মঙ্গলবার ১৬ জুলাই, ২০১৯

না’গঞ্জ-কলকাতা নৌযাত্রা, যেসব সুবিধা পাবেন যাত্রীরা

শনিবার, ৩০ মার্চ ২০১৯, ১৬:২১

প্রেস নারায়ণগঞ্জ.কম

প্রেস নারায়ণগঞ্জ: নারায়ণগঞ্জ থেকে প্রথমবারের মতো সরাসরি নৌপথে ভারতে যাবার জন্য ‘এমভি মধুমতি’ নামে একটি জাহাজ ছেড়ে গেছে। শুক্রবার (২৯ মার্চ) রাত ৮টার দিকে নারায়ণগঞ্জের পাগলায় মেরি এন্ডারসনের ভিআইপি ঘাট থেকে ওই জাহাজ ছেড়ে যায়। এর আগে সন্ধ্যায় আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন।

৬১ পর্যটকসহ ১৩৭ জনের প্রথম বহর নিয়ে জাহাজটি রোববার (৩১ মার্চ) দুপুরে কলকাতা পৌছাবে। কলকাতা পৌছানোর আগে জাহাজটি চলবে বুড়িগঙ্গা হয়ে বরিশাল, বাগেরহাটের মোংলা, সুন্দরবন, খুলনার আন্টিহারা দিয়ে ভারতের হলদিয়ায় ঢুকবে।

বিআইডব্লিউটিসি সূত্রে জানা গেছে, ভারতের একটি নৌযান বাংলাদেশে যাত্রী নিয়ে আসবে। ১৭ দিন ঘুরে নৌযানটি বাংলাদেশের বিভিন্ন অঞ্চলের নৌপথ পাড়ি দেবে। নৌযানটি হলদিয়া দিয়ে ইমিগ্রেশনের কার্যক্রম সম্পন্ন করে বাংলাদেশে আসবে।

বাংলাদেশে সাতক্ষীরা, খুলনা, বাগেরহাটের মোংলা হয়ে পিরোজপুরের স্বরূপকাঠি আসবে ভারতীয় এই নৌযান। এরপর বরিশাল, চাঁদপুর, নারায়ণগঞ্জের ওপর দিয়ে ঢাকায় আসবে। ঢাকা থেকে ভারতীয় নৌযানটি সিরাজগঞ্জ দিয়ে কুড়িগ্রাম দিয়ে আবার ভারতের আসামের দিকে চলে যাবে।

কেবিন ভাড়া ফ্যামিলি স্যুট (দুজন) ১৫ হাজার টাকা, প্রথম শ্রেণি (যাত্রী প্রতি) পাঁচ হাজার টাকা, ডিলাক্স শ্রেণি (দুজন) ১০ হাজার টাকা, ইকোনমি চেয়ার প্রতিটি দুই হাজার টাকা এবং সুলভ ও ডিলাক্স শ্রেণির যাত্রী প্রতি ভাড়া রাখা হবে দেড় হাজার টাকা। জাহাজে প্রাতরাশ, মধ্যাহ্নভোজ, বিকেলের নাশতা, রাতের খাবারের ব্যবস্থা থাকবে। তবে এসব খাবার যাত্রীদের কিনে খেতে হবে।

এ ছাড়া ভিসাও যাত্রীদের নিজেদের উদ্যোগে নিতে হবে। ভিসায় কোন পথে যাত্রীরা যাবেন এবং কলকাতা হয়ে ফেরত আসবেন সে বিষয় উল্লেখ থাকতে হবে।

বিআইডব্লিউটিসির উপ মহাব্যবস্থাপক (বাণিজ্য ও যাত্রী) শাহ মো. খালেদ নেওয়াজ জানান, এমবি মধুমতিতে ৮টি ভিআইপি কেবিন, স্নিগ্ধা ৭২টি চেয়ার, ডিলাক্স ৩৬টি, চেয়ার ৪২টি ও ডেক এবং ক্রুজসহ ৬৫৪ জনের ধারণক্ষমতা। জাহাজটিতে নিরাপত্তার জন্য ৮১০টি লাইফ জ্যাকেট ও লাইফ বয়া আছে ৮৪টি।

সব খবর
নগর বিভাগের সর্বশেষ