শুক্রবার ১৩ ডিসেম্বর, ২০১৯

তীব্র শীতের আশঙ্কা...

বৃহস্পতিবার, ২ নভেম্বর ২০১৭, ২৩:৪০

প্রেস নারায়ণগঞ্জ.কম

আমাদের সমাজে বহুল প্রচলিতি একটি কথা আছে, ভাদ্র মাসে জন্ম নেয় শীত ঋতু। আজ বাংলা ১৯ কার্তিক, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ আর ইংরেজি ০৪ নভেম্বর, ২০১৭ । বাংলা মাসের খোঁজ-খবর শহরের লোকজন সচরাচর বিশেষ কোন কারণ কিংবা বিপদে না পড়লে রাখেন না। ইংরেজি হিসাব দিয়েই চালিয়ে নেন সারাটা বছর। তবে বাংলা ছয় ঋতু ও বার মাসের প্রভাব আমাদের জীবনে নেহাৎই কম না। বৈশাখ, জ্যৈষ্ঠ, আষাঢ়, শ্রাবণ, ভাদ্র, আশ্বিন, কার্তিক, অগ্রহায়ণ, পেীষ, মাঘ, ফাল্গুন ও চৈত্র হলো বাংলা’র বারো মাস। আসছে শীতকাল। ইতোমধ্যেই বায়ুমণ্ডলের শীত-শীত আবহাওয়া অনুভব করছেন মানুষজন। শহরে সকালে ও রাতে পড়ছে হালকা কুয়াশা। বাজারে আসতে শুরু করেছে শীতকালীন সবজি। বিপণিগুলোতে পাওয়া যাচ্ছে শীতের পোশাক-চাদর, সোয়েটার, মাফলার, ফুলহাতা শার্ট-টিশার্ট, ত্বকের যত্ন নেবার বিভিন্ন প্রসাধনী প্রভৃতি।

এই শীতের আসি আসি ভাবটাতেই প্রকৃতির সবুজ গাছগুলো যেন পাতা ঝড়ানোর প্রস্তুতি নিয়ে নেয়। রাতের নারায়ণগঞ্জে নিঃশব্দে দেখা দিচ্ছে কুয়াশার চাদর। ভোর রাতে হালকা ঠাণ্ডা, আর হিম হিম বাতাস। রাতে একটু ঠান্ডা বাতাস বইলে নগরীর কোথাও কোথাও দেখা মিলবে মানুষজন আগুন জ্বালিয়ে গরম হবার চেষ্টা করছে। অবচেতন মনেই শহরবাসী রাতে জড়িয়ে নিচ্ছে হালকা কাঁথা কিংবা কম্বল।

আমলাপাড়ার ফেরদৌস বলেন, শহরে দিনের বেলা প্রচণ্ড রোদের তেজ থাকলেও সকাল-সন্ধ্যায় হেমন্তের মিহি কুয়াশা আর ঠাণ্ডা বাতাস বইছে। এটিই মূলত শীতের আগমনী বার্তা।

কাশীপুরের আশিক জানান, সোমবার ভোরে ভারি কুয়াশা দেখেছি আমরা। সকাল ৭টা পর্যন্ত এই অঞ্চলে কুয়াশায় ঢেকে ছিল মাঠ-ঘাট। সন্ধ্যার পর থেকে ঝড়ছে কুয়াশা।

সরকারি তোলারাম কলেজের বাংলা বিভাগের নোমান হায়দার জানান, বদলে যাচ্ছে প্রকৃতি। জেঁকে ধরছে শীত। ইতোমধ্যে ঝড়ে গেছে শরতের কাশফুল। কখনওবা নীল আকাশে মেঘের ওড়াওড়ির বদলে দেখা যাচ্ছে ঘোলাটে আকাশ। গাছের সবুজ পাতাও মলিন হয়ে শুকিয়ে জীর্ণ হয়ে যাচ্ছে।

আবহাওয়া অফিস বলছে, চলতি মাসের ১৭ অক্টোবর দক্ষিণ-পশ্চিম মৌসুমি বায়ু বিদায় নিয়েছে বাংলাদেশ থেকে। কিন্তু সাগরে নিম্নচাপের কারণে ১৯, ২০, ২১ অক্টোবর কয়েকদিন টানা বৃষ্টিপাত হয়েছে ।হেমন্তের এই সময়টায় শীত আসবে একটু একটু করে। সারাদেশে নভেম্বরের শুরুতেই দ্বিতীয় সপ্তাহ থেকেই পড়তে শুরু করবে শীত। এবার ডিসেম্বরে তীব্র শীতের আশঙ্কা করছেন আবহাওয়াবিদরা। জানুয়ারি-ফেব্রুয়ারিতে ভালো শীত পড়তে পারে।

পুরোপুরি শীত আসতে আরো কিছু দিন লাগলেও প্রস্তুতি দেখা যাচ্ছে এখন থেকেই।এসেছে শীতের আগাম বার্তা, সময় এখন প্রস্তুতি নেবার।

সব খবর