শুক্রবার ২৩ আগস্ট, ২০১৯

প্রেমিকের সাথে দেখা করতে এসে গণধর্ষণের শিকার তরুণী

শনিবার, ৩ আগস্ট ২০১৯, ২০:৫৭

প্রেস নারায়ণগঞ্জ.কম

প্রেস নারায়ণগঞ্জ: রূপগঞ্জের পিতলগঞ্জ পশ্চিমপাড়া এলাকার একটি কক্ষে এক তরুণীকে দুই দিন আটকে রেখে পালাক্রমে গণধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

শুক্রবার (২ আগস্ট) রাতে নির্যাতিতা তরুণী নিজে বাদী হয়ে রূপগঞ্জ থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন। ওই রাতেই অভিযান চালিয়ে মামলার ৫ আসামিকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

গ্রেফতারকৃতরা হলো উপজেলার পিতলগঞ্জ এলাকার গোলজার মিয়ার ছেলে রাসেল মিয়া, পিতলগঞ্জ পশ্চিমপাড়া এলাকার আহসান উল্লাহর ছেলে আশিক মিয়া, সিরাজ মিয়ার ছেলে শাকিল মিয়া, হারিন্দা টেকপাড়া এলাকার হযরত আলীর ছেলে সামছু দোহাই ও নীলফামারী জেলার ডিমলা থানার সুন্দরখাতা এলাকার আহাম্মদ আলীর ছেলে শের আলী।

মামলা সূত্রে জানা যায়, রাসেল মিয়ার সঙ্গে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে পরিচয় হয় ওই তরুণীর। তারপর তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। বৃহস্পতিবার রাসেল তাকে কাঞ্চন ব্রিজের নীচে দেখা করতে বলে। রাত ৮ টার দিকে কাঞ্চন ব্রিজের নিচে দেখা করতে গেলে রাসেল তার পিতা-মাতার পরিচয় করিয়ে দেবে বলে একটি সিএনজিতে পিতলগঞ্জ পশ্চিমপাড়া রফিক মিয়ার একটি পুরাতন ঘরে নিয়ে যায়। পরে মারধর করে এবং হত্যার ভয় দেখিয়ে রাসেল ও তার বন্ধু পালাক্রমে ওই তরুণীকে ধর্ষণ করে। এভাবে ২ দিন ঘরে আটকে রেখে পালাক্রমে ধর্ষণের পর তরুণী অসুস্থ্য হয়ে পড়লে শুক্রবার মধ্যরাতে তাকে রাস্তায় ফেলে রেখে পালিয়ে যায় অভিযুক্তরা। পরে এক সিএনজি চালকের সহায়তায় সেখান থেকে রূপগঞ্জ থানায় এসে মামলা দায়ের করে নির্যাতিতা।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা রূপগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) রফিকুল হক জানান, শুক্রবার রাতে ভিক্টিম বাদী হয়ে মামলা দায়ের করলে পুলিশ রাতেই অভিযান চালিয়ে ৫ আসামিকে গ্রেফতার করে। শনিবার সকালে তাদের আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

এ বিষয়ে রূপগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মাহমুদুল হাসান বলেন, নির্যাতিতা তরুণীর মেডিকেল সম্পন্ন করা হয়েছে।

সব খবর
নগরের বাইরে বিভাগের সর্বশেষ