শনিবার ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০২০

দুই কন্যাকে নিয়ে দিশেহারা নিহত জুয়েলের স্ত্রী

বৃহস্পতিবার, ২৩ জানুয়ারি ২০২০, ২১:১০

প্রেস নারায়ণগঞ্জ.কম

প্রেস নারায়ণগঞ্জ: রিকশার গ্যারেজের আয়ে স্ত্রী-দুই মেয়েকে নিয়ে ভালোই চলছিল জুয়েল মিয়ার (২৮) সংসার। হঠাৎ গ্যারেজ ব্যবসায় লোকসানে পড়ে সে। প্রথমে হতাশাগ্রস্থ, পরে মাদকাসক্ত হয়ে পরেন জুয়েল। বেশ কয়েকবার আত্মহত্যার চেষ্টা করেন। সর্বশেষ বৃহস্পতিবার সকালে বাড়ির পাশেই একটি ফাঁকা মাঠে গাছের ডালের সাথে ঝুলন্ত অবস্থায় তার লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। সকলের ধারণা আত্মহত্যা করেছেন তিনি। এদিকে স্বামীকে হারিয়ে প্রায় দিশেহারা জুয়েলের স্ত্রী সোমা আক্তার। দুই মেয়েকে নিয়ে কোথায় যাবেন, কি করবেন ভেবে পাচ্ছেন না তিনি।

সোমা আক্তার বলেন, ‘বুধবার রাত ১২টায় ঘর থেক্কে বাইর হয় সে। যাওয়ার সময় বলছিল, “আমারে খুঁজিস না, সময় মত ফিরা আমু।” কিন্তু সারারাতেও বাসায় ফিরে নাই। সকালে শুনি কামালের মাঠের একটা গাছে ফাঁসি দিসে।’

সোমা আক্তার জানান, রিকশার গ্যারেজ ব্যবসা লোকসানে পড়ায় ভবঘুরে ধরনের আচরণ করতে শুরু করেন জুয়েল। এরপরই মাদকাসক্ত হয়ে পরে এবং মানসিক অবস্থা ধীরে ধীরে খারাপ হতে থাকে। বেশ কয়েকবার আত্মহত্যার চেষ্টা করেন।

বৃহস্পতিবার (২৩ জানুয়ারি) সকালে ফতুল্লার ভোলাইল গেদ্দারবাজার এলাকায় হাজী কামালের ফাঁকা মাঠের একটি গাছে ঝুলন্ত অবস্থায় জুয়েলের লাশ উদ্ধার করা হয়। নিহত জুয়েল ফতুল্লার ভোলাইল গেদ্দার বাজার এলাকার আজাদ মহাজনের ছেলে জুয়েল। তিনিসহ দুই মেয়েকে নিয়ে একই এলাকার গফুর মিয়ার ভাড়া বাসায় থাকতেন তারা।

তিনি আরো জানান, এ বিষয়ে ফতুল্লা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আসলাম হোসেন বলেন, ‘পরিবারের দেয়া তথ্য অনুযায়ী জুয়েল মাদকাসক্ত ছিল। এটা আত্মহত্যা বলেই প্রাথমিকভাবে ধারণা করা যাচ্ছে। তবে ময়নাতদন্তের রিপোর্ট ছাড়া মৃত্যুর আসল কারণ বলা যাচ্ছে না।’

সব খবর
নগরের বাইরে বিভাগের সর্বশেষ