মঙ্গলবার ২৬ মে, ২০২০

বন্দরে কাউন্সিলর-পুলিশ দ্বন্দ্বে ত্রাণবঞ্চিত ৩শ’ পরিবার

রবিবার, ৩ মে ২০২০, ১৯:১৪

প্রেস নারায়ণগঞ্জ.কম

প্রেস নারায়ণগঞ্জ: নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের (নাসিক) ২৬ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও এক পুলিশ কর্মকর্তার মধ্যকার বাকবিতন্ডার কারনে ত্রাণবঞ্চিত হয়েছে প্রায় ৩শ’ পরিবার। ত্রাণের আশায় এসেও লোকজনকে খালি হাতে ফিরে যেতে হয়েছে।

রোববার (৩ মে) সকালে নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের ২৬ নম্বর ওয়ার্ডের রামনগর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, বন্দরের রামনগর এলাকায় মূল সড়কের পাশে নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের ২৬ নম্বর ওয়ার্ডের ৩শ’ পরিবারের মাঝে ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রম শুরু হয়। এ সময় বন্দর থানা পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) শহিদুল ইসলাম ও স্থানীয় কাউন্সিলর মো. সামসুজ্জোহার মধ্যে ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রমে সামাজিক দূরত্ব প্রসঙ্গ নিয়ে বাকবিতন্ডা হয়। উদ্ভূত পরিস্থিতিতে ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রম বন্ধ করে দেন কাউন্সিলর। ত্রাণ না পেয়ে কিছুক্ষন সড়ক অবরোধ করে হৈ-চৈ করলেও পরে খালি হাতে বাড়ি ফিরে যান ত্রাণের আশায় থাকা মানুষ।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে নাসিকের ২৬ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মো. সামসুজ্জোহা বলেন, তিন ফুট দূরত্ব মেনে সিটি কর্পোরেশনের দেয়া ত্রাণ কার্যক্রম পরিচালনা করলেও এসআই শহিদুল এসে তাতে বাধা দেন। সামাজিক দূরত্ব মানছি না এমন কথা বলে তিনি আমার সাথে অশোভন আচরণ করেন এবং ত্রাণ কার্যক্রম বন্ধ রাখতে বলেন।

কাউন্সিলর অভিযোগ করে বলেন, এক পর্যায়ে ওই পুলিশ কর্মকর্তা আমাকে মারতেও উদ্যত হন। সবার সামনে আমাকে হেয় করেন। পরে আমি মেয়র মহোদয়ের সাথে ফোনে আলাপ করে ত্রাণ কার্যক্রম বন্ধ করে দেই। ৩শ’ পরিবারের মধ্য থেকে মাত্র ৫ জনকে ত্রাণ দিতে পেরেছিলাম। বাকিদের আগামীকাল ত্রাণ দেবো।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে বন্দর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. রফিকুল ইসলাম বলেন, করোনা সংক্রমন মোকাবেলায় সম্মুখভাবে কাজ করছে পুলিশ। ত্রাণ কার্যক্রমে বাধা দেওয়ার প্রশ্নই ওঠে না। সামাজিক দূরত্ব না মেনে ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রম চলছে এমন খবরে ঘটনাস্থলে যায় পুলিশ। ৩শ’ মানুষকে ত্রাণ দেওয়ার কথা থাকলেও সেখানে ত্রাণের আশায় ৬-৭শ’ মানুষ জড়ো হয়। পরে সামাজিক দূরত্ব মেনে কার্যক্রম পরিচালনার পরামর্শ দেয় পুলিশ।

ওসি আরও বলেন, তাছাড়া কাউন্সিলরের এক ভাইও করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। বন্দরে করোনা রোগীও কম নেই। এমন অবস্থায় কেবল সরকারি নির্দেশনা মেনে সামাজিক দূরত্ব রেখে ত্রাণ বিতরণ করতে বলা হয়েছে। এর বেশি কিছু হয়নি। আমি আমার ফোর্সের কার্যক্রমের বিষয়ে খুবই কঠোর। তারা কোন ধরনের অশোভন আচরণ করে থাকে তাহলে সে বিষয়ে অবশ্যই ব্যবস্থা নেবো।

সব খবর
নগরের বাইরে বিভাগের সর্বশেষ