বুধবার ২৩ অক্টোবর, ২০১৯

প্রথমে পুলিশে শুদ্ধি অভিযান শুরু হবে: এসপি হারুন

শনিবার, ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১৫:২৪

প্রেস নারায়ণগঞ্জ.কম

প্রেস নারায়ণগঞ্জ: জেলা পুলিশ সুপার হারুন অর রশীদ বলেছেন, ‘কোন পুলিশ সদস্য মাদক ব্যবসায়ী, সন্ত্রাসকে প্রশ্রয় দিলে তার বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে৷ পুলিশে প্রথমে শুদ্ধি অভিযান শুরু হবে৷ আপনারা গোপনে আমাকে তথ্যটুকু দিবেন৷ আপনাদের নাম প্রকাশ করা হবে না৷’

শনিবার (১৪ সেপ্টেম্বর) দুপুরে সদর উপজেলার আলীরটেক ইউনিয়নের কুড়েরপাড়ে ‘ওপেন হাউজ ডে’ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন৷

তিনি আরও বলেন, ‘মাদক ব্যবসায়ীরা নাকি জামিন পেয়ে যায়৷ তারা যাতে জামিন না পেতে পারে সে ব্যবস্থাও হয়েছে৷ তাদের বিরুদ্ধে একটার পর একটা মামলা দিয়ে আমরা আটকে রাখবো৷ ওই মাদক ব্যবসায়ীকে জেলখানা থেকে বের করার কোন সুযোগ দেবো না৷’

এসপি বলেন, ‘আপনার সন্তানরা স্কুলে যায় কিনা সেদিকে অভিভাবকরা খেয়াল রাখবেন৷ আমরা এমন তথ্য পাই, সন্তানকে আপনারা এতো আদর করেছেন, এখন সেই সন্তান বাবাকেও মারে, মাকেও মারে৷ তাদের বিরুদ্ধে আমাদের অভিযান৷ যদি কোন সন্তান তার বাবা-মাকে অত্যাচার করে সে তথ্যটুকু আমাদের দিবেন৷ তার বিরুদ্ধে আমরা কঠোর এ্যাকশনে যাবো৷’

হারুন অর রশীদ বলেন, ‘কারা মাদক ব্যবসা, সন্ত্রাসী, চাঁদাবাজি করে সেটা আপনারা জানেন৷ সে হয়তো কোন চেয়ারম্যান, মেম্বার কিংবা কোন মুরুব্বির ছেলে হতে পারে৷ আপনারা সাহস পাচ্ছেন না, ভয় পাচ্ছেন৷ আপনারা সে ভয়টি পাবেন না৷ কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না, অন্যায় কাজ করলে কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না৷’

তিনি বলেন, ‘আলীরটেকে একটা পুলিশ ফাঁড়ির প্রয়োজন৷ আমরা এমপি সাহেবের কাছে এ বিষয়ে প্রস্তাব রাখবো৷ এর আগে কিছু পুলিশ সদস্য দিয়ে এখানে একটি ঘাট করে দেবো৷ যাতে প্রতিদিন পুলিশ এসে এখানে খবর রাখতে পারে৷ তাছাড়া আপনাদের কাছেই নারায়ণগঞ্জ, আপনারা যেকোন সময়ে আসবেন সমস্যা জানাবেন৷ অন্যায়ের বিরুদ্ধে সকলে একত্রে কাজ করলে, রুখে দাড়ালে সন্ত্রাস থাকবে না৷ আমার স্বল্প সংখ্যক পুলিশ দিয়ে সম্ভব না৷ সকলে মিলে কাজ করতে হবে৷ আশা করি নারায়ণগঞ্জে একটা পরিবর্তন এসেছে৷’

জেলা পুলিশের উর্ধ্বতন এই কর্মকর্তা বলেন, `আমরা নারায়ণগঞ্জে কাউকে ছাড় দিচ্ছি না, সে যত বড় সন্ত্রাসী হোক৷ সে লক্ষ্যে আমাদের অভিযান চলছে৷ যতদিন আমরা নারায়ণগঞ্জে আছি বা যতদিন পুলিশ থাকবে ততদিন আমাদের অভিযান চলবে৷’

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) আব্দুল্লাহ আল মামুন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (‘ক’ অঞ্চল) মেহেদী ইমরান সিদ্দিকী, সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আসাদুজ্জামান, পরিদর্শক (তদন্ত) গোলাম মোস্তফা, পরিদর্শক (অপারেশন) জয়নাল আবেদীন, জেলা পুলিশের বিশেষ শাখার কর্মকর্তা (ডিআইও-২) সাজ্জাদ রোমন, আলীরটেক ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মতিউর রহমান প্রমুখ৷

সব খবর
নগর বিভাগের সর্বশেষ