বৃহস্পতিবার ১৭ অক্টোবর, ২০১৯

বাঁশির শব্দে ডাকাতি, গ্রেপ্তার ৭

সোমবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১৬:১২

প্রেস নারায়ণগঞ্জ.কম

প্রেস নারায়ণগঞ্জ: ‘বাঁশিতে একবার ফুঁ দিলে রিকশা বা অটোরিকশা, দুইবার ফুঁ দিলে প্রাইভেটকার এবং তিনবার ফুঁ দিলে বুঝতো পুলিশের গাড়ি আসছে।’ নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজার উপজেলায় রাতের অন্ধকারে এভাবেই শিকারি ধরতো ডাকাতরা।

রোববার (২২ সেপ্টেম্বর) সড়কে ডাকাতির প্রস্তুতিকালে পুলিশের হাতে ৭ ডাকাত গ্রেপ্তারের পর এমন কথা জানান তাদেরই একজন। তার নাম দেলোয়ার। সে এই চক্রের সিগন্যালদাতা হিসেবে কাজ করতো।

গ্রেপ্তার অন্যরা হলো উপজেলার নারান্দী গ্রামের আব্দুল মজিদের ছেলে বিল্লাল (৪০), আব্দুল বাছেদের ছেলে আমিনুল (১৯), আব্দুল মান্নানের ছেলে ইব্রাহীম (১৪), নয়াপাড়া গ্রামের ফারুক মেম্বারের ছেলে আহাদ আলী (৪৫), ইলমদী গ্রামের সোবহানের ছেলে সুমন (২২) ও আহাম্মদ আলীর ছেলে ইসমাইল (১৯)।

তাদের কাছ থেকে উদ্ধার করা হয়েছে ১টি রাম দা, ২টি বড় ছোড়া, ১টি ছেনা, ১টি লোহার পাইপ, ৩টি ক্রিকেটের স্ট্যাম্প, ১টি হকিস্টিক ও ১টি কাঠের বাট।

আড়াইহাজার থানার ওসি (তদন্ত) শফিকুল ইসলাম জানান, হাইজাদী ইউনিয়নের আড়াইহাজার-ইলমদী সড়কের ইলমদীর বেনজীর আহাম্মদের বাগ এলাকায় পুলিশের একাধিক টিম অভিযান চালিয়ে ৭ ডাকাতকে গ্রেপ্তার করে। এ সময় পুলিশের উপস্থিতিতে টের পেয়ে আরও ১১ ডাকাত পালিয়ে যায় বলে গ্রেপ্তার ডাকাতরা পুলিশকে জানিয়েছে।

শফিকুল ইসলাম বলেন,‘ এক মাস পূর্বে ডাকাত আহাদী দীর্ঘ ২২ বছর ডাকাতি মামলায় জেল খেটে বাড়ি এসে পুনরায় তার সহযোগীদের সংগঠিত করে। ডাকাতি কাজে অস্ত্র দিয়ে তাদের সহযোগিতা করতো ডাকাত ইব্রাহিম।’

সব খবর
নগরের বাইরে বিভাগের সর্বশেষ