বুধবার ১৩ নভেম্বর, ২০১৯

ফকিরেরা আজ কোটিপতি, রাজপ্রাসাদ, গাড়ি, বাড়ির মালিক

শুক্রবার, ২ মার্চ ২০১৮, ২১:৩২

শহিদ উল্লাহ

গত বুধবার মরহুম জোহা সাহেব ও চুনকা সাহেবের স্মরণ সভা আয়োজন করে নারায়ণগন্জ জেলা আওয়ামী লীগ। ইচছা থাকা সত্যেও সভাটিতে যাইনি মনের অনুশাসনে। ভাবনা এসেছিল যদি যাই, বড় বড় পদবীধারী নেতাদের সামনে যদি কিছু বলার সূযোগ না পাই। অথচ রাজনীতি করি ৫০ বছর ধরে এবং উপরোক্ত দুইজন মরহুম নেতার সান্নিধ্য থেকেই নয়, তাদের কাছ হতে রাজনীতির সবক নিয়েই রাজনীতি করতাম। তাদের মধ্যেও ছিল মতদ্বৈধতা। কিন্তু তারা বাছায় করতেন মেধা সম্পন্ন কর্মী/নেতাদের। শিক্ষা দিতেন মূল দল ও সহযোগী সংগঠনের নেতা কর্মীদের পিতা পুত্রের মতোন সম্পর্কের শ্রদ্বা ভালবাসার অমীয় বাণী। দুজনের দেশপ্রেম ছিল সর্বাগ্রে। তাইতো আমরা দেখি, তারা দুজনেই রাজনীতির ব্যবসা করে কোটিপতি বনে যাননি। কিন্ত আজ? অনেকের কাছেই রাজনীতি হয়ে গেছে পূজি ছাড়া বৃহৎ ব্যবসা। এই ব্যবসাতে জোহা সাহেব, চুনকা সাহেবের রাজনীতির মতোন ত্যাগী সংগ্রামী কর্মী-নেতার প্রয়োজন নেই, দরকার সন্ত্রাসী যোগানদারদেরকে। তাইতো দেখি, এই মহান দুই নেতার সময়ের ফকিরেরা আজ কোটিপতি, রাজপ্রাসাদ, গাড়ি, বাড়ির মালিক। ভাবলাম, তাদের স্মরণসভায় গিয়ে যদি এ সকল নেতাদের নাম নিয়ে আলাদিনের চেরাগের ঠিকানা চেয়ে বসি, তখন তারা যদি আমাদেরকে বঙ্গবন্ধুর সৈনিকের নামের খাতা হতে আমাদের নাম কেটে দেন!

লেখকঃ সদস্য জেলা আওয়ামী লীগ, সাবেক সভাপতি ফতুল্লা থানা আওয়ামী লীগ

মূল পোষ্টটি পড়তে ক্লিক করুন এখানে

 
সব খবর
সোশাল মিডিয়া বিভাগের সর্বশেষ