বুধবার ২০ নভেম্বর, ২০১৯

বন্দরে আ.লীগের সেক্রেটারি পদে মাসুম চেয়ারম্যানকে চায় তৃণমূল

মঙ্গলবার, ৫ নভেম্বর ২০১৯, ২০:৪৬

প্রেস নারায়ণগঞ্জ.কম

প্রেস নারায়ণগঞ্জ: দীর্ঘদিন যাবৎ ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক দিয়েই চলছে বন্দর থানা আওয়ামী লীগ। ব্যক্তিগত কারণ দেখিয়ে গত ২০১২ সালে খোরশেদ আলম সাগরের পদত্যাগের পর আবেদ হোসেন ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসছেন।

তবে গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে, এই পদটিতে পরিবর্তন আসতে যাচ্ছে। পদটি বাগিয়ে নিতে জোর তদবির চালাচ্ছেন অনেক নেতাই। তবে জানা গেছে, তরুণ ও স্বচ্ছ ভাবমূর্তির অধিকারী তৃণমূলের কাউকেই পদটি দেওয়ার জন্য আলোচনা চলছে। এসব দিক থেকে তৃণমূলের পছন্দের তালিকায় রয়েছেন বন্দর থানা যুবলীগের ত্রান ও সমাজকল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক মাসুম আহমেদ। তিনি ধামগড় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান।

ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সম্মেলন সন্নিকটে। এর আগেই জেলা ও উপজেলা পর্যায়ের কমিটিগুলো সম্পন্ন করার জন্য রয়েছে তোড়জোড়। ব্যতিক্রম নেই নারায়ণগঞ্জ জেলাতেও। রূপগঞ্জ, আড়াইহাজারে সম্মেলনের মাধ্যমে কমিটি দেয়া হয়েছে। সোনারগাঁয়ে নতুন আহ্বায়ক কমিটি নিয়ে হয়েছে অনেক কিছু। ফতুল্লা ও সিদ্ধিরগঞ্জেও সম্মেলন নিয়ে চলছে আলোচনা। দীর্ঘদিন যাবৎ সাধারণ সম্পাদক শূণ্য থাকায় বন্দর থানা আওয়ামী লীগের এই পদটি পূরণের বিষয়েও ভাবছে জেলা আওয়ামী লীগ। পদটি পেতে চাইছেন বন্দরের একাধিক নেতা। এমনকি বন্দরের বাসিন্দা নন এমন অনেক নেতাও এই পদে আসতে চাইছেন। তবে বন্দরের স্থায়ী বাসিন্দা, তরুণ ও জনপ্রিয় রাজনীতিবিদকেই চাচ্ছে আওয়ামী লীগ। সাধারণ সম্পাদকের পদটি পেতে জেলা ও কেন্দ্রে লবিং চালাচ্ছেন বন্দর থানা যুবলীগের ত্রান ও সমাজকল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক মাসুম আহমেদ। এদিকে স্থানীয় নেতাকর্মীর পছন্দের তালিকায়ও রয়েছেন তিনি।

পিতা মরহুম রিয়াজউদ্দিন মেম্বারের ছেলে ২০১৬ সালে ধামগড় ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে বিপুল ভোটে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন মাসুম আহমেদ। ওই নির্বাচনে বন্দরের ৫টি ইউনিয়ন পরিষদে নৌকা মার্কায় প্রতিদ্বন্দিতা করে দুইজন চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছিলেন। যার মধ্যে একজন এই মাসুম। এলাকায় বেশ জনপ্রিয়তাও রয়েছে তার।

নারায়ণগঞ্জ-৫ (সদর-বন্দর) আসনের সাংসদ একেএম সেলিম ওসমানের অর্থায়নে নিজ ইউনিয়নে বিভিন্ন উন্নয়নমূলক ও সমাজসেবামূলক কাজও করেছেন এবং করে যাচ্ছেন তিনি। নারায়ণগঞ্জের প্রভাবশালী ওসমান পরিবারের সাথে বেশ ঘনিষ্ঠতা রয়েছে মাসুম চেয়ারম্যানের। বন্দর থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক পদের জন্য ওসমান পরিবারের সমর্থন তার দিকে রয়েছে বলেও জানা গেছে।

মাসুম আহমেদ বন্দরের ধামগড় ইউনিয়নের শেখ জামাল উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতির দায়িত্বও পালন করছেন। শিক্ষাগত যোগ্যতায় বিএ পাস করেছেন তিনি। বাবা মরহুম রিয়াজউদ্দিন ধামগড় ইউনিয়নের মেম্বার হিসেবে ৭৫-৯০ সাল পর্যন্ত দায়িত্ব পালন করেন। তার বড় ভাই কামিজউদ্দিন বন্দর থানা আওয়ামী লীগের শ্রম বিষয়ক সম্পাদক। ভাতিজা কামরুজ্জামান জেলা ছাত্রলীগের সহ সভাপতি। আরেক ভাতিজা আবু সাইদ ধামগড় ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক। তাদের পরিবারের সবাই আওয়ামী লীগ সমর্থক।

আওয়ামী লীগ পরিবারের সন্তান ধামগড় ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মাসুম আহমেদ বলেন, আমাদের পুরো পরিবার বঙ্গবন্ধুর আদর্শের রাজনীতি করেন। বাবাও দীর্ঘদিন আওয়ামী লীগের রাজনীতির সাথে যুক্ত ছিলেন। আমরা ভাই-ভাতিজারাও আওয়ামী লীগের রাজনীতি করি।

তিনি আরও বলেন, আমি শামীম ভাইয়ের আদর্শে রাজনীতি করি। রশীদ ভাই আমার রাজনৈতিক গুরু। তারা যদি আমাকে যোগ্য মনে করে আমাকে দায়িত্ব দেন তাহলে আমি আমার প্রাণ দিয়ে হলেও সে দায়িত্ব পালন করবো। আর তৃণমূলের সমর্থনও রয়েছে আমার সাথে।

সব খবর
রাজনীতি বিভাগের সর্বশেষ