সোমবার ১৬ ডিসেম্বর, ২০১৯

নারায়ণগঞ্জে পরিবহন শ্রমিকদের অঘোষিত ধর্মঘট, দুর্ভোগ

বুধবার, ২০ নভেম্বর ২০১৯, ১০:৫৩

প্রেস নারায়ণগঞ্জ.কম

প্রেস নারায়ণগঞ্জ: নতুন সড়ক পরিবহন আইন বাস্তবায়নের প্রতিবাদে নারায়ণগঞ্জে পরিবহন শ্রমিক ও এবং চালকদের অঘোষিত ধর্মঘট চলছে। সকাল থেকেই নারায়ণগঞ্জ থেকে ঢাকাগামী সকল বাস ও গণপরিবহন বন্ধ রয়েছে। যার ফলে রাজধানী ঢাকার সাথে নারায়ণগঞ্জের সড়ক যোগযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। এতে ভোগান্তির শিকার হচ্ছে কয়েক লাখ মানুষ। বেশি সমস্যায় পড়েছে পরীক্ষার্থী, শিক্ষার্থী ও অফিসগামী লোকজন। অন্যদিকে জেলার ঢাকা-চট্টগ্রাম ও ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক অবরোধ করে রাখায় যানজটের সৃষ্টি হওয়ায় পিইসি পরীক্ষার্থী ও তাদের অভিভাবকরা বিপাকে পরেছেন। পায়ে হেটে যেতে হচ্ছে পরীক্ষা কেন্দ্রে।

বুধবার (২০ নভেম্বর) শহরের ১নং রেলগেট সংলগ্ন নগরীর কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনালে সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, ২নং রেল গেইট হতে বন্দর ঘাট সড়কের সর্বত্র বিভিন্ন কোম্পানীর বাস পার্কিং করে রাখা হয়েছে। টিকেট কাউন্টারগুলো বন্ধ। পরিবহন কর্মকর্তা ও ড্রাইভাররা বাসে ও বিভিন্ন চায়ের দোকানে বসে অলস সময় পার করছে। এ সময় ঢাকা ও অন্যান্য স্থানগামী যাত্রীদের বাস না পেয়ে ফিরে যেতে দেখা যায়। অনেকে আবার গণপরিবহন না পেয়ে বিভিন্ন ছোট পরিবহনে যাত্রা করে, কেউ কেউ পায়ে হেটে গন্তব্যে রওয়ানা দেয়। রিকসা, অটো রিকসা, সিএনজি, ইজিবাইক, ভ্যানসহ বিভিন্ন যানবাহনে যাতায়াত করছেন যাত্রীরা।

এদিকে সকাল সোয়া ছয়টা থেকে নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জের সাইনবোর্ড এলাকায় একদল পরিবহন শ্রমিক সড়কে অবস্থান নেয়। তারা মহাসড়কের দুই পাশে গাড়িগুলোকে এলোমেলো করে রেখে রাস্তা অবরোধ করে রাখে।

শ্রমিকদের ধর্মঘটের এ বিষয়টি নিশ্চিত করে সাইনবোর্ড এলাকায় কর্তব্যরত ট্রাফিক পরিদর্শক মো. জিয়াউল করিম জানান, বুধবার সকাল সোয়া ছয়টা থেকে কিছু শ্রমিক রাস্তায় এসে অবস্থান নেয় এবং সড়ক অবরোধ করে মহা সড়কের উভয়পাশ বন্ধ করে দেয়। ঘটনাস্থলে উপস্থিত আছেন নারায়ণগঞ্জ ট্রাফিক বিভাগের সিনিয়র এএসপি সালেহউদ্দিন আহমেদ। 

এদিকে পূর্ব ঘোষণা ছাড়াই শ্রমিকদের ধর্মঘট ও সড়ক অবরোধের কারণে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের সাইনবোর্ড এলাকার উভয় পাশে দীর্ঘ যানজটের সৃষ্টি হয়। এতে করে ভোগান্তিতে পড়েছে দূরপাল্লার যাত্রীসহ বিভিন্ন কর্মস্থানে যাতায়াতরত অন্যসব সাধারণ মানুষ।

সব খবর
জনদুর্ভোগ বিভাগের সর্বশেষ