বৃহস্পতিবার ১২ ডিসেম্বর, ২০১৯

ফেসবুকে ভুক্তভোগীর পোস্টের পর ইভটিজার রিকশা চালক আটক

বুধবার, ২৬ জুন ২০১৯, ২১:২১

প্রেস নারায়ণগঞ্জ.কম

প্রেস নারায়ণগঞ্জ: সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হওয়া রিকশা চালক ইভটিজারকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে সরকারি তোলারাম কলেজের শিক্ষার্থীরা।

বুধবার (২৬ জুন) দুপুরে তাকে শহরের জামতলা এলাকা থেকে আটক করে তোলারাম কলেজে নিয়ে আসা হয়। পরে কলেজ কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে তাকে ফতুল্লা মডেল থানা পুলিশের কাছে সোপর্দ করা হয়।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, অভিযুক্ত রিকশাচালক মো. মাসুদ (৩০) শহরের নলুয়া পাড়া এলাকার মো. নূর মোহাম্মদের ছেলে। সে একজন মাদকসেবনকারী। নিতাইগঞ্জের তারা মিয়ার গ্যারেজ থেকে রিকশা ভাড়া নিয়ে রিকশা চালাতো সে।

অনামিকা আলভি নামে এক ভুক্তভোগী সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকের ‘নারায়ণগঞ্জস্থান’ গ্রুপে মাসুদের বিরুদ্ধে ইভটিজিংয়ের অভিযোগ এনে ওই রিকশাচালকের ছবিসহ একটি লেখা পোস্ট করেন। পোস্টের কমেন্টে অনেক ভুক্তভোগী নারী ওই রিকশাচালকের দ্বারা ইভটিজিংয়ের শিকার হওয়া তিক্ত অভিজ্ঞতার কথা জানান। মুহুর্তেই পোস্টটি ভাইরাল হয়ে যায়। পরে তোলারাম কলেজের শিক্ষার্থীরা তাকে শহরের জামতলা এলাকায় দেখতে পেয়ে আটক করে কলেজ প্রাঙ্গনে নিয়ে যায়। পরে ইভটিজার মাসুদকে থানা পুলিশের কাছে সোপর্দ করা হয়।

এ ফতুল্লা মডেল থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আসলাম হোসেন বলেন, ‘ইভটিজার মাসুদের বিরুদ্ধে নারীদের উত্যক্ত করার অভিযোগে মামলা দায়ের করা হয়েছে।’

সব খবর
নগর বিভাগের সর্বশেষ