সোমবার ১৬ ডিসেম্বর, ২০১৯

বন্দরে খাল দখল করে নির্মিত হচ্ছে ক্লাব

শুক্রবার, ৮ নভেম্বর ২০১৯, ২০:৪৫

প্রেস নারায়ণগঞ্জ.কম

প্রেস নারায়ণগঞ্জ: বন্দরে কলাগাছিয়ায় কল্যান্দি সেতু সংলগ্ন সরকারি খালের উপর অবৈধভাবে ক্লাব ভবন নির্মাণ করছে একটি প্রভাবশালী মহল। সামাজিক সংগঠন ‘প্রকাশ’র নামে ক্লাবটি নির্মাণ করা হচ্ছে।

শুক্রবার (৮ নভেম্বর) সকালে কল্যান্দি ব্রিজ সংলগ্ন এলাকায় সরেজমিনে দেখা যায় ক্লাব ভবনের কাঠামো নির্মাণে কাজ করছেন শ্রমিকরা।

স্থানীয় সূত্রে দেখা গেছে, বন্দরের কলাগাছিয়া ইউনিয়নের কল্যান্দি সেতু সংলগ্ন ‘প্রকাশ’ নামে একটি রেজিষ্ট্রেশনবিহীন ক্লাব বিগত ৫ বছর পূর্বে রাস্তার পাশে ওই এলাকার মোকলেছ নামে এক ব্যক্তির কাছে ২০ ফিট জায়গা বিস্তৃত বাবদ ১ লাখ ৩০ হাজার টাকায় লিজকৃত সম্পত্তি ক্রয় করেন। এরপর তারা দোচালা টিন দিয়ে ক্লাব আকারে রূপ দেয়। পরে তারা ৩১ সদস্য বিশিষ্ট একটি কমিটি করে। কমিটির সভাপতি মো. শরিফ ও সাধারণ সম্পাদক মো. অপু। বন্দরের বিভিন্ন রাজনৈতিক ব্যক্তিদের কার্ড দিয়ে ক্লাবের উদ্বোধন করা হয়।

স্থানীয়রা জানান, ওই ক্লাবটির ভিতরে ২টি ক্যারাম বোর্ড ৩০ টাকা প্রতি গেম ভাড়া দেয়া হয়। বর্তমানে কল্যান্দি টু সাবদী রাস্তাটি ৩০ ফিট প্রশস্ত করার কারণে টেন্ডার পাশ হলে ওই রাস্তার পাশে দোকানিদের রাস্তার নির্ধারিত জায়গা থেকে তাদের দোকান ও স্থাপনা সরিয়ে নেয়ার জন্য বলা হয়। এর মধ্যে ওই ক্লাবটিও পড়ে। জায়গা না থাকায় তারা পাশ দিয়ে বয়ে যাওয়া সরকারি খালের উপর ইট-সিমেন্ট দিয়ে বড় বড় আটটি পিলার করে অবৈধভাবে ক্লাব নির্মাণ করছে। যা নেহাতই আইন বর্হিভূত কান্ড। সরকারি খালের উপর স্থাপনা তৈরির কোন বিধান না থাকলেও স্থানীয় কতিপয় প্রভাবশালী মহল এ ক্লাব নির্মাণ করছে বলে অভিযোগ রয়েছে।

এ বিষয়ে প্রকাশ সামাজিক সংগঠনের সভাপতি আওয়ামী লীগ নেতা শরিফ হোসেন জানান, আমাদের প্রকাশ সংগঠনের নামে এ ক্লাবটি উদ্বোধন করেছেন আওয়ামী লীগের শীর্ষ নেতারা। পূর্বে ক্লাবটি রাস্তার পাশে ছিল। রাস্তার প্রশস্ত হওয়ার কারণে কোন জায়গা না থাকায় এ ক্লাবটি বাধ্য হয়ে খালের উপর করতে হয়েছে। তবে পিলার উচু করে দিয়েছি যাতে খালের পানি প্রবাহিত হতে সমস্যা না হয়।

এ ব্যাপারে কলাগাছিয়া ইউনিয়ণ পরিষদের চেয়ারম্যান দেলোয়ার হোসেন প্রধান জানান, কল্যান্দি সেতু সংলগ্ন প্রকাশ নামে যে ক্লাবটি এখন সরকারি খালের উপর ইট-সিমেন্ট দিয়ে নির্মিত হচ্ছে তা সম্পূর্ণ অবৈধ। একশ পার্সেন্ট অবৈধ। সরকারি হালতের সম্পত্তিতে কেউ ক্লাব কিংবা স্থাপনা তৈরি করতে পারে না। এটা জেলা প্রশাসনের আওতাধীন।

এ ব্যাপারে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) আফিফা খাতুন জানান, সরকারি খালের উপর কোন কিছুই করা যাবে না। জননেত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনা রয়েছে সরকারি খাল অবমুক্ত করতে হবে। কোন মতেই সরকারি খালের উপর কোন স্থাপনা গড়তে দেয়া যাবে না। আমি শীঘ্রই ব্যবস্থা নিব।

এ ব্যাপারে বন্দর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শুক্ল সরকার জানান, সরকারি খালের উপর অবৈধ স্থাপনা নির্মাণ সম্পূর্ণ বেআইনি। আমরা শীঘ্রই ব্যবস্থা নিব।

সব খবর
নগরের বাইরে বিভাগের সর্বশেষ