সোমবার ১৭ জুন, ২০১৯

বকেয়া বেতন পরিশোধের দাবিতে শহরে শ্রমিকদের বিক্ষোভ

বুধবার, ২২ মে ২০১৯, ২১:১৩

প্রেস নারায়ণগঞ্জ.কম

প্রেস নারায়ণগঞ্জ: ২ মাসের বকেয়া বেতন পরিশোধসহ ১১ দফা দাবি মেনে নেয়ার দাবিতে প্রেসক্লাব সম্মুখে শ্রমিকদের উদ্যোগে বিক্ষোভ সমাবেশ ও মিছিল অনুষ্ঠিত হয়।

বুধবার (২২ মে) সকাল ১১টায় প্রেসক্লাবের সামনে এই বিক্ষোভ সমাবেশ ও মিছিল অনুষ্ঠিত হয়।

প্যাপিলন কারখানার শ্রমিক আনোয়ারের সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন সমাজতান্ত্রিক শ্রমিক ফ্রন্ট জেলার সভাপতি আবু নাঈম খান বিপ্লব, গার্মেন্টস শ্রমিক ফ্রন্ট জেলার সভাপতি সেলিম মাহমুদ, জেলার সহ সভাপতি সাইফুল ইসলাম শরীফ, সিদ্ধিরগঞ্জ থানার সভাপতি তৌহিদুল ইসলাম সুজন, সাধারণ সম্পাদক রুহুল আমিন সোহাগ, গার্মেন্টস শ্রমিক ফ্রন্ট কাঁচপুর থানার সহ-সভাপতি আনোয়ার খান, প্যাপিলন গার্মেন্টস শ্রমিক সাজ্জাদ, মাসুম, রিক্তা প্রমুখ।

সমাবেশে নেতৃবৃন্দ বলেন, কারখানার মালিক গত ২৯ মার্চ সীল স্বাক্ষর ছাড়া নোটিশ লাগিয়ে ৩০,৩১ মার্চ ২ দিনের ছুটি ঘোষনা করেন। এরপর শ্রমিকরা ১লা এপ্রিল সকাল বেলা কাজে যোগদানের জন্য কারখানা গেটে গেলে মালিক কর্তৃপক্ষ সীল স্বাক্ষর ছাড়া কারখানা বন্ধের আরেকটি অবৈধ নোটিশ জারী করে। জানুয়ারী মাসে ১০ দফা দাবী দেয়ার কারনে মালিক কর্তৃপক্ষ ১লা এপ্রিল থেকে অনির্দিষ্ট কালের জন্য কারখানা বন্ধ ঘোষনা করে। শ্রমিকরা কাজ না পেয়ে কারখানার মালিক কর্তৃপক্ষ বরাবর ১১ দফা দাবিনামা দেয় ১লা এপ্রিল। কিন্তু মালিক শ্রম আইন লঙ্ঘন করেছে।

তারা আরও বলেন, শ্রম বিধিমালা অনুযায়ী ৪৫ দিন পর কারখানা খুলে দেয়ার আইন আছে। অন্যথায় শ্রম আইন অনুযায়ী সকল প্রাপ্য পাওনা শ্রমিকদের বুঝিয়ে দিবে। সরকার শ্রমিক বান্ধব নাম দিয়ে বাস্তবে মালিককে রক্ষার পাহাড়াদারে পরিনত হয়েছে। অন্যদিকে শ্রমিকদের অধিকার বঞ্চিত করতে নানারকম ষড়যন্ত্র করছে। কারখানার শ্রমিকরা আইন অনুযায়ী প্রাপ্য পাওনা না পেয়ে বাড়ী ভাড়া, দোকান বিল, সন্তানের পড়াশোনার খরচ, ঈদ অনুষ্ঠানের জন্য যাবতীয় কাজ সম্পন্ন করতে পারছে না।

নেতৃবৃন্দরা বলেন, তারা এই সমস্ত সংকটের অবিলম্বে সমাধানের জন্য মালিক কর্তৃপক্ষ, শিল্প পুলিশ, শ্রম অধিদপ্তর, বিকেএমইএ, জেলা প্রশাসন ও পুলিশ প্রশাসনের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন কিন্তু কর্তৃপক্ষ এখন পর্যন্ত সংকট সমাধান করেনি।

সব খবর
নগর বিভাগের সর্বশেষ