মঙ্গলবার ১৮ জুন, ২০১৯

ফতুল্লায় বান্ধবীর সহযোগিতায় তরুণীকে গণধর্ষণ, গ্রেফতার ৩

রবিবার, ৯ জুন ২০১৯, ২১:০৪

প্রেস নারায়ণগঞ্জ.কম

প্রেস নারায়ণগঞ্জ: ফতুল্লায় ঈদের ছুটিতে বান্ধবীর বাসায় বেড়াতে এসে গণধর্ষনের শিকার হয়েছেন এক তরুণী। এ ঘটনায় ওই বান্ধবীসহ তিন জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

শনিবার (৮ জুন) রাতে ফতুল্লা ধর্মগঞ্জ আরাফাত নগরে এ ঘটনা ঘটে। রোববার ভুক্তভোগীর বান্ধবী মেীসুমী, সোহাগসহ তিন জনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

পুলিশ জানায়, অভিযুক্ত মৌসুমী ও তার স্বামী সিদ্ধিরগঞ্জ থাকাকালীন ভুক্তভোগী তরূণীর সঙ্গে বন্ধুত্ব হয় মৌসুমীর। পরবর্তীতে সেখান থেকে ফতুল্লা ধর্মগঞ্জ আরাফাত নগরে চলে আসে তারা। তবে প্রায় সময় তাদের মধ্যে ফোনে যোগাযোগ হত। শুক্রবার (৭ জুন) ভুক্তভোগী তার বন্ধু শামীমকে নিয়ে চাষাড়া আসেন। পরে বান্ধবী মৌসুমীকে ফোন করে পঞ্চবটি তার বাসায় যায়। সেখানে রাত্রিযাপন করে এবং পরদিন নদী পাড় হয়ে বক্তাবলী ঘুরতে গেলে সেখানে মৌসুমীর খালাত ভাই পরিচয়ে কিছু সংখ্যক যুবক তাদের আটকায় এবং মারধর করে। এ সময় খালাত ভাই পরিচয়ধারী সোহাগ ও কিছুসংখ্যক যুবক মিলে তরুণীকে গণধর্ষণ করে।

পুলিশ আরো জানায়, সোহার ভুক্তভোগীর পরিবারের কাছে ফোন করে এবং টাকা দাবি করে। পরে ভুক্তভোগীর মা বাদী হয়ে সিদ্ধিরগঞ্জ থানার একটি জিডি করেন। জিডির ভিত্তিতে তরুণী খোঁজা শুরু করে সিদ্ধিরগঞ্জ থানা পুলিশ। পরবর্তীতে ফতুল্লা থানার সাহায্যে মুমূর্ষ অবস্থায় মৌসুমীর বাড়ি থেকে তরুণীকে উদ্ধার করা হয়।

ফতুল্লা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আসলাম হোসেন বলেন, ‘এ ঘটনায় বান্ধবী মৌসুমী ও সোহাগসহ তিনজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। আমাদের মনে হচ্ছে এ ঘটনায় মৌসুমী ও সোহাগ উভয়েই যুক্ত রয়েছে। বাকিটা তদন্তের পর বলা যাবে।’

সব খবর
নগরের বাইরে বিভাগের সর্বশেষ