রবিবার ০৬ ডিসেম্বর, ২০২০

বন্দরে আইনজীবীর বাড়িতে সন্ত্রাসী হামলা

শনিবার, ১৩ জুন ২০২০, ২২:০৮

প্রেস নারায়ণগঞ্জ.কম

প্রেস নারায়ণগঞ্জ: পূর্ব শত্রুতার জের ধরে আইনজীবীর বাড়িতে প্রতিপক্ষ সন্ত্রাসীরা হামলা চালিয়ে ২ মহিলাসহ ৭ জনকে কুপিয়ে জখম করার ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের হয়েছে।

গত ১২ জুন (শুক্রবার) সন্ধা সাড়ে ৬ টায় বন্দর থানার পুরান বন্দর বাবুর বাড়ী এলাকায় এ সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা ঘটে।

সন্ত্রাসী হামলায় আহতরা হলো হুমায়ন মোল্লা (৪২) তার স্ত্রী বিউটি বেগম (২৮) ডালিম (৪০) হাবিব (৪৩) হেলেনা (৫৫) আসমা বেগম (৪৮) ও আরিফ (২৫)। এলাকাবাসী আহতদের জখম অবস্থায় উদ্ধার করে নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে প্রেরণ করেছে।

এ ঘটনায় শনিবার (১৩ জুন) অ্যাড. তাজুল মোল্লা বাদী হয়ে ৯ জনের নাম উল্লেখ করে এবং ২০/৩০ জনকে আজ্ঞাত আসামী করে বন্দর থানায় এ মামলা দায়ের করেন।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা গেছে, গত ১২ জুন শুক্রবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬ টায় পূর্ব শত্রুতার জের ধরে বন্দর ঝাউতলা এলাকার মৃত লতিফ সরদারের সন্ত্রাসী ছেলে জানে আলম জানু একই এলাকার খোরশেদ আলম মিয়ার ৩ ছেলে নাজমুল,শিশির, তুষার একই এলাকার আব্দুল মতিন মিয়ার ২ ছেলে ফয়সাল ও ফরহাদ এবং একই এলাকার ইমন পুরান বন্দর এলাকার মৃত নূরুল হক মিয়ার ২ ছেলে নাজির সরদার ও মনির সরদারসহ অজ্ঞাত ২০/৩০ জনের একটি সন্ত্রাসী গ্রুপ দেশিও অস্ত্রসস্ত্রে সজ্জিত হয়ে পুরান বন্দর বাবুপাড়া এলাকার মৃত নূরুল ইসলাম মিয়ার ছেলে অ্যাড: তাজুল মোল্লা বাড়িতে হামলা চালায়। ওই সময় হামলাকারিরা বেশ কয়েকটি ঘর বাড়ি ব্যাপক ভাংচুর চালিয়ে নগদ ৫ লাখ টাকা ও ৫ ভড়ি স্বার্ণালংকার ছিনিয়ে পালিয়ে যায়। ওই সময় সন্ত্রাসীদের বাধা দিতে গিয়ে  হুমায়ন মোল্লা (৪২) তার স্ত্রী বিউটি বেগমসহ কমপক্ষে ৭ জন গুরুত্বর আহত হয়।

এ ব্যাপারে বন্দর থানার অফিসার ইনর্চাজ রফিকুল ইসলাম জানান, সংঘর্ষের ঘটনার সংবাদ পেয়ে পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। এ ঘটনা  থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। আমরা মামলার আসামীদের গ্রেপ্তারের জন্য বিভিন্ন স্থানে অভিযান অব্যহত রেখেছি।

সব খবর
নগরের বাইরে বিভাগের সর্বশেষ