শনিবার ২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৯

পুলিশ-পুলিশ খেলা ছোট বেলা থেইকা খেলি: শামীম ওসমান

শনিবার, ৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ২০:৪২

প্রেস নারায়ণগঞ্জ.কম

প্রেস নারায়ণগঞ্জ: নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সাংসদ একেএম শামীম ওসমান বলেছেন, ‘পুলিশ-পুলিশ খেলা আমরা ছোট বেলা থেইকা খেলি। কারণ আমরা পাঁচ ভাই-বোন। আমরা তিনভাই জন্ম নিছি তখন আমার বাপ ছিল জেলে। আমার বড় ভাইয়ের ছেলে জন্ম নিছে তখন ওঁ ছিল কাদের বাহিনীতে। আমার ছেলে জন্ম নিছে আমি তখন জেলে। এখন আবার ছেলের বাচ্চা হবে সামনে সেটা নিয়ে আমার বউ খুব চিন্তিত, এখন কি হবে? বহুত টেনশনে আছে।’

শনিবার (৭ সেপ্টেম্বর) বিকেলে শহরের মিশনপাড়া মোড়ে নবাব সলিমুল্লাহ সড়কের উপর অনুষ্ঠিত জনসভায় তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি আরো বলেন, ‘কিছুদিন পরে দাদা হয়ে যাবো, বয়স হইছে। এইজন্য অনেকের অনেক কিছু সহ্য করি তা না কিন্তু। বয়স হইসে শরীরে কিন্তু মন এখনও আগের মতো শক্ত আছে। আমরা গন্ধ পাই, শুনতে পারি বুঝতে পারি কোথায় কি খেলা হচ্ছে। আমরা মুক্তিযুদ্ধের সন্তান, রাজাকারের না। ২০০২ এ বিএনপি এসে আমাদের ঘরবাড়ি জ্বালিয়ে দিলো।’

শামীম ওসমান বলেন, ‘আজ আওয়ামী লীগের নেতাকর্মী যাদের সিএস আরএস পর্চাসহ প্রমাণ আছে তাদের খাস জমির আওয়ামী লীগ বলা হয়। আর যারা উড়ে এসে জুড়ে বসে তারা আওয়ামী লীগ দাবি করে আজ।’

আওয়ামী লীগের এই এমপি বলেন, ‘আমি দেশ থেইকা যখন আসি তখন আমাকে গ্রেফতার করতে আসলো। আমার নেত্রীকে জিজ্ঞেস করলাম, আপা গ্রেফতার হবো? আপা বললেন, না। আপায় যখন গ্রেফতার হইতে মানা করছে পৃথিবীর কোন শক্তি নাই যে শামীম ওসমানকে গ্রেফতার করে।’

জনসভায় উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবু হাসনাত শহীদ মো. বাদল, মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এড. খোকন সাহা, সহ সভাপতি চন্দন শীল, এড. ওয়াজেদ আলী খোকন, যুগ্ম সম্পাদক শাহ্ নিজাম, সিদ্ধিরগঞ্জ থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি মুজিবুর রহমান, ফতুল্লা থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি এম সাইফুল্লাহ বাদল, সাধারণ সম্পাদক এম শওকত আলী, সোনারগাঁ থানা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক শামসুল ইসলাম ভূইয়া, জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মীর সোহেল আলী, মহানগর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জাকিরুল আলম হেলাল, মহানগর যুবলীগের সভাপতি শাহাদাত হোসেন ভূইয়া সাজনু, জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি প্রফেসর শিরিন বেগম, মহানগর মহিলা লীগের সভাপতি ইসরাত জাহান স্মৃতি, মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি জুয়েল হোসেন, সাধারণ সম্পাদক ও নাসিক ২৩ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর সাইফুদ্দিন আহমেদ দুলাল প্রধান, নাসিক ১৬ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর নাজমুল আলম সজল, নাসিক ১৭ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর আব্দুল করিম বাবু, নাসিক ১৪ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর শফিউদ্দিন প্রধান, জেলা কৃষক লীগের সাধারণ সম্পাদক ইব্রাহিম চেঙ্গিস, সদর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মো. নাজিমউদ্দিন, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি এহসানুল হাসান নিপু, সাফায়েত আলম সানি, জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি হাসান ফেরদৌস জুয়েল, সাধারণ সম্পাদক মোহসিন মিয়া, মহানগর মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ইসরাত জাহান স্মৃতি, ফতুল্লা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মিছির আলী, জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আজিজুর রহমান আজিজ, সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল ইসমাঈল রাফেল, মহানগর ছাত্রলীগের সভাপতি হাবিবুর রহমান রিয়াদ, সাধারণ সম্পাদক হাসনাত রহমান বিন্দু প্রমুখ।

সব খবর
রাজনীতি বিভাগের সর্বশেষ