সোমবার ০৯ ডিসেম্বর, ২০১৯

নারায়ণগঞ্জে বাস ধর্মঘটে যাত্রীদের ভরসা ট্রেন

বুধবার, ২০ নভেম্বর ২০১৯, ১৩:৫১

প্রেস নারায়ণগঞ্জ.কম

প্রেস নারায়ণগঞ্জ: নতুন সড়ক পরিবহন আইন বাস্তবায়নের প্রতিবাদে সকাল থেকেই নারায়ণগঞ্জে পরিবহন শ্রমিক ও চালকদের ধর্মঘট চলছে। অবরোধের কারণে সড়কপথ বন্ধ থাকায় রেলপথেই যাত্রীদের একমাত্র ভরসা। ফলে সকাল থেকেই রেলপথে বেড়েছে যাত্রীদের সংখ্যা। অন্যান্যদিনের তুলনায় রেলপথে যাত্রী সংখ্যা বেড়েছে তিনগুণ। তবে অতিরিক্ত যাত্রীদের জন্য বিশেষ কোনো সার্ভিসের ব্যবস্থা করেনি রেল কর্তৃপক্ষ।

বুধবার (২০ নভেম্বর) বেলা ১২টায় নারায়ণগঞ্জ কেন্দ্রীয় রেল স্টেশন সরেজমিনে ঘুরে দেখা যায়, স্টেশনে ট্রেনের অপেক্ষায় শতশত যাত্রীর ভিড়। টিকেট কাউন্টারের সামনে যাত্রীদের বিশাল লাইন। একটু পরপরই টিকেটের জন্য লাইনের পিছন থেকে হাকডাক দিচ্ছেন যাত্রীরা। অন্যদিকে অতিরিক্ত যাত্রীদের সামলাতে রীতিমত হিমশীম খেতে হচ্ছে টিকেট কাউন্টারে থাকা স্টেশন কর্মচারীদের।

চার মাসের ছোট্ট শিশুকে নিয়ে ট্রেনের অপেক্ষা করছেন মাহমুদা আক্তার। সঙ্গে তারা বাবা আসলাম হোসেন। মাহমুদা আক্তার বলেন, ‘জন্মের পর থেকেই বাবুর কিছু অসুবিধা আছে। তাই নিয়মিত ঢাকা শিশু হাসপাতালে নিয়ে যেতে হয়। আজও হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার তারিখ। কিন্তু পরিবহন ধর্মঘটের কারণে কোনো গাড়ি পাইনি। তাই বাধ্য হয়ে বাবাকে বললাম, চলো ট্রেনেই যাবো। এখানে এসে দেখি অনেক ভিড়। তবুও আমাদের যেতে হবে। বাবুর অবস্থা তেমন ভালো না।’

পরীক্ষা শেষে স্টেশনে আসে নারায়ণগঞ্জ কলেজের শিক্ষার্থী তনু তাসনিম। তবে স্টেশনে যাত্রীদের ভিড় তাকে ভাবিয়ে তোলে। তনু বলেন, ‘সকালে আসার সময় তেমন ভিড় ছিল না। স্বাভাবিভাবেই এসেছি। এখন দেখছি ভিড় অনেক। এত ভিড় ঠেলে বাড়ি যেত পারবো কিনা আল্লাহ জানে।’

এদিকে ট্রেন আসার সঙ্গে সঙ্গে যাত্রীরা হুমড়ি খেয়ে পরে ট্রেনে চড়ার জন্য। প্রতিটি বগি ফুল থাকা সত্যেও শিক্ষার্থী, নারী, পুরুষ প্রায় সবাই অনেকে ভিড়ের মধ্যেই গাদাগাদি করেই চড়ে যান ট্রেনে। অনেককে আবার ট্রেনের ছাদে চড়তেও দেখা গেছে।

স্টেশন মাস্টার গোলাম মোস্তফা বলেন, ‘অবরোধের কারণে যাত্রীর সংখ্যা অন্যান্য দিনের তুলনায় তিনগুণ বেড়েছে। সকাল থেকে ৫টি ট্রেন স্টেশন ত্যাগ করেছে। ইতিমধ্যে টিকেট বিক্রি হয়েছে ২ হাজার ২৫৯টি। এর বাহিরে অনেক যাত্রীরা ট্রেনের ভিতরে টিকেট কাটে। ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক আছে আর সিডিউল মতই চলছে।’

সব খবর
নগর বিভাগের সর্বশেষ