মঙ্গলবার ২৩ জুলাই, ২০১৯

বিশের অধিক ছাত্রীকে ধর্ষণের দায় স্বীকার শিক্ষক আরিফুলের

মঙ্গলবার, ২ জুলাই ২০১৯, ২১:৫৬

প্রেস নারায়ণগঞ্জ.কম

প্রেস নারায়ণগঞ্জ: সিদ্ধিরগঞ্জে বিভিন্ন কৌশল ও প্রতারণার মাধ্যমে বিশের অধিক ছাত্রীকে ধর্ষণের ঘটনায় অভিযুক্ত শিক্ষক আশরাফুল ইসলাম আরিফ আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে৷

মঙ্গলবার (২ জুলাই) বিকেলে সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আহমেদ হুমায়ূন কবীরের আদালতে অভিযুক্তের জবানবন্দি রেকর্ড করা হয়৷

কোর্ট পুলিশের পরিদর্শক হাবিবুর রহমান জবানবন্দির বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, জবানবন্দি গ্রহন শেষে আরিফকে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে। এ মামলায় প্রধান শিক্ষক রফিকুল ইসলাম জুলফিকারকেও রিমান্ড শেষে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

এর আগে শিক্ষক আরিফুল ও জুলফিকারকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য রিমান্ডে নেয় সিদ্ধিরগঞ্জ থানা পুলিশ৷

প্রসঙ্গত, ধর্ষণ ও যৌন নিপীড়নের অভিযোগে অভিযুক্ত আরিফুল ইসলাম সিদ্ধিরগঞ্জের মিজমিজি কান্দাপাড়ার বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান অক্সফোর্ড হাই স্কুলের গণিত ও ইংরেজি শিক্ষক হিসেবে গত ৮ বছর যাবৎ কর্মরত ছিলেন। এই আট বছরে বিভিন্ন কৌশল ও ব্ল্যাকমেইলিংয়ের মাধ্যমে বিশেরও অধিক ছাত্রীকে যৌন নিপীড়ন ও ধর্ষণ করেছেন বলে অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে। এসব কর্মকান্ড জানার পরও সেসব বিষয় ধামাচাপা দিয়ে তাকে সহযোগিতা করার অভিযোগ স্কুলটির প্রধান শিক্ষক রফিকুল ইসলাম জুলফিকারের বিরুদ্ধে। গত বৃহস্পতিবার (২৭ জুন) তাদের দুইজনকে গ্রেফতার করা হয়। এর আগে বিক্ষুব্দ অভিভাবক ও এলাকাবাসী তাদের গণপিটুনি দেয়। পরে শুক্রবার (২৮ জুন) বিকেলে ভুক্তভোগী এক ছাত্রীর পিতা ও র‌্যাব বাদী হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন ও পর্নোগ্রাফি আইনে সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় দুটি মামলা দায়ের করেন। মামলায় স্কুলটির প্রধান শিক্ষক রফিকুল ইসলামকে ধর্ষণ ও যৌন নিপীড়নের ঘটনায় অভিযুক্ত আরিফুল ইসলামকে সহযোগিতা ও মদদ দেওয়ার অভিযোগে আসামি করা হয়েছে।

সব খবর
নগরের বাইরে বিভাগের সর্বশেষ