মঙ্গলবার ২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২০

পারলেন না দিপু, প্যানেলের তিন প্রার্থী মাঠে

রবিবার, ১৯ জানুয়ারি ২০২০, ১৯:১২

প্রেস নারায়ণগঞ্জ.কম

প্রেস নারায়ণগঞ্জ: আওয়ামী লীগের মনোনীত প্যানেলের বিরোধীতা করে প্যানেল ঘোষণা করেছিলেন আওয়ামী লীগের সিনিয়র নেতা ও আইনজীবী সমিতির চারবারের সভাপতি এড. আনিসুর রহমান দিপু। এই প্যানেলের সাধারণ সম্পাদকসহ ১৪ জনকে নিয়ে মনোনয়ন প্রত্যাহার করেছেন আনিসুর রহমান দিপু। শেষ পর্যন্ত লড়াইয়ে টিকে রইলেন এই প্যানেলের তিনজন। তারা হলেন- আপ্যায়ন সম্পাদক পদে এড. মামুন সিরাজুল মুজিদ, ক্রীড়া সম্পাদক পদে এড. সোহেল আজাদ এবং সমাজসেবা সম্পাদক পদে এড. রোমেল মোল্লা।

৩ জনের মনোনয়ন প্রত্যাহার না করার বিষয়টি নিশ্চিত করে আইনজীবী সমিতি নির্বচনের কমিশনার এড. আব্দুর রহিম বলেন, ওই প্যানেলের ১৪ প্রার্থী তাদের মনোনয়ন প্রত্যাহার করে নিয়েছেন। ৩ প্রার্থী আপ্যায়ন সম্পাদক পদে এড. মামুন সিরাজুল মজিদ, ক্রীড়া সম্পাদক পদে এড. সোহেল আজাদ ও সমাজসেবা সম্পাদক পদে এড. রোমেল মোল্লা প্রার্থিতা প্রত্যাহার করেন নাই। 

রোববার (১৯ জানুয়ারি) বিকেল চারটা পর্যন্ত মনোনয়ন প্রত্যাহারের শেষ দিন ছিল। বিকেল চারটার দিকেই মনোনয়ন প্রত্যাহার করে নেন বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবী পরিষদ প্যানেলের সভাপতি প্রার্থী এড. আনিসুর রহমান দিপু ও সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী এড. হাবিব আল মুজাহিদ পলুসহ ১৪ জন। মনোনয়ন প্রত্যাহারের সময় প্রার্থীরা উপস্থিত না থাকলেও তাদের পক্ষে মনোনয়ন প্রত্যাহারের চিঠি নির্বাচন কমিশনের কাছে হস্তান্তর করেন সোনারগাঁ আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এড. শামসুল ইসলাম ভূইয়া, জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল ইসমাঈল রাফেল প্রধান।

মনোনয়ন প্রত্যাহারের বিষয়ে জানতে চাইলে এড. আনিসুর রহমান দিপু বলেন, এটা আমার দলীয় সিদ্ধান্ত। বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবী পরিষদ ও আওয়ামী লীগের আইন বিষয়ক সম্পাদকের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী প্যানেল প্রত্যাহার করছি। আওয়ামী লীগের দুই প্যানেল থাকবে না এটাই হচ্ছে ব্যাপার।

আগামী ২৯ জানুয়ারি অনুষ্ঠিতব্য আইনজীবী সমিতির কার্যকরী কমিটির (২০২০-২১) নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পর থেকেই নির্বাচন কমিশনের বিরোধীতা করেন আওয়ামী লীগের সিনিয়র নেতা এড. আনিসুর রহমান দিপু। আওয়ামী লীগের মনোনীত প্যানেল থাকা সত্ত্বেও তাঁর নেতৃত্বে প্যানেল ঘোষণা করেন। নির্বাচন কমিশনের বিরুদ্ধে প্রতিবাদের অংশ হিসেবেই প্যানেল দিয়েছেন বলেও আইনজীবী সমিতির চারবারের সভাপতি আনিসুর রহমান দিপু। প্যানেল ঘোষণার মধ্য দিয়ে বেশ আলোচনার সৃষ্টি করেন তিনি। এতে আওয়ামী লীগ সমর্থিত আইনজীবীরা দুই ভাগ হয়ে যায়।

আওয়ামী লীগের সিনিয়র নেতা ও আইনজীবী সমিতির চারবারের সভাপতি ও তিনবারের সাধারণ সম্পাদক এড. আনিসুর রহমান দিপু ছিলেন হাই প্রোফাইল ক্যান্ডিডেট। তাকে নিয়ে বিচলিত ছিল আওয়ামী লীগের মনোনীত মোহসিন-মাহবুবুর প্যানেল। আওয়ামী লীগ সমর্থিত এবং সাধারণ আইনজীবীদের বড় একটি অংশ ছিল এড. আনিসুর রহমান দিপু ও তার প্যানেলের পক্ষে।

এদিকে এই প্যানেলের তিন প্রার্থীকে লাঞ্চিত করা হয়েছে বলে রোববার সকাল থেকেই আদালতপাড়ায় গুঞ্জন শোনা যাচ্ছিল। এমনকি প্রার্থীদের বাড়িতে গিয়ে হুমকি-ধমকিও দেয়া হয়েছে বলে একাধিক সূত্র জানায়। তবে এ বিষয়ে সরাসরি দিপু-পলু প্যানেলের কেউ মুখ খুলতে রাজি হননি। অন্যদিকে এই প্যানেলের প্রার্থীদের বাড়ির সামনে সন্ত্রাসী মহড়া দেওয়া হচ্ছে বলেও স্থানীয় দৈনিকে সংবাদ প্রকাশিত হয়। এসব নিয়ে যখন আলোচনা চলছে ঠিক তখনই জানা যায়, মনোনয়ন প্রত্যাহার করে নিচ্ছেন এড. আনিসুর রহমান দিপুসহ পুরো প্যানেল। যদিও মনোনয়ন প্রত্যাহার করেছেন এড. আনিসুর রহমান দিপুসহ তার প্যানেলের ১৪ জন। তবে শেষ পর্যন্ত টিকে রইলেন এই প্যানেলেরই তিনজন। আগামী ২৯ ডিসেম্বরের নির্বাচনে স্ব-স্ব পদে লড়াই করবেন তারা।

সব খবর
রাজনীতি বিভাগের সর্বশেষ