বুধবার ১১ ডিসেম্বর, ২০১৯

ফতুল্লায় হেলপারকে পিটিয়ে হত‌্যা করলো চালক

শনিবার, ১৩ জুলাই ২০১৯, ১৭:০৪

প্রেস নারায়ণগঞ্জ.কম

প্রেস নারায়ণগঞ্জ: ফতুল্লায় গাড়ি না ধোওয়ার কারণে তেরো বছর বয়সী সহযোগীকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগে কাভার্ড ভ্যান চালককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

শনিবার (১৩ জুলাই) দুপুরে ফতুল্লার জালকুড়ি এলাকা থেকে চালক ওমরকে গ্রেফতার করা হয়।

নিহত অন্তর চন্দ্র দাস নরসিংদীর মৃত অনন্ত চন্দ্র দাসের ছেলে। সে মায়ের সাথে বন্দরের স্কুলঘাট এলাকায় জনৈক মালেকের বাড়ির ভাড়াটিয়া বাসায় থাকতো।

নিহতের স্বজন ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, নিহত অন্তর চন্দ্র দাস কাভার্ড ভ্যান চালক ওমরের সহযোগী হিসেবে কাজ করতো। গত বুধবার সকালে গাউছিয়া থেকে গাড়ি ফতুল্লার জালকুড়িতে আসার পর গাড়ি না ধোওয়ার কারণে ওমর তাকে লাঠি দিয়ে বেধরক পেটায়। এ ঘটনায় তিন দিন অসুস্থ থাকার পর শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে স্বজনরা শনিবার সকালে নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসাপাতালে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

অন্তরের মা শেফালি রাণী দাস কান্নাজড়িত কন্ঠে বলেন, ‘বাপ নাই, তাই পোলাডারে হেলপারির কামে দিছিলাম। ওই দিন শরীরে জ্বর ছিল তাই গাড়ি ধুইতে চায় নাই বইলা তারে পিটাইলো। তিন দিন বিছনায় ছিল। সকাল বেলা বাবার শরীরডা আরো খারাপ করায় হাসপাতালে নিয়া আসি। পরে ডাক্তার কয়, আমার বাবায় আর নাই। আমার বাবারে পিটাইয়া মাইরা ফালাইসে। আমি ট্যাকা পয়সা কিছু চাই না, আমি আমার বাবার হত্যার বিচার চাই।’

নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসাপাতালের জরুরী বিভাগের চিকিৎসক ডা. গোলাম মোস্তফা ইমন বলেন, হাসপাতালে আসার পূর্বেই ছেলেটির মৃত্যু হয়েছে।

ফতুল্লা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আসলাম হোসেন বলেন, হেলপারকে পিটিয়ে মারার অভিযোগে ড্রাইভারকে গ্রেফতার করা হয়েছে। নিহতের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে আইনানুগ কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

সব খবর
নগরের বাইরে বিভাগের সর্বশেষ