বুধবার ১১ ডিসেম্বর, ২০১৯

ফুটপাত দখলমুক্ত রাখতে কঠোর জেলা পুলিশ

মঙ্গলবার, ৯ জুলাই ২০১৯, ২১:২৩

প্রেস নারায়ণগঞ্জ.কম

প্রেস নারায়ণগঞ্জ: জেলা পুলিশ সুপারের উদ্যোগে বঙ্গবন্ধু সড়কের ফুটপাতের হকার উচ্ছেদ করার পর প্রায় মাস যাবৎ ফুটপাত রয়েছে হকার মুক্ত। স্বস্তিতে ফুটপাত দিয়ে চলাচল করতে পারছে নগরবাসী। এদিকে বিভিন্ন সূত্রের তথ্যমতে, হকাররা ফের সড়কের ফুটপাত দখলের পায়তারা করছে। তবে ফুটপাত দখল মুক্ত রাখার জন্য পুলিশ কড়া অবস্থানে রয়েছে বলে জানিয়েছেন জেলা পুলিশের বিশেষ শাখার কর্মকর্তা (ডিআইও-২) মো. সাজ্জাদ রোমন।

তিনি বলেন, ‘হকার নিয়ে অনেকেই বিভ্রান্তি ছড়াইতে চেষ্টা করছে। অবৈধ দখলদারদেরকে কোনভাবে ফুটপাতে বসতে দেওয়া হবে না। পুলিশ সুপার মোহাম্মদ হারুন অর রশীদ হকারদের বিপক্ষে না। কিন্তু অবৈধভাবে ফুটপাতে কাউকে দখল করতে দেওয়া হবে না।’

বছরের শুরুতেই শহরের চাষাঢ়ায় কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে জেলা পুলিশ সুপার হারুন অর রশীদ নগরবাসীর চলাচলের সুবিধার্থে বঙ্গবন্ধু সড়কের ফুটপাত হকারমুক্ত করার ঘোষণা দেন। ঘোষণার পরপরই শহরের প্রাণকেন্দ্র চাষাড়া থেকে হকারদের উচ্ছেদ করেন। কিন্তু তারপরও হকাররা বঙ্গবন্ধু সড়কের বিভিন্ন স্থানে বসতে থাকে। সর্বশেষ গত ১৫ জুন এসপি হারুন অর রশীদের নেতৃত্বে চাষাঢ়া থেকে নিতাইগঞ্জ পর্যন্ত বঙ্গবন্ধু সড়কের দুই পাশের ফুটপাত থেকে হকারদের উচ্ছেদ করেন। হকার যাতে বসতে না পারে সেজন্য সড়কের বিভিন্ন পয়েন্টে সার্বক্ষনিক পুলিশী পাহারা বসান তিনি। এদিকে হকার উচ্ছেদ করায় নারায়ণগঞ্জবাসী সাধুবাদ জানান এসপিকে।

বর্তমানে এসপি হারুনের উদ্যোগে ফের হকারমুক্ত রয়েছে ফুটপাত। তবে কতদিন হকারমুক্ত থাকবে তা নিয়ে অনিশ্চয়তা তৈরি হয়েছে। কেননা হকাররা হাল ছেড়ে দিতে নারাজ। তারা ফুটপাতে বসার জন্য ফের একত্রিত হচ্ছে। গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় শতাধিক হকার সাংসদ শামীম ওসমানের সাথে দেখা করার জন্য রাইফেলস্ ক্লাবে যান। শামীম ওসমান ক্লাবে না থাকাতে দেখা না হলেও পরবর্তীতে তার সাথে আলাপ করার আশাবাদ ব্যক্ত করেন হকাররা। ফুটপাতে বসার জন্য বিভিন্নভাবে চেষ্টা করছে হকাররা।

সব খবর
নগর বিভাগের সর্বশেষ