মঙ্গলবার ১৯ মার্চ, ২০১৯

বেতন বৈষম্য দূরীকরণে সহকারি শিক্ষকদের মানববন্ধন

বৃহস্পতিবার, ১৪ মার্চ ২০১৯, ২৩:১৫

প্রেস নারায়ণগঞ্জ.কম

প্রেস নারায়ণগঞ্জ: সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষকদের বেতন বৈষম্য দূর করে প্রধান শিক্ষকের পরের ‘সহকারি প্রধান শিক্ষক’ গ্রেডে বেতন নির্ধারণের দাবিতে মানববন্ধন করেছেন শতাধিক শিক্ষক৷
 
বৃহস্পতিবার (১৪ মার্চ) দুপুরে নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবের সামনে জেলা প্রাথমিক সহকারী শিক্ষক ব্যানারে মানববন্ধন করেন তারা৷ পরে তারা বিক্ষোভ মিছিল করে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের দিকে যান৷ জেলা প্রশাসক বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করবেন বলেও জানান বিক্ষোভরত শিক্ষকবৃন্দ৷
 
মানববন্ধনে শিক্ষকবৃন্দ বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ১৯৭৩ সালে প্রাথমিক বিদ্যালয় জাতীয়করণ করেন। তখন প্রধান শিক্ষক এবং সহকারি শিক্ষকগণ বেতন পেতেন একই গ্রেডে। কিন্তু ১৯৭৭ সালে ১ জুলাই সহকারী শিক্ষকদের ১ ধাপ নিচে বেতন নির্ধারণ করা হয়। বর্তমানে চাকরির শুরুতে প্রধান শিক্ষক ও সহকারী শিক্ষকের মূল বেতনের ব্যবধান ২ হাজার ৩০০ টাকা। প্রধান শিক্ষকেরা ২য় শ্রেণিভুক্ত হওয়ায় ১০ম গ্রেড পাওয়া তাদের অধিকার। আমরাও চাই তাদের ১০ গ্রেড প্রদান করা হোক। তবে আমাদের যদি ১২তম গ্রেড প্রদান করা হয় তাহলে চাকরির শুরুতে বেতন ব্যবধান হবে ৪ হাজার ৭০০ টাকা। যা একেবারেই অমানবিক। আমাদের দাবি শতভাগ পদোন্নতি সহ ১১তম গ্রেডে বেতন পুনঃনির্ধারণ করা হোক।
 
এ সময় উপস্থিত ছিলেন বংশাল বালিকা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক তন্ময় পোদ্দার, চাষাড়া আদর্শ বালিকা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক নন্দীনি ঘোষ, সোনারগাঁ লগুরচর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক মো. মাসুদ, পূর্বচর গরকুল সরকারি প্রাথমি বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক খন্দকার ফারহান সহ জেলার ৫টি উপজেলার শতাধিক শিক্ষক৷
সব খবর
নগর বিভাগের সর্বশেষ