সোমবার ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৯

দলীয় পদ নিয়ে অনেকে মাদক ব্যবসা-সন্ত্রাস-চাঁদাবাজি করে: আনোয়ার

শনিবার, ১৭ আগস্ট ২০১৯, ২১:৪৫

প্রেস নারায়ণগঞ্জ.কম

প্রেস নারায়ণগঞ্জ: জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি আনোয়ার হোসেন বলেছেন, ‘এখন রাজনীতি ব্যবহার করে অনেকে দলীয় পদ নিয়ে সন্ত্রাস, মাদক ব্যবসা, চাঁদাবাজি করে বেড়ায় আর আমরা তাদের প্রশ্রয় দেই। আমাদের এখনও শিক্ষা হয় নাই। বঙ্গবন্ধু বলেছিলেন সোনার বাংলা গড়তে হলে সোনার মানুষ দরকার। স্বাধীনতার পর আজও আমরা সোনার মানুষ তৈরী করতে পারিনি, চেষ্টাও করি না। সোনার মানুষ তৈরী করতে হলে ভাল নেতৃত্ব তৈরী করতে হবে।’

শনিবার (১৭ আগস্ট) সোনাকান্দাস্থ থানা আওয়ামী লীগনেতা আবেদ হোসেনের বাসভবনের সামনে আয়োজিত বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪ তম মৃত্যু বার্ষিকী উপলক্ষ্যে অনুষ্ঠিত আলোচনাসভা ও মিলাদ মাহফিলে এসব কথা বলেন।

এ সময় তিনি আরো বলেন, ‘আজ ছাত্রলীগের অবস্থা দেখলে কষ্ট হয়। যাদের চৌদ্দপুরুষ আওয়ামী লীগ করে নাই তারা আজকে ছাত্রলীগের নেতৃত্বে চলে আসছে। যারা মাধ্যমিক স্কুল কিংবা কলেজের গন্ডি পেরোয়নি তারাও ছাত্রলীগের নেতৃত্বে চলে আসে। এই যদি হয় অবস্থা তাহলে ৭৫’র পর আরেকটা ৭৫ এর অবস্থা হওয়া ক্ষীণ নয়। আমরা ১৯৭৫ সালে ১৫ তারিখে বঙ্গবন্ধুকে হারিয়েছি; শেখ হাসিনাকে হারাতে চাইনা।’

তিনি তরুণদের উদ্দেশ্যে বলেন, ‘স্বাধীন বাংলার মাটিতে রাজাকারদের গাড়িতে মুক্তিযুদ্ধের পতাকা, স্বাধীনতা বিরোধীশক্তি গোলাম আজমের মত লোকদের বাংলাদেশে আমদানী করেছিল। কারা করেছিল? তারা কিন্তু এখনও মরে নাই। আমাদের মধ্যেই বিরাজমান। তারা আমাদের মিটিংয়ে আসে তারাই আমাদের মিছিলে আসে। তারা শেখ হাসিনা ও বঙ্গবন্ধু শ্লোগান দেয়। অনেক জামাত শিবির ও বিএনপির লোকেরা আওয়ামী লীগের সমাবেশে মিছিল নিয়ে যাচ্ছে। তাদের চিহিৃত করতে হবে। আমার নেত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আমাদের দলে অনেক ত্যাগীকর্মী রয়েছে তাদের মূল্যায়ণ করুন অন্য দলের লোকদের আমদানী আমাদের দরকার নাই। কিন্তু আমরা কেউ কেউ নিজের শ্লোগান ও পেশিশক্তি বৃদ্ধি করার জন্য ওইসব জামাত-বিএনপির লোকদের দলে আমদানী করি। জননেত্রী শেখ হাসিনার ক্লিয়ার কথা ওইসব লোকদের ছাড় দেয়া হবেনা। ’

মহানগর আ’লীগের সদস্য ও বন্দর থানা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আবেদ হোসেনের সভাপতিত্বে আলোচনা সভা ও মিলাদ মাহফিলে বিশেষ অতিথি হিসেবে গুরুত্বপূর্ণ বক্তব্য রাখেন মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক এড. খোকন সাহা। আরো উপস্থিত ছিলেন, মহানগর আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক হাবিব আল মুজাহিদ পলু, যুগ্ম সম্পাদক জিএম আরমান, সাংগঠনিক সম্পাদক এড. মাহমুদা মালা, ২৪নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ নেতা সামসুজ্জামান, মুছাপুর ইউনিয়ণের সভাপতি মুজিবুর রহমান, বন্দর ইউনিয়ণের সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন, ২০নং ওয়ার্ড নেতা এমএ কাউয়ুম, ২২নং ওয়ার্ড শ্রমিকলীগ সভাপতি দেওয়ান মোহাম্মদ আলী, সাধারণ সম্পাদক রনি প্রধান, মহানগর যুব মহিলালীগ সভাপতি নুরুন নাহার সন্ধ্যা, ২১নং ওয়ার্ড নেত্রী রাশিদা বেগম, ২৩নং ওয়ার্ড নেত্রী সিমলা, ২১নং ওয়ার্ড নেতা মনিরুজ্জামান খোকন, বন্দর উপজেলা যুবলীগনেতা মাহমুদুল হাসান জুয়েল প্রমুখ।

শেষে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আত্মার শান্তি কামনায় দোয়া পাঠ করা হয়। দোয়া শেষে দুঃস্থ্যদের মাঝে খিচুরী বিতরণ করা হয়।

সব খবর
রাজনীতি বিভাগের সর্বশেষ