বুধবার ২০ নভেম্বর, ২০১৯

ফতুল্লায় চিকিৎসকের অবহেলায় নবজাতকের মৃত্যুর অভিযোগ

রবিবার, ২০ অক্টোবর ২০১৯, ১৭:৪৮

প্রেস নারায়ণগঞ্জ.কম

প্রেস নারায়ণগঞ্জ: ফতুল্লায় মোস্তাফিজ সেন্টারে ফতুল্লা জেনারেল হাসপাতাল নামে একটি বেসরকারি ক্লিনিকে চিকিৎসকের অবহেলায় নবজাতকের মৃত্যু হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন ভুক্তভোগী স্বজনরা।

এ ঘটনায় রোববার (২০ অক্টোবর) দুপুরের দিকে ফতুল্লা মডেল থানায় নবজাতকের পিতা মাসুম মিয়া অভিযোগ জানালেও পরে তা তুলে নেন। স্থানীয় প্রভাবশালী একটি মহলের হুমকি ও মিমাংসার পরামর্শেই তিনি অভিযোগ তুলে নেন বলেই জানিয়েছে একটি সূত্র। এ নিয়ে এলাকাবাসীর মধ্যে তুমুল আলোচনা চলছে।

নিহত নবজাতকের পিতা মাসুম মিয়ার জানান, মোস্তাফিজ সেন্টারে ডাক্তার মোস্তাফিজুর রহমানের মালিকানাধীন ফতুল্লা জেনারেল হাসপাতালে তার স্ত্রী পিংকির সিজারের মাধ্যমে একটি পুত্র সন্তান জন্ম দেন। কিন্তু চিকিৎসকের অবহেলার কারণে নবজাতকের অবস্থার অবনতি ঘটলে তড়িগড়ি করে শনিবার (১৯ অক্টোবর) দিবাগত গভীর রাতে এখানকার চিকৎসকেরা প্রসূতিসহ নবজাতককে অন্য হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার জন্য বের করে দেন। পরে ভোরের দিকে ঢাকার শিশু হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথে নবজাতটির মৃত্যু হয়।

নিহত শিশুটির নানি জানান, বুধবার বিকেল ৪টায় মোস্তাফিজ সেন্টারে অবিস্থত ফতুল্লা জেনারেল হাসপাতালে তার মেয়ে পিংকিকে ভর্তি করানো হয়। এদিন বিকেল সাড়ে ৫টায় সিজারের মাধ্যমে পিংকি একটি পুত্র সন্তান জন্ম দেয়।

তিনি বলেন, সিজারের পর থেকেই শিশুটির অবস্থা অবনতি হতে থাকে। কিন্তু ডাক্তারা কোনো ব্যবস্থা নিচ্ছিলেন না। এরমধ্যে শনিবার গভীর রাতে শিশুটির অবস্থা আরও বেশি অবনতি হলে হাসপাতালের লোকজন রাতেই আমাদের বের করে দিতে চান এবং বলেন অন্য হাসপাতালে নিয়ে যেতে। পরে ভোরের দিকে ঢাকার শিশু হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়।

ফতুল্লা জেনারেল হাসপাতালের ম্যানেজার এম আর ক্যানন জানান, ‘চিকিৎসকের কোনো অবহেলা ছিলো না। তবে, শিশুটির অবস্থা অবনতি ঘটলে তাকে রেফার্ড করা হয়। পরে সে অন্য হাসপাতালে মারা গেছে।’

এ প্রসঙ্গে ফতুল্লা মডেল থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আসলাম হোসেন বলেন, ‘শিশুটিকে নিয়ে থানায় এসেছিলো তার বাবা-মা। তবে, আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য আমরা আগ্রহ প্রকাশ করলেও তার পরবর্তীতে আর রাজি না হয়ে মৃত শিশুটিকে নিয়ে চলে যায়। প্রভাবশালীদের হুমকির বিষয়ে আমাকে কিছু জানানো হয়নি।’

সব খবর
নগরের বাইরে বিভাগের সর্বশেষ