বুধবার ১৪ নভেম্বর, ২০১৮

প্রধানমন্ত্রীর সাথে সংলাপে না.গঞ্জের ৫ নেতা

বুধবার, ৭ নভেম্বর ২০১৮, ২১:৪০

প্রেস নারায়ণগঞ্জ.কম

মো: ফখরুল ইসলাম (প্রেস নারায়ণগঞ্জ): একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে সারাদেশের রাজনীতিতে উত্তাপ ছড়াচ্ছে প্রধানমন্ত্রীর সাথে সংলাপ। বাদ নেই নারায়ণগঞ্জের রাজনীতিতেও। ১ নভেম্বর থেকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ১৪ দলীয় জোটের সাথে গণভবনে শুরু হওয়া সংলাপ রাজনীতিতে কিছুটা সুবাতাস বয়ে নিয়ে এসেছে। আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে থাকা সংলাপের দিকে তাকিয়ে ছিল নারায়ণগঞ্জসহ সারাদেশ। এই সংলাপে অংশ নিয়েছেন বিভিন্ন রাজনৈতিক জোটের নেতৃবৃন্দ। সংলাপে বিভিন্ন রাজনৈতিক জোটের হয়ে অংশ নেয়া নেতাদের মধ্যে আছেন নারায়ণগঞ্জ জেলার ৫ নেতা। তারা হলেন নাগরিক ঐক্যের এসএম আকরাম, জাতীয় পার্টি লিয়াকত হোসেন খোকা, সমাজতান্ত্রিক আন্দোলন এর রণজিৎ কুমার, সমাজতান্ত্রিক মজদুর পার্টির সাধারণ সম্পাদক ডা. সামছুল আলম, ও বাংলাদেশ জনদলের (বিজেডি) চেয়ারম্যান মাহবুবুর রহমান জয় চৌধুরী।

নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের সাবেক আহবায়ক এসএম আকরাম দুইবার গণভবনে অনুষ্ঠিত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাথে রাজনৈতিক সংলাপে অংশ নিয়েছেন। প্রথম বার ১ নভেম্বর সন্ধ্যায় ঐক্যফ্রন্টের ২০ জনের প্রতিনিধি দলে ছিলেন নারায়ণগঞ্জ-৫ এর সাবেক আওয়ামী লীগ দলীয় এই সাংসদ। দ্বিতীয় বার ৭ নভেম্বর সকালে ১১ জনের প্রতিনিধি দলের হয় সংলাপ করেন।

নাগরিক ঐক্য থেকে এসএম আকরাম ছাড়াও গণভবনের সংলাপে ঐক্যফ্রন্টের প্রতিনিধি দলে ছিলেন ড. কামাল হোসেন, বিএনপির মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, ব্যারিস্টার জমিরউদ্দিন সরকার ও মির্জা আব্বাস, নাগরিক ঐক্যর মাহমুদুর রহমান মান্না, জেএসডির আ স ম আব্দুর রব, ঐক্য প্রক্রিয়ার সুলতান মোহাম্মদ মনসুর, আ ব ম মোস্তফা আমিন ও স্বতন্ত্র হিসেবে ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী।

সংলাপে অংশ নিয়েছেন নারায়ণগঞ্জের আরেক বাসিন্দা জাতীয় পার্টির (জাপা) যুগ্ম মহাসচিব নারায়ণগঞ্জ-৩ এর সংসদ সদস্য লিয়াকত হোসেন খোকা। ৫ নভেম্বর সন্ধ্যায় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের নেতৃত্বে ৩৩ জনের অন্যতম সদস্য হিসেবে তিনি এই সংলাপে অংশগ্রহন করেন।

হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের নেতৃত্বে সংলাপে লিয়াকত হোসেন খোকা ছাড়াও অংশ নিয়েছেন জাপার সিনিয়র কো-চেয়ারম্যান ও বিরোধীদলীয় নেতা রওশন এরশাদ, কো-চেয়ারম্যান জিএম কাদের, প্রেসিডিয়াম সদস্য আনিসুল ইসলাম মাহমুদ, এমএ ছাত্তার, কাজী ফিরোজ রশীদ, জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলু, মহাসচিব এবিএম রুহুল আমীন হাওলাদার প্রমুখ।

প্রধানমন্ত্রীর সাথে সংলাপে বসেন বিকল্প ধারার সভাপতি বদরুদ্দোজা চৌধুরীর নেতৃত্বে যুক্তফ্রন্টের ২১ নেতা। এর মধ্যে নারায়ণগঞ্জের আরেক বাসিন্দা সাবেক নারায়ণগঞ্জ জেলা কৃষক লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মাহবুবুর রহমান জয় চৌধুরী জনদলের চেয়ারম্যান হিসেবে সংলাপে অংশ নেন।

যুক্তফ্রন্টের প্রতিনিধি দলে আরও ছিলেন বিকল্পধারার নেতা আবদুল মান্নান, শমসের মবিন চৌধুরী, গোলাম সারোয়ার মিলন, বিএলডিপি সভাপতি নাজিম উদ্দিন আল আজাদ, সাধারণ সম্পাদক দেলোযার হোসেন, বাংলাদেশ ন্যাপের সভাপতি জেবেল রহমান গনি, ন্যাশনাল ডেমোক্রেটিক পার্টির চেয়ারম্যান (এনডিপি) খন্দকার গোলাম মোর্ত্তুজা, বাংলাদেশ জনতা পার্টির সভাপতি শেখ আসাদুজ্জামান, হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ইউনাইটেড মাইনরিটি ফ্রন্টের সভাপতি দীলিপ কুমার দাশ এবং লেবার পার্টির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান হামদুল্লাহ আল মেহেদী প্রমুখ।

গণভবনে মঙ্গলবার ৬ নভেম্বর গণতান্ত্রিক বাম জোটের সাথে সংলাপ করেন প্রধানমন্ত্রী। সেখানে জোটের অন্যতম শরিক দল সমাজতান্ত্রিক আন্দোলন এর পক্ষে অংশগ্রহণ করেন নারায়ণগঞ্জের রণজিৎ কুমার।

প্রধানমন্ত্রীর সাথে সংলাপে অংশ নেন গণতান্ত্রিক বাম জোটের ১৬ নেতা। সংলাপে অংশ নেওয়া রণজিৎ কুমার ছাড়াও বাম জোটের নেতাদের মধ্যে ছিলেন- সিপিবি সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম, সাধারণ সম্পাদক মো. শাহ আলম, বাসদের সাধারণ সম্পাদক খালেকুজ্জামান, বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল হক, গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়কারী জোনায়েদ সাকি, গণতান্ত্রিক বিপ্লবী পার্টির সাধারণ সম্পাদক মোশরেফা মিশু, সমাজতান্ত্রিক আন্দোলনের আহ্বায়ক হামিদুল হক প্রমুখ।

সর্বশেষ বুধবার ৭ নভেম্বর গণতান্ত্রিক বাম ঐক্যের সাথে প্রধানমন্ত্রী সংলাপ করেন। এই সময় রূপগঞ্জ তারাব পৌরসভার বাসিন্দা সমাজতান্ত্রিক মজদুর পার্টির সাধারণ সম্পাদক ডা. সামছুল আলম ছাড়াও সংলাপে যোগ দেন বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (মার্কসবাদী) এর সাধারণ সম্পাদক এম.এ সামাদ, বাংলাদেশের সাম্যবাদী দলের সম্পাদক হারুন চৌধুরী, জাতীয় বিপ্লবী পার্টির আহ্বায়ক আবুল কালাম আজাদ, বাংলাদেশের সোস্যালিস্ট পার্টির সাধারণ সম্পাদক সাহিদুর রহমান, বাংলাদেশের সমতা পার্টির সভাপতি ফরহাদ চৌধুরী এবং বাংলাদেশের শ্রমিক পার্টির সভাপতি ফেরদৌস প্রমুখ।

সবগুলো সংলাপে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আওয়ামী লীগ নেতাদের মধ্যে ছিলেন ওবায়দুল কাদের, আমির হোসেন আমু, তোফায়েল আহমেদ, মোহাম্মদ নাসিম, শেখ ফজলুল করিম সেলিম, আনিসুল হক, দীপু মনি ও শ ম রেজাউল করিম। এছাড়া শরিকদের মধ্যে ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেনন ও জাসদ সভাপতি হাসানুল হক ইনু প্রমুখ।

সব মিলিয়ে ৫১টি রাজনৈতিক দল ও জোটের সঙ্গে নির্বাচনি সংলাপ করলেন শেখ হাসিনা।

সব খবর
রাজনীতি বিভাগের সর্বশেষ