর্মের উপর আঘাত করবো না, কাউকে আঘাত করতেও দেবো না। কিন্তু আমার ধর্ম মানো না, মাইনো না। তুমি আমার আল্লাহর রাসূলকে নিয়া যদি কোন কটুক্তি করো তাহলে আমি শামীম ওসমান এমপিগিরি ছাইড়া দিমু, গলার থেকে গর্দান নামায়ে দেবো। কোন ছাড় হবে না।’

এ সময় তিনি আরও বলেন, ‘আমি জানি আমারে মারার জন্য বহু মানুষ ঘোরে। ২০০১ এর ১৬ই জুন বোম ব্লাস্ট করছে। আশেপাশে কেউ নাই। আমি পাশেই দাড়ানো। দেওয়াল ছিদ্র হয়ে পাশের রুমের তিনজন মারা গেছে। কে আমারে বাচাইছে? আল্লাহ। দোয়া করবেন আমি যেন আল্লাহর পথে থাইকা মরতে পারি।

তিনি বলেন, আগে রাজনীতি করতাম নিজের জন্য, এখন করি আল্লাহর জন্য। আমরা ব্যভিচার, অনাচার কইরা দুনিয়াটা ধ্বংস করে দিচ্ছি। ইসলামের নামে একগুচ্ছ লোক দুই নম্বরী ছড়ায়ে দিতেছে। আসেন আমরা ইসলামের পথে চলি। আল্লাহর রাসূলের দেখানো পথ চলি।

সব খবর
রাজনীতি বিভাগের সর্বশেষ