মঙ্গলবার ০২ মার্চ, ২০২১

নারী নির্যাতন বন্ধে ৯ দফা দাবিতে ডিসিকে স্মারকলিপি

সোমবার, ২৮ ডিসেম্বর ২০২০, ১২:২৭

প্রেস নারায়ণগঞ্জ.কম

প্রেস নারায়ণগঞ্জ: ধর্ষণ ও নারীর নির্যাতন বন্ধে ৯ দফা দাবি নিয়ে সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট নারায়ণগঞ্জ জেলার উদ্যোগে জেলা প্রশাসক জসিম উদ্দিনের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রীর কাছে স্মারকলিপি প্রদান করা হয়েছে। রবিবার (২৭ ডিসেম্বর) বেলা ১১ জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে মানববন্ধন ও পরে মিছিল অনুষ্ঠিত হয়।

সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট নারায়গঞ্জ জেলার সভাপতি সুলতানা আক্তারের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট নারায়ণগঞ্জ জেলার সাধারণ সম্পাদক বেলাল হোসাইন, অর্থ সম্পাদক মুন্নি সরদার, বিজ্ঞান আন্দোলন মঞ্চ নারায়ণগঞ্জ জেলার সংগঠক মোহসীনা সীথি, সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট ফতুল্লা আঞ্চলিক শাখার সংগঠক ফয়সাল আহাম্মেদ রাতুল।

এ সময় নেতৃবৃন্দরা বলেন, ঘরে বাইরে সর্বত্র নারী ও শিশুর উপর সহিংসতা চলছে। করোনা মহামারী থেকে চলছে ধর্ষণের মহামারী। অধিকাংশ ক্ষেত্রে দেখা গেছে ধর্ষকরা বর্তমান সরকার দলীয় ছাত্রলীগ, যুবলীগের নেতাকর্মী। প্রভাবশালীদের আশ্রয়ে-প্রশ্রয়ে ও বিচারহীনতার কারণে ধর্ষকরা বেপরোয়া। আইন ও সালিশ কেন্দ্রের তথ্যমতে নারী ও শিশু নির্যাতনের ১০০ টি মামলার মধ্যে ৯৭ টিরই কোন বিচার হয় না। কেবল মাত্র ৩ টি মামলার বিচারের রায় হয় এবং রায় বাস্তবায়ন হয় মাত্র ০.৩৭%। এই বিচারহীনতার বিরুদ্ধে মানুষ ফুঁসে উঠেছে। একজন নারী প্রধনমন্ত্রী হিসেবে দেশবাসীর প্রত্যাশা সারাদেশে ভয়াবহ মাত্রায় ধর্ষণ ও নারী নির্যাতন বন্ধে সরকার কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহন করবে।

নেতৃবৃন্দ আরো বলেন, ধর্ষক পশু নয়; ধর্ষক হয়ে কেউ জন্মগ্রহন করে না; সমাজের মধ্যেই সে ধর্ষক হয়ে ওঠে। ধর্ষণের অন্যতম প্রধান কারণ সমাজে নারীকে পণ্য হিসেবে দেখার দৃষ্টিভঙ্গি, পুরুষতান্ত্রিক মানসিকতা এবং নারী-পুরুষের অধিকারের অসমতা। সমাজে নারীকে মানুষ হিসেবে মর্যাদা না দেওয়া। ৪৯ বছর আগে আমাদের মুক্তিযুদ্ধে দেশের সকল মানুষ যেভাবে ঐক্যবদ্ধ হয়েছিল সাম্য, মানবিক মর্যাদা ও সামাজিক ন্যায়বিচ্ও প্রতিষ্ঠার লক্ষে ঠিক তেমনিভাবে আজকেও নারী-পুরুষসহ সকল গণতান্ত্রিক চেতনাসম্পন্ন বিবেকবান মানুষ ঐক্যবদ্ধ হয়ে ধর্ষণের বিরুদ্ধে সর্বস্ত্যরে জাগরন দরকার। গণপ্রতিরোধ গড়ে তোলা দরকার ।

সব খবর
নগর বিভাগের সর্বশেষ